শাল্লায় ঘুর্ণিঝড়ে লন্ডভন্ড ২ শতাধিক বাড়িঘর, শিলাবৃষ্টিতে ধানের ব্যাপক ক্ষতি

গ্লোবাল সিলেট সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:-
সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলা কাল বৈশাখীর ঝড় ও ঘুর্ণিঝড়ে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে প্রায় ২ শতাধিক বাড়িঘড় ও বিভিন্ন স্থাপনা। শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হয়েছে হাওড়ের ফসলের। ঘুর্ণিঝড়ের তান্ডবে গাছপালা উপড়ে গিয়ে ভেঙ্গে গেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। গতকাল সকাল ৮ টা থেকে সাড়ে ৮টা পর্যন্ত চলতে থাকে এই কালবশৈাখীর তান্ডব। আধঘন্টা বয়ে যাওয়া প্রবল কালৈবশাখী ঝড়ে বিধস্ত হয়ে গেছে বাড়িঘর। এছাড়া উপজেলার প্রায় অর্ধশত গরু মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গতকালের প্র্রচন্ড ঝড়ের কবলে পড়ে নদীতে থাকা নৌকা গিয়ে পড়েছে ডাঙ্গায়। ভেঙ্গে পড়েছে বিদ্যুতের খুটি । বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে সারা উপজেলা। সদর ইউনিয়নের ঘুঙ্গিয়ারগাও গ্রামের রাজু দাস জানান, উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন গ্রামে প্রায় ২শতাধিক ঘরবাড়ি লন্ডভন্ড হয়ে গেছে। এছাড়াও হাওড়ে থাকা গবাদিপশু ঘুর্ণিঝড়ের কবওে পড়ে মারা গেছে।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের প্রকৌশলী প্রতিভুষণ দাস বলেন, ‘মাত্র ১০ মিনিটের ঝড়ে মানুষ ও হাওরের ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত ধান

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়্যারম্যানদের সঙ্গে সভা করে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে সাহায্য সহযোগিতা করা হবে। ঝড়ের পর শাল্লায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে।’
শাল্লা উপজেলা চেয়ারম্যান গণেন্দ্র সরকার জানান, ভোরে কালবৈশাখী ঝড়ে শাল্লা উপজেলায় কয়েক শতাধিক বাড়িঘর নষ্ট হয়েছে, আমরা ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে জেলা প্রশাসনে পাঠাচ্ছি।
সুনামগঞ্জ এডিসি(রিভিনিউ) শফিউল আলম গ্লোবাল সিলেট ডটকম সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিকে বলেন, শাল্লা উপজেলা ঘুর্ণিঝড়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ উপজেলার শতাধিক ঘরবাড়ি উড়িয়ে নিছে কালবৈশাখীর ঝড়ে। তিনি আরো জানান ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িঘর পরিদর্শন করে তালিকা তৈরি করার প্রস্তুতি চলছে।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :1105 বার!

JS security