বন্দুক-কামানের চেয়ে কলম বেশি শক্তিশালী

পরিকল্পনা মন্ত্রী এম. এ. মান্নান বলেছেন, “বাংলাদেশে মৌলিক ক্ষেত্রে গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে”। তরুণ কৃষিবিদদের জ্ঞান-বিজ্ঞান ও গবেষণায় অধিকতর মনযোগী হবার আহ্বান জানিয়ে বলেন, “ তোমরা জেগে ওঠো, বেরিয়ে পড়ো”। সিকৃবির ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি বন্দুক-কামানের চেয়ে কলমকে বেশি শক্তিশালী বলে আখ্যায়িত করেছেন। পরিকল্পনা মন্ত্রী হাওরাঞ্চলের মানুষদেরও জীবনমান উন্নয়নে সরকার ঘোষিত কর্মসূচি নিয়েও আলোচনা করেন।

ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষকের বক্তব্যে ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ মতিয়ার রহমান হাওলাদার বলেন, “এইচএসসিতে শিক্ষার্থীরা যে পড়াশোনা করে তার ৪ ভাগের ১ ভাগ পড়াশোনা করলে বিশ্ববিদ্যালয়ে এ প্লাস রেজাল্ট পাওয়া সম্ভব।” তিনি বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী প্রায় বিনামূল্যে পড়াশোনা করেন। শিক্ষার্থীদের তিনি পড়াশোনা ও জ্ঞান চর্চায় মনযোগী হতে বলেন।

মঙ্গলবার (১৫ মার্চ ) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন মাঠে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক লেভেল ১, সেমিস্টার ১ এ ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত হয় বলে জানিয়েছে জনসংযোগ ও প্রকাশনা দপ্তর। ওরিয়েন্টেশন বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক এবং ছাত্র পরামর্শ নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক প্রফেসর ড. মোঃ মোস্তফা সামছুজ্জামানের সভাপতিত্বে ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার মোঃ বদরুল ইসলাম শোয়েব, ডিন কাউন্সিলের আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মুহাম্মদ রাশেদ আল মামুন, প্রভোস্ট কাউন্সিলের আহ্বায়ক প্রফেসর ড. এম. এম. মাহবুব আলম, প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) ড. তরিকুল ইসলাম। এর আগে সকাল ৯টা ৩০ মিনিট থেকে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু হয়।

১১টা ১০ মিনিটে পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত, গীতা পাঠের মাধ্যমে মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর নির্মিত একটি প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। সদ্য ভর্তি হওয়া নবীন শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে কৃষি অনুষদের মোঃ মনিউর রহমান ফাহিম এবং বায়োটেকনোলজি ও জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের মোছাঃ আফিয়া জাহিন অনুভূতি ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেছেন উপকূলীয় ও সামুদ্রিক মাৎস্যবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী প্রফেসর পার্থ প্রতীম বর্মন এবং এগ্রিকালচারাল কন্সস্ট্রাকশন অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের লেকচারার সুমাইয়া রশিদ।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :237 বার!

JS security