দিরাইয়ে কাউন্সিলর সোয়েল চৌধুরির লোকদের অতর্কিত হামলায় গুরুতর অাহত ১

গ্লোবাল সিলেট ডেস্ক:- দিরাই পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের সুজানগর গ্রামে পূর্ব বিরোধের জেরে দিরাই পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সোয়েল চৌধুরীর লোকদের অতর্কিত হামলায় গুরুতর অাহত হয়েছেন একজন। অাহত ব্যক্তি সুজানগর গ্রামের মৃত হানিফ উল্লাহর ছেলে হারুন মিয়(৪৫)। জানা যায় গত সোমবার দিরাই বাজারে সাংবাদিক ইমরান হোসাইনের চাচাতো ভাই ও পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের চন্ডিপুর গ্রামের এক ছেলের হাতাহাতি কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের সুত্রপাত ঘটে পৌর কাউন্সিলর সোয়েল চৌধুরীর চাচাতো ভাই জিলাল মিয়ার সাথে। ঐদিন সন্ধ্যায় জিলাল মিয়া ও তার ছেলে সুজানগর গ্রামের কয়েকজন লোকের সাথে সংঘর্ষে অাহত হলে সুজানগর গ্রামের দুপক্ষের লোকদের মধ্যে মারমুখি অবস্থান ও উত্তেজনা বিরাজ করছে ৩ দিন ব্যাপী। দিরাইয়ে গণ্যমান্য লোকজন ঘটনার মিমাংসা করতে চাইলে ব্যর্থ হন তারা। বৃহস্পতিবার বিকাল ৫ টায় দিরাই বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে পৌর সদরের অানোয়ারপুর পয়েন্টে সাংবাদিক ইমরানের বড় ভাই হারুন মিয়া চৌধুরী পৌছলে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায় কাউন্সিলর সোয়েল চৌধুরীর লোকজন। তাৎক্ষনিকভাবে অাহতাবস্থায় তাকে দিরাই হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক অাশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেলে প্রেরণ করে। ঘটনার পর থেকে কাউন্সিলরের লোকদেরকে অানোয়ারপুর পয়েন্টে ৩ ঘন্টাব্যাপী অবরুদ্ধ করে রাখে সুজানগর গ্রামের আহত হারুন মিয়ার স্বজন। পরিস্থিতি থমথমে দেখে দিরাই থানা পুলিশ ও পার্শবর্তী চন্ডিপুর গ্রামের লোকদের সহযোগিতায় গ্রামে ডুকে কাউন্সিলর সোয়েল চৌধুরীর লোকজন। পরিস্থিতি শান্ত রাখতে ঘটনাস্থলে দিরাই থানা পুলিশ অবস্থান করছে।
এব্যাপারে মুঠোফোনে ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সোয়েল চৌধুরী গ্লোবাল সিলেট ডটকম কে বলেন- আমার আত্মীয় স্বজনদের সাথে মারামারি হলেও আমি জড়িত নই! তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আহত হারুন মিয়াঁর লোকজন আমার চাচাতো ভাইয়ের উপর হামলা করে এই ঘটনা নিষ্পত্তি করতে আমার প্রচেষ্টায় উপজেলা চেয়ারম্যান হাকিজুর রহমান তালুকদার গতকাল ও আজ রাজানগর ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান আব্দাই মিয়া মিমাংশার চেষ্টা করে ব্যার্থ হলে শিশুদের সাথে কথা কাটাকাটি থেকে হারুনের উপর আক্রমণ এর ঘটনা ঘটে! তবে আহতের পক্ষের দাবি কাউন্সিলর এর লোকজন অতর্কিত হামলা করে হারুন মিয়াকে গুরুতর আহত করেছে।এব্যাপারে দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মস্তফা কামাল বলেন- আমরা ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ প্রেরণ করে বড় ধরণের সংঘর্ষ থেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি এখন অবস্থা স্বাভাবিক আছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সুজানগর গ্রামের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বলেন- হামলার ঘটনার পর আমরা শালিসের মাধ্যমে নিষ্পত্তি করার চেষ্টা করলে আহত পক্ষ বুঝে শনিবার জানাবেন বলে জবাব দেন! এতে করে আবারো পাল্টা হামলার আশংকা রয়েছে বলে জানান তিনি।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :3113 বার!

JS security