উভয় পক্ষের সমঝোতায় প্রেমিক যুগলের বিয়ে-সম্পন্ন

বিশ্বনাথ প্রতিনিধিঃ-  সিলেটের বিশ্বনাথ থানায় এক প্রেমিক যুগলের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। থানায় বসেই কাজির সামনে ‘কবুল’ বলে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন তারা। বৃহস্পতিবার বিকেলে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়। পুলিশ ও দুই পরিবারের মধ্যস্থতায় বিয়ের দেনমোহর নির্ধারণ করা হয়েছে সাড়ে ৪ লাখ টাকা। থানায় প্রেমিক যুগলের বিয়ে নিয়ে এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিশ্বনাথ উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের পাঠাকইন গ্রামের মোবারক আলীর মেয়ে ফেরদৌসি আক্তার কল্পনার সঙ্গে একই উপজেলার লামাকাজি ইউনিয়নের ইসবপুর গ্রামের আসাবর আলীর ছেলে আলী হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল।কয়েক বছর আগে পরিবারের উদ্যোগে কল্পনাকে অন্যত্র বিয়ে দেয়া হয়। ইতোমধ্যে দুই সন্তানের জননী হন কল্পনা। স্বামীর সংসার করলেও আলী হোসেনের সঙ্গে সম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। এ নিয়ে স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়িও হয়ে যায় তার। বুধবার রাতে প্রেমিকা কল্পনার গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি এক ভাইকে গ্রেফতার করতে পুলিশ তাদের বাড়িতে যায়। এ সময় কল্পনার ঘরে তার প্রেমিক আলী হোসেনকে পেয়ে থানায় ধরে নিয়ে আসে পুলিশ। বৃহস্পতিবার উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যস্থতায় থানার ভেতরেই সাড়ে ৪ লাখ টাকা দেনমোহর নির্ধারণ করে কাজি ডেকে প্রেমিক যুগলের বিয়ে দেয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে বিশ্বনাথ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসুদ্দোহা বলেন, ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ধরতে গিয়ে কল্পনাদের ঘর থেকে প্রেমিক আলী হোসেনকে আটক করা হয়। পরে থানায় উভয় পরিবারের মধ্যস্থতায় তাদের বিয়ে দেয়া হয়।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :310 বার!

JS security