তৃণমূলের কর্মীরাই দলের প্রাণশক্তি-ওবায়দুল কাদের

   তৃণমূলের কর্মীরাই দলের প্রাণশক্তিচট্টগ্রাম প্রতিনিধি:- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এম.পি বলেছেন- তৃণমূলের কর্মীরাই দলের প্রাণশক্তি। এ শক্তিকে আরোও গতিশীল এবং বেগবান করতে প্রতিটি পাড়া মহল্লায় নেতাকর্মীদের তদারকি বাড়াতে হবে। জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নের চলমান ধারাকে অব্যাহত রাখতে নৌকাকে বিজয়ী করার কোন বিকল্প নেই। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বেই বাংলাদেশ এনে দিয়েছে। তার অবর্তমানে তার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বাংলাদেশকে আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে উন্নীত করেছেন। তাঁর সাহসী পদক্ষেপের ফলে সমুদ্র সীমাঅর্জন, বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিদের বিচারের মাধ্যমে ফাঁসির রায়কে কার্যকর করেন। শেখ হাসিনার দৃঢ় পদক্ষেপে বাংলাদেশ আজ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। প্রায় ১০ লক্ষ রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে তিনি আজ মানবতার নেত্রী হিসেবে স্বীকৃত অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি আজ চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ আহুত তৃণমূলের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এম.পি বলেছেন আওয়ামী লীগ জনগণের দল হিসেবে বাংলাদেশের মুক্তিকামী মানুষের হৃদয়ে আজও পরিস্ফূটিত হয়ে আছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার ৯ বছরের সরকারের সাফল্যের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন এই সাফল্য যেন ম্লান করে দিতে না পারে তাঁর জন্য দলের পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের ভূমিকা রাখতে হবে। কোন অপরাধী, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসীরা যেন দলে অনুপ্রবেশ করতে না পারে সেদিকে সর্বোচ্চ থাকার আহ্বান জানান।
আজ সকাল ১১টায় নগরীর লেডিস ক্লাব মিলনায়তনে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের তৃণমূলের বর্ধিত সভা চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এ.কে.এম এনামুল হক শামীম বলেন, তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হলে এমন কোন শক্তি নেই আওয়ামী লীগের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে পারে। ষড়যন্ত্রের সকল অপতৎপরতাকে রুখে দিয়ে আগামীতে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করতে তিনি সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।
চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দিন বলেছেন- আমরা ইতিমধ্যে ১০টি টিমে বিভক্ত হয়ে মহানগরীর ৪৪টি সাংগঠনিক ওয়ার্ডে সদস্য নবায়ন ও নতুন সদস্য কার্যক্রম শুরু করেছি। যার মাধ্যমে আমরা প্রতিটি এলাকায় সরাসরি তদারকির মাধ্যমে সৎ, যোগ্য বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের ব্যক্তিবর্গদের দলের সদস্য করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। এই কার্যক্রম আরো সুষ্ঠু এবং গতিশীল করতে এই প্রক্রিয়া আমাদের চলমান থাকবে। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলহাজ্ব্ শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত তৃণমূলের বর্ধিত সভায় বক্তব্য রাখেন- মহানগর আওয়ামী লীগের অন্যতম সহ সভাপতি, প্রবাসী ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম বি.