সুনামগঞ্জের ছাতকে স্ত্রীর পরকিয়ায় বাধা দেয়ায় স্বামীকে হত্যা!

ছাতক প্রতিনিধি:-
সুনামগঞ্জের ছাতকে স্ত্রী পরকীয়া প্রেমের বাধা দেয়ায় স্বামীকে নির্যাতন করে হত্যার- ঘটনায় উপজেলাজুড়েই ব্যাপক তোলপাড়। উপজেলার দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নের মর্য্যাদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নের খুরমা গ্রামের কাছিদ আলীর পুত্র জাকির আলী (৩০) একই ইউনিয়নের মর্য্যাদ গ্রামের আফিজ আলীর কন্যা আছিয়া বেগম (২৩) এর সঙ্গে ৪ বছর আগে তার বিয়ে হয়।
বিয়ের পর নানা সময় জাকিরের পরিবারের লোকজনের সাথে আছিয়ার ঝগড়া সৃষ্টি হত।
পরিবারের লোকজনের সাথে বনিবনা না হওয়ায় জাকিরকে বুঝিয়ে তার বাবার বাড়িতে নিয়ে যান। সেখানে যাবার পর তার স্ত্রী আছিয়া বেগমের সