দিরাইয়ে পিতৃপরিচয় জালিয়াতির চাঞ্চল্যকর অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার : দিরাইয়ে পিতৃপরিচয় জালিয়াতি করে জন্মনিবন্ধন ও স্কুলসনদ তৈরীর চাঞ্চল্যকর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এনিয়ে পিতৃপরিচয় দানকারীর মেয়ে মাননীয় আমল গ্রহণকারী জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত (দিরাই) সুনামগঞ্জ এ মোকদ্দমা দায়ের করেছেন। মোকদ্দমা সূত্রে জানা যায়, দিরাই পৌরসদরের ভরারগাঁও গ্রামের বাসিন্দা দিরাই বাসষ্ট্যান্ডে অবস্থিত ভাই ভাই রেষ্টুরেন্টের স্বত্তাধিকারী আবুল বশর চৌধুরী ২০০৮ ইং সনে  তার পুত্র হোসাইন আহমেদ সজীব চৌধুরীর জন্ম নিবন্ধনে পিতার নামের স্থলে তার সৎ ভায়রা (বউয়ের সৎ ভগ্নিপতি) দিরাই পৌরসদরের কলেজ রোডস্থ ০৯ নং ওয়ার্ডের যুক্তরাজ্য প্রবাসী ক্বারী আব্দুন নূর ও মায়ের নামের স্থলে আব্দুন নূর’র স্ত্রী মাহমুদা খাতুনের নাম উল্লেখপূর্বক জন্মনিবন্ধন সম্পাদন ও পরবর্তীতে স্কুলসনদ তৈরী করে। বিষয়টি জানাজানি হলে মাহমুদা খাতুন ও আব্দুন নূর’র চার মেয়ে এনিয়ে আপত্তি তুলেন। আবুল বশর সহ স্বজনরা বিষয়টি সংশোধন করবেন বলে আশ্বস্থ্য করে কালক্ষেপন করে আসছেন। উকিল নোটিশ প্রেরণ সহ সামাজিকভাবে চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে একপর্যায়ে ক্বারী আব্দুন নূর’র ২য় মেয়ে মিছফা বেগম বাদী হয়ে আবুল বশর ও তার ছেলে সজীবের বিরুদ্ধে মাননীয় আদালতে পিতার নাম জালিয়াতির মাধ্যমে সম্পত্তি আত্নসাতের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন। বাদী মিছফা বেগম বলেন,  আমাদের পিতামাতার ঔরষে আমরা চার বোন ব্যতিত আমাদের আর কোন ভাই বোন নেই। আমার মায়ের সৎ বোনের স্বামী আবুল বশর আমাদের সম্পত্তি কুক্ষিগত করার অসৎ উদ্দেশ্যে আমাদের অগোচরে সজীবের জন্মনিবন্ধন সহ স্কুলসনদে আমাদের পিতা-মাতার নাম ব্যবহার করে। আমরা বিষয়টি অবগত হয়ে আমাদের স্বজন সহ এলাকার গণ্যমান্য লোকজনের মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে মাননীয় আদালতের শরণাপন্ন হই।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :879 বার!

JS security