প্রেম থেকে পরিণয়ে হ্যারি-মেগান

 গ্লোবাল সিলেট ডেস্কঃ- ব্রিটেনের রাজপরিবারের সদস্য প্রিন্স হ্যারি ও মার্কিন অভিনেত্রী মেগান মার্কেলের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে। উইন্ডসর প্রাসাদে আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে মধ্য দিয়ে হ্যারি-মেগানকে স্বামী-স্ত্রী ঘোষণা করা হয়। সেন্ট জর্জেস গির্জায় রানী ও নিমন্ত্রিত ৬০০ অতিথির সামনে শপথ পাঠ করেন ও আঙটি বদল করেন তারা। শনিবার লন্ডনের স্থানীয় সময় দুপুর ১২টার দিকে উইন্ডসর ক্যাসেলে তাদের বিয়ের অানুষ্ঠানিকতা শেষ হয়।

সেন্ট জর্জ চ্যাপেলে ৬০০ অতিথির সামনে তারা পরস্পরে অাংটি বদল করেন। ব্রিটিশ ডিজাইনার ক্লেইর ওয়েট কেলারের তৈরি সাদা রঙের গাউন পরিহিত হ্যারি জর্জ চ্যাপেলে পৌঁছান। করিডরে পৌঁছানোর পর প্রিন্স হ্যারি মার্কেলের হাত ধরে সামনে এগিয়ে নিয়ে যান। বিয়ের আগেই ব্রিটিশ রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ নতুন এই দম্পতিকে ডিউক অব সাসেক্স এবং ডাচেচ অব সাচেক্স ঘোষণা দিয়েছেন।

সাদা পোশাকে মেগান প্রথমবারের মতো বধূবেশে জর্জ চ্যাপেলে পৌঁছানোর পর চোখের পানি মুছতে দেখা যায় প্রিন্স হ্যারিকে। পরে হ্যারি মেগানের হাত ধরে বলেন, তোমাকে অসম্ভব সুন্দর লাগছে- আমি তোমাকে ভীষণ মিস করেছি। পরে হ্যারি তার বাবাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ধন্যবাদ বাবা।

হ্যারির চোখের পানি মুহূর্তে হাসিতে মিলে যায়। বিয়ের শপথ পাঠের সময় দু’জনকেই হাস্যোজ্জ্বল দেখায়। রাজ পরিবারের ষষ্ঠ উত্তরসূরী প্রিন্স হ্যারির বিয়ের এ দৃশ্য বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ টেলিভিশনে লাইভ দেখেন। মেগানের মাথা-মুখ যে পর্দার আড়ালে ছিল, সেই সাদা নেটের পর্দায় ১৯৩২ সালের ব্যবহৃত একটি হীরকখণ্ড দেখা যায়। এরপর সেন্ট জর্জ হলে রাণির দেয়া মধ্যাহ্ন ভোজে অংশ নেন আগত অতিথিরা। রিসিপশনের সময় মার্কল রাজকীয় নববধূর ঐতিহ্য ভেঙে বক্তব্য দিয়েছেন এমনটি জানা গেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :259 বার!

JS security