টিকিটের জন্য কমলাপুর জনসমুদ্র

গ্লোবাল ডেস্কঃ-      ১ জুন থেকে অগ্রিম টিকিট প্রত্যাশী মানুষের যে ভিড় ছিল তা গতকাল কয়েক গুণ বেশি হয়েছিল কমলাপুরে। পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপনে ঢাকা ছেড়ে যেতে ৫ম দিনের মতো টিকিট সংগ্রহ করতে দীর্ঘ লাইনে অপেক্ষা করছিলেন হাজার হাজার মানুষ। টিকিট কাউন্টারের সামনে থেকে শুরু করে মানুষের এই লাইন গিয়ে ঠেকেছে প্রধান সড়কের কাছাকাছি।

১৪ তারিখের টিকিট পেতে আগের দিন সন্ধ্যা থেকেই টিকিট প্রত্যাশীরা লাইনে দাঁড়াতে শুরু করেন। মানুষের এই টিকিটের লাইন মধ্যরাত বা সেহরির পর আরো দীর্ঘ হয়। আর সকালে তো কমলাপুর রূপ নেয় জনসমুদ্রে। কমলাপুরে গতকাল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ছিল শুধু মানুষ আর মানুষ। টিকিট কাউন্টারের সামনে যেন তিল ধারণের ঠাঁই ছিল না।

টানা ২৪ ঘণ্টা অপেক্ষার পর ১৪ জুনের টিকিট পেয়েছেন মিতালি। তিনি বলেন, ২৪ ঘণ্টা অপেক্ষার পর টিকিট মিলল। তবে টিকিট কাটতে এত বিড়ম্বনা কেন বুঝতে পারছি না। ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ট্রেনের টিকিট পেতে মানুষের ভোগান্তির যেন শেষ নেই। এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষের আরো পদক্ষেপ নেয়া উচিত। মিতালির মতো আরো অনেকে এসেছিলেন টিকিট নিতে। তাদের অনেকে টিকিট পেয়েছেন, অনেকে আবার পাননি। অনেকে শেষ পর্যন্ত অপেক্ষার প্রহর গুনেছেন।

কমলাপুর স্টেশন ম্যানেজার সিতাংশু চক্রবর্তী বলেন, মঙ্গলবার মোট ২৭ হাজার ৪৬১টি টিকিট দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ২৫ শতাংশ টিকিট দেয়া হয়েছে অনলাইনের মাধ্যমে। ৫ শতাংশ ভিআইপি কোটা আর ৫ শতাংশ দেয়া হয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :252 বার!

JS security