ঈমান-আমান-ধর্ম নাই প্রমাণ করলো চরমোনাই—————- মোমিন মেহেদী 

             
নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেছেন,ঈমান-আমান-ধর্ম নাই প্রমাণ করলো চরমোনাই। যখনই নির্বাচন, তখনই কোন না কোন বড় দলের সাথে মিশে সহিংসতাকে উসকে দিয়েছে, মানুষের মাঝে ধর্মীয় বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে এই চরমনোইর পীর। জাতীয় পার্টি সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শের সাথে মিশে সবচেয়ে বড় অন্যায় আর অপরাধের রাজনীতি করে ধর্মের ক্ষতি করেছে এই তথাকথিত পীর। ইসলাম যেখানে ঈমানকে শক্ত রাখার কথা বলেছে, সেখানে সেই ঈমানকে ধ্বংস করে দিতে ইহুদী-নাসারাদের দোসর হয়ে দেশে ধর্মীয় দ্বিধা-বিভক্তি তৈরি করছে এই পীরের নেতৃত্বে থাকা ধর্মান্ধচক্র। এদর বিরুদ্ধে ধর্মের অপব্যাখ্যা, অপপ্রয়োগ আর ব্যবসার অভিযোগে এখনই আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন বলে ধর্মীয় সুআলেমদের পাশাপাশি সাধারণ জনগন মনে করে। ৬ অক্টোবর সকাল ১০ টায় বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির প্রেসিডিয়াম মেম্বার চঞ্চল মেহমুদ কাশেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ‘আসন্ন নির্বাচন নতুন প্রজন্মের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। মোমিন মেহেদী আরো বলেন, যদি একজন পীরের সমাবেশের কারণে নির্মমতার শিকার হয় আমজনতা-আবাল-বৃদ্ধ-বণিতা; তাহলে সেই পীরের কপালে ঝাড়–র বাড়ি দিতে এদেশের মানুষ একমূহুর্তও সময় নেবে না। আরেকবার যদি অন্যান্য রাজনৈতিকচক্রের মত সমাবেশের নামে মানুষের ভোগান্তি তৈরি করা হয় এই পীর বা পীরের দলের মাধ্যমে, তাহলে লাগাতার আন্দোলন চলবে পীরের কার্যালয়ের সামনে, মাদ্রাসা নামক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে। প্রেসিডিয়াম মেম্বার অধ্যাপক শুভঙ্কর দেবনাথ, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, প্রেসিডিয়াম মেম্বার চঞ্চল মেহমুদ কাশেম, ডেইলি টাইম বাংলার সম্পাদক ডা. সুলতানা রিক্তা, গাজী একরামুল হক লিটন, লায়ন সাঈদুজ্জামান জাহিদ ও রোটারিয়ান সুদেব চক্রবর্তী সিআইপি, আলতাফ হোসেন রায়হান, ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদুল ইসলাম কামাল, মাহামুদ হাসান তাহের, মহাসচিব হাসিবুল হক পুনম, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব ইব্রাহিম খলিল প্রধান, যুগ্ম মহাসচিব ফরহাদ শিমুল, আনোয়ার হোসাইন ভূইয়া, যুগ্ম মহাসচিব ও যশোর জেলা এনডিবির সভাপতি হাসান জাহিদ, ঝিনাইদহ জেলা এনডিবির সভাপতি ডা. আনোয়ারা খানম, কুস্টিয়া জেলা এনডিবির সভাপতি আমিনুল ইসলাম লাল্টু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।  

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :437 বার!

error: Content is protected !!
JS security