চিত্রনায়িকা সাদিয়া আফরিন রিমান্ডে

গ্লোবাল ডেস্কঃ-      আড়াই কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় চিত্রনায়িকা সাদিয়া আফরিনকে একদিনের রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার ঢাকার মহানগর হাকিম নুরুন্নাহার ইয়াসমিন এ আদেশ দেন। শুক্রবার ঢাকার অপরাধ, তথ্য ও প্রসিকিউশন বিভাগের উপকমিশনার আনিসুর রহমান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।তিনি জানান, গত বুধবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে চিত্রনায়িকা সাদিয়া আফরিনকে ও তার স্বামী বিদ্যুৎ কুমার ওরফে সৌরভকে হাজির করে ১০ দিন রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করে সিআইডি। অপরদিকে তাদের পক্ষে আইনজীবীরা রিমান্ডের আবেদন বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। সে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক চিত্রনায়িকা সাদিয়াকে একদিনের রিমান্ড ও স্বামীকে রিমান্ডের আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।এর আগে মঙ্গলবার কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুর থানা এলাকা থেকে সাদিয়া ও তার স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়।মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘২০১৩ সালে মো. মিজানুর রহমান খানের সঙ্গে চিত্রনায়িকা সাদিয়া আফরিনের ফেসবুকে পরিচয় হয়। পরিচয়ের সূত্রে সাদিয়া আফরিন মিজানুর রহমানকে বলেন, তার স্বামী বিদ্যুৎকুমার সাহা ওরফে সৌরভ সিনেমা প্রযোজনা করেন। মিজানুর রহমানকে সিনেমায় অর্থ বিনিয়োগে লাভবান হওয়ার প্রলোভন দেখান। তাদের বিশ্বাস করে মিজানুর রহমান তার নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, বিকাশ ও পোস্ট অফিসের মাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে সর্বমোট দুই কোটি পঞ্চাশ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেন। কিন্তু বিনিয়োগের বেশকিছু দিন পার হয়ে যাওয়ার পর তাদের বারবার তাগাদা দিলেও তারা সিনেমা না বানিয়ে টালবাহানা করেন। এরপর টাকা ফেরত চাইলে চিত্রনায়িকা সাদিয়া আফরিন জানিয়ে দেন যে, তিনি টাকা দিতে পারবেন না। এরপর মিরপুর থানায় মামলা করেন মিজানুর রহমান। পরে মামলা তদন্তের জন্য সিআইডিকে দায়িত্ব দেয়া হয়। এরপর সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহর অভিযানে সাদিয়া আফরিন ও তার স্বামী বিদ্যুৎকুমার সাহাকে কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুর থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।উল্লেখ্য, সাদিয়া আফরিনের শোবিজ ক্যারিয়ার শুরু ২০১১ সালে। তিনি ‘ক্রাইম রোড’ ও ‘শোধ-প্রতিশোধ’ নামের দুটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। বেশ কিছু নাটক, টেলিফিল্মে অভিনয়ের পাশাপাশি উপস্থাপনায়ও দেখা গেছে তাকে।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :500 বার!

JS security