যুক্তরাজ্যে “দিরাই থানা ডেভেলাপমেন্ট অর্গানাইজেশন ইউ কে” এর নির্বাচনে সেলিম-রয়েল-শাহজাহান পরিষদ বিজয়ী

 

যুক্তরাজ্যে বসবাসরত দিরাইবাসীর সবচেয়ে বড় উন্নয়নমূলক সমাজসেবী সংগঠন “দিরাই থানা ডেভেলাপমেন্ট অর্গানাইজেশন ইউ কে”। সংগঠনটির কার্যকরী পরিষদের নির্বাচন ২৪ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে দুটি প্যানেল অংশ নেয় তার মধ্যে ছাতা মার্কা নিয়ে মিজান-জিয়া-পাশা প্যানেল ও গোলাপ ফুল মার্কা নিয়ে সেলিম-রয়েল-শাহজাহান প্যানেল। ভোটারদের ভোটে গোলাপ ফুল মার্কা নিয়ে সেলিম-রয়েল-শাহজাহান প্যানেল বিজয়ী হয়েছে।

সভাপতি পদে গোলাপ ফুল মার্কা নিয়ে সেলিম সরদার ৪৭৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী ছাতা মার্কা নিয়ে মিজানুর রহমান চৌধুরী পেয়েছেন ৩৯৫ ভোট।

সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ টিপু চৌধুরী ৪৮৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আবাব মিয়া পেয়েছেন ৩৭৪ ভোট। সহ সভাপতি মহি উদ্দিন জগনু ৪৮১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী মোঃ লেচু মিয়া, পেয়েছেন ৩৭৪ ভোট। সাধারণ সম্পাদক রয়েল মিয়া ৪৯৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী সৈয়দ জিয়াউর রহমান পেয়েছেন ৩৬৯ ভোট। সহ সাধারণ সম্পাদক ফয়ছল আহমেদ, ৪৮২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী ফারুক মিয়া ফিরুক পেয়েছেন ৩৭৫ ভোট। সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদ আলম, ৪৭৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আনোয়ার হক ফিরোজ,, পেয়েছেন ৩৮৭ ভোট। কোষাধ্যক্ষ শাহজাহান মিয়া, ৪৮০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী পাশা মিয়া, পেয়েছেন ৩৮৩ ভোট। শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম চৌধুরী সোহাগ, ৪৭৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আক্তার হোসেন, পেয়েছেন ৩৭৮ ভোট। সাংস্কৃতিক সম্পাদক সফিকুল ইসলাম, ৪৭৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী শাহ কামাল চৌধুরী, পেয়েছেন ৩৭৯ ভোট।প্রচার সম্পাদক আবু সালেহ, ৪৭৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী মোঃ হিরা মিয়া, পেয়েছেন ৩৮১ ভোট। নির্বাহী সদস্য মিলিক মিয়া চৌধুরী, ৪৯৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী মোঃ নুরুল ইসলাম সরদার, পেয়েছেন ৩৭৫ ভোট। লুৎফুর রহমান খোকন, ৪৯২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী ফারুক মিয়া চৌধুরী, পেয়েছেন ৩৭২ ভোট। ব্যারিস্টার ফখরুল আলম চৌধুরী শামীম, ৪৯৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী ড. সৈয়দ মাসুক আহমেদ, পেয়েছেন ৩৭৭ ভোট। আব্দুল কাদির, ৪৮০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী মোঃ আমিরুল হক, পেয়েছেন ৩৮৬ ভোট। শামছুজ্জামান ঝুনু, ৪৮৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী মোঃ শফুল মিয়া,, পেয়েছেন ৩৭৪ ভোট। লোকমান হাকীম, ৪৭৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আয়না মিয়া, পেয়েছেন ৩৮২ ভোট। মাওলানা আওলাদ হোসেন, ৪৮৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী মোঃ কিবরিয়া চৌধুরী, পেয়েছেন ৩৭২ ভোট। মোঃ আব্দুল আওয়াল, ৪৭৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আব্দুল মতিন, পেয়েছেন ৩৮৪ ভোট। মোহাম্মদ  শাহিন মিয়া, ৪৮৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী নিয়াজুল ইসলাম চৌধুরী, পেয়েছেন ৩৭৯ ভোট। মোহাম্মদ শাহ কামাল, ৪৭৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী এড. আবুল হাসনাত, পেয়েছেন ৩৯১ ভোট।  জিয়াউল হক চৌধুরী শাহিন ৪৮১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী রামিম চৌধুরী  পেয়েছেন ৩৭৩ ভোট।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :517 বার!

JS security