ওমিক্রন: ইংল্যান্ডে কঠোর বিধিনিষেধ দিলেন জনসন

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বৃটেনে দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন সংক্রমণ। এ কারণে বুধবার থেকে ইংল্যান্ডে নতুন করে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। জনগণকে ঘরে বসে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। প্রকাশ্যে বের হলে মুখে মাস্ক পরতে হবে। একইসঙ্গে সংক্রমণকে এড়ানোর জন্য করোনা ভাইরাসের টিকা নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।বৃটেনে সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে বিধিনিষেধরে অংশ হিসেবে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন বরিস জনসন। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। এই বিধিনিষেধ আরোপ করে জনসন বলেছেন, বৃটেনে দ্রুততার সাথে ছড়িয়ে পড়ছে ওমিক্রন। এ অবস্থায় বিধিনিষেধ প্রয়োগ করা ছাড়া তার হাতে আর কোনো বিকল্প নেই।

তবে নতুন এই বিধিনিষেধের ফলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জনসনের নিজের দলের অনেক আইনপ্রণেতা।

তাদের ভয় এর ফলে অর্থনীতিতে আবার আঘাত লাগবে। গতবছর ঐতিহাসিকভাবে বৃটিশ অর্থনীতি শতকরা দশভাগ অবনমন হয়। নতুন বিধিনিষেধের ফলে সেই ধাক্কা আরো একবার অর্থনীতিতে লাগতে পারে বলে তাদের আশঙ্কা। বুধবার বিধিনিষেধের খবর প্রথম প্রকাশিত হওয়ার পর বৃটিশ মুদ্রার দ্রুত পতন হয়।

বরিস জনসন জানিয়েছেন বৃটেনের ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬৮ জন। এ সংক্রান্ত যেসব তথ্য আছে তাতে বলা হচ্ছে দুই থেকে তিনদিনের মধ্যেই সংক্রমণ হতে পারে দ্বিগুন। ওদিকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ বলেছেন, কর্মকর্তারা হিসাব করে দেখেছেন করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রকৃত সংখ্যার প্রায় ২০ হতে পারে। এ সংখ্যা হতে পারে ১০ হাজার।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :51 বার!

JS security