খালেদা জিয়াকে সালাম দিয়েছি, উনি জবাব দিয়েছেন’


সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দ্বিতীয় দফায় চিকিৎসা শেষে ২৬ দিন পর হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন। গুলশানের বাসায় যাওয়ার পথে রাজধানীর বারিধারা রেলগেইট এলাকার জোয়ার সাহারায় যানজটের কারণে কিছু সময় সাবেক প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি থেমে যায়।

এই সময় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে এক নজর দেখার জন্য সাধারণ মানুষের ভীড় জমে। স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল ও ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েলের সহযোগিতায় দীর্ঘদিন পর বেগম জিয়াকে দেখার সামনাসামনি দেখার সুযোগ পান সাধারণ মানুষ।

যানজটে যতক্ষণ গাড়ি দাঁড়িয়ে ছিলো ততক্ষণ একে একে বেগম জিয়াকে অভিবাদন জানাতে আসেন তাঁরা। সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াও সাধারণ মানুষের ভালোবাসার জবাব দেন হাত নেড়ে। এই সময় বেশ কয়েকজন নারী ও শিশুকে দেখা যায় বেগম জিয়াকে সালাম দিতে। তারা বেগম জিয়ার সুস্থতা কামনা করেন।

কহিনুর নামের এক নারী বলেন, আমি এই প্রথম সামনাসামনি বেগম খালেদা জিয়াকে দেখেছি। তাঁকে দেখে ভালো লেগেছে। সালাম দিয়েছি। তিনি হাত তুলে জবাব দিয়েছেন। তাঁকে দেখলেই বুঝা যায়, তিনি খুব অসুস্থ। আল্লাহ তাঁকে সুস্থতা দান করুন- এই দোয়া করি।

ইমদাদ নামে এক বিএনপি সমর্থক বলেন, বেগম খালেদা জিয়া’র জন্য সবসময় চিন্তা হয়। তাঁকে দেখার জন্য হাসপাতালে এসেছি। তাঁর পেছনে পেছনে গুলশান পর্যন্ত যাবো। তিনি হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন তাই ভালো লাগছে। এই দেশের রাজনীতির জন্য, গণতন্ত্রের স্বার্থে ম্যাডামকে রাজপথে প্রয়োজন।
এরপর বেগম জিয়া গুলশানে বাসার সামনে পৌঁছলে উচ্ছ্বসিত নেতাকর্মীরা স্লোগান দিতে থাকেন। অতিরিক্ত ভীড়ের কারণে তাঁকে বাসায় ঢুকতে বেগ পেতে হয়। বাড়ির ভেতরে সিনিয়র নেতারা তাঁকে স্বাগত জানান। নেতাকর্মীদের শান্ত রাখতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামকে শাসন করতে দেখা যায়। এই সময় গাড়ির মধ্যে থাকা বেগম খালেদা জিয়াকে অভিবাদন জানান বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি’র আহ্বায়ক আব্দুস সালাম, সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু, উত্তর বিএনপি’র আহ্বায়ক আমানুল্লাহ আমান, সদস্য সচিব আমিনুল হক, দক্ষিণ বিএনপি’র সিনিয়র সদস্য ইশরাক হোসেন, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব, যুবদল নেতা এসএম জাহাঙ্গীর, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন এবং সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েলসহ আরও অনেকে।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :53 বার!

JS security