এসসি, কোতোয়ালী থানা’র আলহাজ্ব ফিরোজ আহমেদ, চকবাজার থানার আলহাজ্ব সাহাব উদ্দিন আহমেদ, ইপিজেড থানার হারুনুর রশিদ, বন্দর থানার মো: নুরুল আলম, পাঁচলাইশ থানার হাজী মো: ইয়াকুব, বায়েজীদ থানার শফিউল আলম ছগির, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের পক্ষে ২৯নং ওয়ার্ডের হাজী আলী বক্স, ৪১নং ওয়ার্ডের ছালেহ আহমদ চৌধুরী, ৩৭নং ওয়ার্ডের আবদুল মান্নান, জামালখান ওয়ার্ডের আবুল হাশেম বাবুল, ৬নং ওয়ার্ডের শামসুল আলম, ১৫নং ওয়ার্ডের মো: গিয়াস উদ্দিন, ৮নং ওয়ার্ডের আতিকুর রহমান, ৩৩নং ওয়ার্ডের রফিকুল হোসেন বাচ্চু, ২০নং ওয়ার্ডের আবু তৈয়ব ছিদ্দিকী, ৩৫নং ওয়ার্ডের ফয়েজ উল্লাহ বাহাদুর, ইউনিট আওয়ামী লীগ হতে শুলকবহর ওয়ার্ডের তৌহিদুল আনোয়ার সেন্টু, জামালখান ওয়ার্ডের জাহাঙ্গীর আলম, দক্ষিণ কাট্টলী ওয়ার্ডের আখতারুজ্জামান চৌধুরী, দক্ষিণ হালিশহর ওয়ার্ডের আবদুল রব। বর্ধিত সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিষ্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, কেন্দ্রীয় উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিষ্টার বিপ্লব বড়–য়া, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এড. সুনীল কুমার সরকার, ডা: মো: আফছারুল আমীন এম.পি, এড. ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন, জহিরুল আলম দোভাষ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বদিউল আলম, আলহাজ্ব এম এ রশিদ, উপদেষ্টা এ কে এম বেলায়েত হোসেন, আলহাজ্ব শফর আলী, শেখ মাহমুদ ইছহাক, মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মিসেস হাসিনা মহিউদ্দিন, মহানগর সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, হাসান মাহমুদ শমসের, এড. ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, হাজী মো: হোসেন, দেবাশীষ গুহ বুলবুল, ইঞ্জি: মানস রক্ষিত, জুবাইরা নার্গিস খান, আবদুল আহাদ, আবু তাহের, দিদারুল আলম চৌধুরী, ডা: ফয়সল ইকবাল চৌধুরী, হাজী শহিদুল আলম, জহরলাল হাজারী, কার্যনিবাহী সদস্য এম এ জাফর, আবুল মনসুর, কামরুল হাসান ভুলু, আলহাজ্ব পেয়ার মোহাম্মদ, নুরুল আমিন শান্তি, নজরুল ইসলাম বাহাদুর, সৈয়দ আমিরুল হক, জাফর আলম চৌধুরী, ইঞ্জি বিজয় কিষাণ চৌধুরী, এড. কামাল উদ্দিন আহমেদ, বখতিয়ার উদ্দিন খান, আহমদ ইলিয়াছ, গৌরাঙ্গ চন্দ্র ঘোষ, অমল মিত্র, গোলাম মোহাম্মদ চৌধুরী, সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, আবদুল লতিফ টিপু, মো: জাবেদ, রোটরিয়ান মো: ইলিয়াছ. নেছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, হাজী বেলাল, মোরশেদ আক্তার চৌধুরী, থানা আওয়ামী লীগের আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর চৌধুরী সিইনসি স্পেশাল, ছিদ্দিক আলম, কাজী আলতাফ হোসেন, হাজী শফিকুল ইসলাম, মো; আবু তাহের, এম এ হালিম, এস এম ইসলাম, মো: হোসেন হীরন, মো: মুমিনুল হক, আনছারুল হক, আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম, খলিলুর রহমান, হাজী মো: আবু তাহের, রেজাউল করিম কায়সার, মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদিকা আনজুমান আরা চৌধুরী আনজী, শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী মাহবুবুল হক চৌধুরী এটলী, মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক আলহাজ্ব মহিউদ্দিন বাচ্চু, যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকা, দিদারুল আলম দিদার, মাহবুবুল হক সুমন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক এড. মো: জিয়াউদ্দিন, যুগ্ম আহ্বায়ক কে.বি.এম শাহজাহান, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর। এছাড়া ৪৪টি ওয়ার্ডের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও ৪৪ টি ওয়ার্ড ইউনিট আওয়ামী লীগের ৩৫২ জন সভাপতি সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত ছিলেন। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত পাঠ করেন মহানগর আওয়ামী লীগের ধর্ম সম্পাদক হাজী জহুর আহমদ।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :345 বার!

JS security