ঢাকায় মাদকের রাজকুমারী

গ্লোবাল ডেস্কঃ- ফারহানা আক্তার পাপিয়া। শৈশব কাটিয়েছেন মোহাম্মদপুরের আজিজ মহল্লার কোয়ার্টারে। হাইস্কুলে পড়ার সময় প্রেমে পড়েন মোহাম্মদপুরের জেনেভা ক্যাম্পের মাদক ব্যবসায়ী জয়নাল আবেদিন জয় ওরফে পাঁচুর। জেনেভা ক্যাম্পের বি-ব্লকের ২৩৯ নম্বর বাসায় ওঠেন পাঁচুর স্ত্রী হয়ে। এরপর জড়িয়ে পড়েন ব্যবসায়। পাপিয়ার মাদকের হাতেখড়ি স্বামীর মাধ্যমেই। এক সময় স্বামীকে টেক্কা দিয়ে নিজেই ধরেন ব্যবসার হাল। অল্পদিনেই মাদক ব্যবসায় পারদর্শী হয়ে ওঠেন পাপিয়া।শুরুটা হেরোইন ও গাঁজা বিক্রি দিয়ে হলেও ধীরে ধীরে ইয়াবার ডিলারে পরিণত হন। নিজের রূপ-লাবণ্য আর অর্থ কাজে লাগিয়ে ব্যবসায় আধিপত্য বিস্তার করেন। ফারহানা মুছে গিয়ে মাদকের জগতে তার নতুন নাম হয় রাজকুমারী। ইয়াবা পাপিয়া হিসেবেও তাকে চেনেন দেশের শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীরা। সন্দেহের বাইরে থাকতে তরুণী, বৃদ্ধা এমনকি শিশুদের নিয়ে গড়ে তোলেন মাদকের বিশাল সিন্ডিকেট। পুলিশ এমনকি প্রতিপক্ষের হামলা প্রতিহত করতে সব সময় তার কোমরে গোঁজা থাকত অত্যাধুনিক পিস্তল-রিভলবার। থাকত দেহরক্ষীও। জেনেভা ক্যাম্পের বাইরে থেকেই মাদকের ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করে এক সময়ের বস্তির মেয়ে পাপিয়া আজ কোটি কোটি টাকার মালিক।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :335 বার!

JS security