কোলের শিশুকে রাস্তায় ছুড়ে প্রাণ বাঁচালেন মা

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে চালকসহ ৮জন যাত্রী নিয়ে সিএনজি অটোরিকশা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে ছিটকে গিয়ে ৬যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) বিকাল ৪টার দিকে দিরাই শ্যামারচর সড়কের রাজানগরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, দিরাই উপজেলার হরনগর গ্রামের রাশিয়া বেগম, গোবিন্দনগর গ্রামের কলিমা রানী ও প্রিয়তমা রানী, শরীফপুর গ্রামের আফনাদ মিয়া, আনোয়ারপুর গ্রামের নয়ন ও ভাঙ্গাডহর গ্রামের হোসাইন। গুরুতর আহত ৫জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে দিরাই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
আহত প্রিয়তমা রায় বলেন, আমি আমার শাশুড়ি, দেবর পুত্র ও দেড়বছর বয়সী সন্তান নিয়ে বাড়ি ফিরছিলাম। গাড়ির পেছনের সিটে ৪জন ও সামনে ড্রাইভারের পাশে আরও ৪জন মোট ৮জন যাত্রী ওঠায়। আমরা বাধা দিলেও শুনেনি। গাড়ি বেপরোয়াভাবে চালাচ্ছিল। গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ছিটকে পরার সময় আমার শিশুকে রাস্তার পাশে ছুড়ে ফেলি। আমার পা ভাঙলেও সৃষ্টিকর্তার কৃপায় আমার সন্তান কোন আঘাত পায়নি।
জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে নম্বরবিহীন ওই সিএনজিতে ৮জন যাত্রী নিয়ে লাইসেন্সবিহীন চালক দিরাই পৌর সদরের মাদানী মহল্লা গ্রামের দ্বীন ইসলামের পুত্র সাব্বির দিরাই থেকে শ্যামারচর যাচ্ছিল। পথিমধ্যে রাজানগর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনাটি ঘটে।
দিরাই থানা পুলিশ দুর্ঘটনায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :154 বার!

JS security