লন্ডনে সাংবাদিক কাউসার চৌধুরীর চিকিৎসা সহযোগিতা : ১৭ হাজার পাউন্ডের প্রতিশ্রুতি 

লন্ডন ডেস্ক :- দৈনিক সিলেটের ডাক’র সিনিয়র রিপোর্টার সাংবাদিক কাউসার চৌধুরীর চিকিৎসা সহযোগিতার জন্য ফান্ডরেইজিং ডিনার সম্পন্ন হয়েছে।

গত সোমবার ইস্ট লন্ডনের ফরেস্টগেটের প্লামস ট্রি হলে এই ফান্ডরেইজিং সম্পন্ন হয়। এতে প্রায় সাড়ে ১৭ হাজার পাউন্ডের কমিটম্যান্ট পাওয়া গেছে। এর মধ্যে তাৎক্ষনিক ভাবে কার্ড ও ক্যাশের মাধ্যমে জমা হয় প্রায় সাড়ে চার হাজার পাউন্ড। অনুষ্ঠানে সবাইকে স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কাউসার চৌধুরী ট্রিটম্যান্ট ফান্ড ইউকে টিমের চীফ কো-অর্ডিনেটর ও ব্রিটিশ-বাংলাদেশ চেম্বারের সাবেক ডিজি মুহিব চৌধুরী ও কো-অর্ডিনেটর চ্যানেল এস এর সিনিয়র রিপোর্টার ইব্রাহিম খলিল। টিম মেম্বার ও লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব সেক্রেটারী মুহাম্মদ জুবায়ের ও সাপ্তাহিক দেশ সম্পাদক তাইসির মাহমুদের পরিচালনায় পুরো ফান্ডরেইজ প্রোগ্রাম উপস্থাপনা করেন মিডিয়া ব্যাক্তিত্ব ইমাম আজমল মাসরুর। চ্যারিটির গুরুত্ব নিয়ে বিশেষ আলোচনা করেন ইক্বরা ইন্টারন্যাশনালের সিইও জিয়াউর রহমান। ইক্বরা পুরো আয়োজনে একাউন্ট পার্টনার হিসেবে কাজ করছে। প্রতিশ্রুত অর্থ স্বচ্ছতার স্বার্থে চ্যারিটি একাউন্টের মাধ্যমে সংগ্রহ হবে এবং বাংলাদেশেও যৌথ একাউন্টে পৌঁছে দেয়া হবে।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন চ্যানেল এস’র চেয়ারম্যান আহমেদুস সামাদ চৌধুরী জেপি ও ফাউন্ডার মাহি ফেরদৌস জলিল, এনটিভি’র সিইও সাবরিনা হোসেন, ব্রিটিশ-বাংলাদেশ চেম্বারের সাবেক চেয়ারম্যান মুকিম আহমদ, ঢাকা রিজেন্সির এমডি মুসলেহ আহমদ, বিয়ানীবাজার ক্যান্সার হসপিটালের সিইও সাব উদ্দিন, জগন্নাথপুর এডুকেশন ট্রাস্ট এর সাবেক প্রেসিডেন্ট আশিক চৌধুরী, প্রবীন সাংবাদিক ও লেখক নজরুল ইসলাম বাসন, ব্যবসায়ি তাহির রায়হান চৌধুরী পাভেল, ব্যবসায়ি আবদুল হালিম, রয়েল রিজেন্সির ডিরেক্টর আবদুল বারী, প্রাইড অব এশিয়ার এমডি ওয়াজিদ হাসান সেলিম, কমিউনিটি নেতা মনজ্জির আলী, প্রবীন সাংবাদিক কে এম আবু তাহের চৌধুরী, টিম মেম্বার ও জেএমজি এয়ার কার্গোর চেয়ারম্যান মনির আহমদ, টিম মেম্বার ও আই অন টিভির ডাইরেক্টর সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

উল্লেখ্য, সাংবাদিক কাউসার চৌধুরীর চিকিৎসার জন্য ২০১৬ সালে ফান্ডরেইজিং টিম-এর কাছে সরাসরি ও চ্যানেস এস এর মাধ্যমে বৃটিশ বাংলাদেশীরা প্রায় ৪২ হাজার পাউন্ড দান করেন। এই অর্থ, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও তথ্য মন্ত্রণালয় এবং স্থানীয় বিশিষ্ট জনদের কাছ থেকে তার জন্য প্রায় ৬৫ লাখ টাকা সংগ্রহ করা হয়। ২০১৭ সালের ১০ জুলাই ভারতের উত্তর প্রদেশের জেপি হসপিটালে ২৩ ঘন্টার সফল অপারেশনের মধ্য দিয়ে তার কিডনি ও লিভার ট্রান্সপ্লান্ট করা হয়। বর্তমানের ফান্ড মূলত: তার তিন বছরের নিয়মিত ফলোআপ চিকিৎসায় কাজে লাগবে। ফান্ডরেইজিং ডিনারে এছাড়াও টিম মেম্বারদের মধ্যে আবদুল মুনিম ক্যারল, আহাদ চৌধুরী বাবু, আকরাম হোসেন, ফয়সল মাহমুদ, পলি রহমান ও এনাম চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :113 বার!

error: Content is protected !!
JS security