শওকত – টুটুল বেড়াজালে নুরুল – সভাপতি পদে ফেঞ্চুগঞ্জ আ.লীগে দৌড়ঝাপ

ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিনিধি:- আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম। একটি নাম নয় একটি ইতিহাস। বারবার হয়েছেন চেয়ারম্যান। কখনো দলের দ্বন্দ্ব আবার বিরহ বেদনায় তিনি ছিলেন একাকিত্ব এক মনোভাব নিয়ে। একজন মুক্তিযোদ্ধা তিনি। তবে সে অনুসারে যথেষ্টই পেয়েছেন নুরুল ইসলাম। গেল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বাইরে থেকে নির্বাচনে দাড়ান কাপ পিরিচ মার্কা নিয়ে। তখন তার কাছে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিদ্বন্দ্বী আল ইসলাহ সমর্থিত মোটরসাইকেল প্রতীকে মাওলানা হারুনুর রশীদ এবং বিএনপির সিদ্বান্তের বাইরে এসে দাড়ানো দোয়াত কলম প্রতীকে ওহিদুজ্জামান চৌধুরী ছুফি। সবকিছু ছাপিয়ে বিপুল ভোটে নৌকার কান্ডারী এটিএন বাংলার সিলেট ভিউরো প্রধান শাহ মুজিবুর রহমান জকন সহ সবাইকে পরাজিত করে বিজয়ের মালা পরলেন তিনি।

দলের পদ পদবি না থাকলেও ছাড়েননি আওয়ামিলীগ। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে চমক হয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের সভাপতির নামটা হতে পারে মোঃ নুরুল ইসলাম (মুক্তিযোদ্ধা)। দ্বিতীয় তালিকায় বারবার নির্বাচিত ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান সভাপতি মোঃ শওকত আলী। যাকে এমপি সামাদের আস্থার প্রতীক বলা হয়। বয়সেও অনেক প্রবীণ। যিনি দীর্ঘদিন থেকে একক প্রচেষ্টায় ধরে রেখেছেন ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগকে। তিনিও কম নন। তবে বারবার নির্বাচিত হওয়ায় এবার হয়ত নতুন মুখ চাইবে পরিষদ। পরের তালিকায় হাইভল্টেজ রাজনীতির মূল কান্ডারী সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য ও বর্তমান উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাছিত টুটুল। এমন কোন ব্যক্তি নেই তাকে চেনে না।

এর কারণ তিনি কোন জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত না হলেও ফেঞ্চুগঞ্জে সকল শ্রেণির মানুষের কন্ঠে একটাই সুর টুটুল একজন দক্ষ রাজনীতিবিদ। যিনি ছাত্র থেকে ছাত্ররাজনীতি তার আওয়ামীলীগের দায়িত্বে। তবে একবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের সমর্থন নিয়ে দাড়িয়েছিলেন। কিন্তু সেবার আর নির্বাচন হয়নি৷ এরিয়া জটিলতায় স্থগিত হয়ে যায় নির্বাচন। এখন দেখার বিষয় কে হচ্ছেন ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি। এই তিন হেভিওয়েট তৃনমূলের রাজনীতিবিদ ছাড়া অন্য কাউকে কল্পনাই করা যেতে পারে না। তাহলে কি চমক আসছে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আ.লীগে। এমনটাই আবাস বইছে তৃনমুলে। সাধারণ সম্পাদক পদে সম্ভাবনা রয়েছে আব্দুল আউয়াল কয়েস, মহি উদ্দিন বাদল, শাহ মুজিবুর রহমান জকন সহ বেশ কয়েকজন।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :189 বার!

error: Content is protected !!
JS security