কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭

নিজস্ব প্রতিবেদক :- সিলেট থেকে ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেস মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় দুর্ঘটনায় কবলিত হয়। এতে করে ট্রেনটির কয়েকটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে খালে পড়ে যায়। ভয়াবহ এই ট্রেন দুর্ঘটনায় শেষ খবর পাওয়ার আগ পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৭ জনে। এ ঘটনায় শিশু ও নারীসহ আহত হয়েছেন শতাধিক মানুষ। রোববার দিবাগত রাত পৌণে ১২টার দিকে সিলেট থেকে ঢাকাগামী উপবনের ৩টি বগি উপজেলার বরমচাল এলাকায় রেলপথের একটি কালভার্ট ভেঙে পার্শ্ববর্তী খালে পড়ে যায়। এই দুর্ঘটনায় রোববার রাতে এ পর্যন্ত ৭ জনের মৃতদেহ উদ্ধারের খবর জানিয়েছে পুলিশ। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ,বিজিবি ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা পৌছে উদ্ধার কাজ শুরু করেন।  

কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উয়ারদৌস হাসান জানান, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস হতাহতদের উদ্ধারে কাজ করছে। ট্রেনের অন্য যাত্রীদেরও নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দেয়ার কাজ করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে উদ্ধারকাজে বিজিবি অংশ নিয়েছে।ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সিলেটের সহকারী পরিচালক মুজিবুর রহমান বলেন, হতাহতদের উদ্ধার সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ, দক্ষিণ সুরমা ও সিলেট সদর দফতর থেকে দমকল বাহিনীর একাধিক ইউনিট উদ্ধার তৎপরতায় যোগ দিয়েছে। উদ্ধার অভিযান চলছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়ন্ত্রণকক্ষ জানিয়েছে, রাত ২টা পর্যন্ত কুলাউড়া উপ‌জেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চার‌টি মৃতদেহ ছিল। এর এক‌টি মস্তকবিহীন। জরুরি বিভা‌গে চি‌কিৎসা নি‌চ্ছেন ৬০ জন। শরী‌রের বিভিন্ন জায়গায় মারাত্মক আঘাত থাকায় ২০ জন‌কে সি‌লেট ওসমানী মে‌ডি‌কেল ক‌লে‌জে পাঠা‌নো হ‌য়ে‌ছে। হতাহ‌তের সংখ্যা আরও বাড়‌তে পা‌রে। রাতেই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আহতদের দেখতে আসেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম, পুলিশ সুপার মো. শাহজালালসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।  

নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি কুলাউড়ার কাদিপুর ইউনিয়নের গুপ্ত গ্রামের বাসিন্দা বারি মিয়ার স্ত্রী মনোয়ারা পারভীন (৪৫)। পরাভীনের স্বজনেরা তাঁর লাশ শনাক্ত করেছেন। বরমচালের এই ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনার পর থেকেই সিলেটের সাথে সারাদেশের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়ে। উদ্ধারকারী ট্রেন ঘটনাস্থলে কাজ শুরু করেছে। তবে ভেঙ্গে পড়া সেতু মেরামতের ব্যাপরে কতদিন সময় লাগবে সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এদিকে গত কয়েকদিন থেকে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের সরাইলে ভেঙ্গে যাওয়া সেতুটি মেরামতের কাজ চলছে। সেতুটি মেরামতে আরো ১০দিনের মত লাগতে পারে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। সারা দেশের সাথে সড়ক ও রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় সিলেট অঞ্চলের অর্থনীতিতে ব্যাপক নেতিবাচক প্রভাব পড়বে বলেও জানিয়েছেন ব্যবাসয়ী নেতৃবৃন্দ।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :179 বার!

error: Content is protected !!
JS security