ভূমধ্যসাগর উপকূল থেকে ৫০০ বাংলাদেশি’ আটক

ভূমধ্যসাগরের উপকূল থেকে ৫০০ জন বাংলাদেশিকে আটক করেছে লিবিয়া পুলিশ। গত শনিবার লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির পূর্ব উপকূল থেকে ইউরোপে যাওয়ার প্রস্তুতি নেওয়ার সময় তাদের আটক করা হয়।

ভয়েস অব আমেরিকার (ভিওএ) এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লিবিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল এস এম শামীম উজ জামান এ খবরের সত্যতা স্বীকার করেছেন।

শামীম উজ জামান বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে লিবিয়া পুলিশ ৫০০ জন বাংলাদেশিকে আটকের কথা জানিয়েছে। তবে, আমরা এ পর্যন্ত ২৪০ জনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পেরেছি।’

২০১৬ সালের পর একদিনে লিবিয়ার উপকূল থেকে এত বেশি বাংলাদেশি নাগরিকের আটকের ঘটনা এটাই প্রথম। ২০১৬ সালের আগে সাগর থেকে ৬০০ জনের বেশি অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়।

২০২০ সালে দালালদের কাছে আটক থাকা অবস্থায় ২৬ জন অভিবাসন প্রত্যাশী মারা যান। এ ঘটনার পর অনিবন্ধিত এ রুটে অভিবাসন প্রত্যাশীর সংখ্যা অনেকাংশে কমে যায়। করোনাভাইরাস মহামারি আঘাত হানার পর এ সংখ্যা প্রায় শূন্যের কোঠায় পৌঁছায়।

লিবিয়ায় চার বছরেরও বেশি সময় বাংলাদেশিদের ভ্রমণ নিষিদ্ধ ছিল। ২০১৬ সালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই মর্মে একটি ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করে। বাংলাদেশের হাইকোর্টে এই নিষেধাজ্ঞাকে চ্যালেঞ্জ করা হয়। কিন্তু আদালত মন্ত্রণালয়ের নোটিশের পক্ষে রায় দেয়।

এ বছরের শুরুতে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। এর পর থেকে অনেকেই কর্মসংস্থান ভিসা নিয়ে লিবিয়ায় যাচ্ছেন। লিবিয়ায় কাজ খুঁজে না পেয়ে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বাংলাদেশি সাগরপথে ইউরোপ যাওয়ার চেষ্টা করেন। আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা জানিয়েছে, গত ৩ মাসে ৫০০ জনের বেশি বাংলাদেশিকে সাগর থেকে উদ্ধার করে দেশে পাঠানো হয়েছে।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :69 বার!

JS security