লিভারপুলে হামলাকারী এনজো মুসলিম থেকে ক্রিশ্চিয়ান হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ১৪ নভেম্বর সকাল ১০টা ৫৭ মিনিটে লিভারপুর শহরের লিভারপুল ওমেন্স হাসপাতালের সামনে এক আত্মঘাতী সন্ত্রাসী বোমা হামলা হয়েছে। এই ঘটনার একটি সিসিটিভি ফুটেজ পাওয়া গিয়েছে।
ফুটেজে দেখা যায় , বোমা হামলাকারীকে বহনকারী ক্যাব ড্রাইভার ডেভিড প্যারি নিজে বাঁচতে গাড়ি থেকে লাফ দেন। তবে এই ড্রাইভারের সাহসিকতা জন্যই বোমা হামলাকারী হাসপাতালে ঢুকতে পারেনি কারন ড্রাইভার বোমা ফাটার পরপরই গাড়ির দরজা লক করেই গাড়ি থেকে লাফ দেন। এই আত্মঘাতী বোমা হামলাকারীর নাম এনজো আলমেনী। সে একজন সিরিয়াল শরনার্থী। তার জন্ম সিরিয়ার জামিল আল সোয়ালিমানে এবং বেড়ে উঠা ইরাকে। আলমেনী অনেক ছোট বেলায় যুক্তরাজ্যে আসে । সিরিয়া থেকে যুক্তরাজ্যে আসার পর তাকে দত্তক নেন ক্রিশ্চিয়ান দম্পতি ম্যালকম ও এলিজাবেথ হিটচকক ।
২০১৭ সালে এরাই তাকে মুসলিম থেকে ক্রিশ্চিয়ান হিসাবে কনভার্ট করে লিভারপুল ক্যাথেড্রালে। তারা এই হামলার পর বলেন আলমেনী ২০১৫ সাল থেকে নিজ ইচ্ছায় চার্চে যেতো এবং নিজের ইচ্ছায় সে ধর্ম পরিবর্তন করে। তবে সে রবিবারে হাসপাতালে হামলার আগে সেই ক্যাথেড্রাল চার্চ উড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করে ব্যর্থ হয়ে তারপর হাসপাতালে হামলা করে। এই ঘটনায় আর কেউ নিহত হয়নি।
তবে ইতিমধ্যেই এই ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত ২০, ২১,২৬ ও ২৯ বছরের ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ৪ জনরে নাম ও জাতীয়তা প্রকাশ করা হয়নি। এই মর্মান্তিকে ঘটনায় দু:খ প্রকাশ করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। সেই সাথে যুক্তরাজ্য জুড়ে অতিরিক্ত সতর্কতা নেয়া হয়েছে।
ব্রিটেনের ইংল্যান্ডের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় অঞ্চলের কাউন্টার টেররিজম শাখার সহকারী প্রধান কনস্টেবল রাস জ্যাকসন এ সম্পর্কে বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে বলেন, ‘আমাদের তদন্ত বলছে, ট্যাক্সির ভেতর ইমপ্রোভাইসড বিস্ফোরক ফিট করা হয়েছিল। আমরা আরও জানতে পেরেছি, ওই গাড়িতে আরোহন করা কোনো যাত্রী এই বিস্ফোরকটি ফিট করেছিলেন।’
‘যদিও তদন্ত এখনও শেষ হয়নি, তবে এখন পর্যন্ত যেসব আলামত আমাদের হাতে এসেছে, তাতে পরিষ্কার যে, এটি ছিল একটি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড।’
রোববার লিভারপুলে স্থানীয় সময় বেলা ১১ টার দিকে একটি ট্যাক্সিতে বিস্ফোরণ ঘটে। যে এলাকায় বিস্ফোরণটি ঘটেছিল, তার খুব কাছেই একটি নারী হাসপাতাল ও গির্জা রয়েছে।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :45 বার!

JS security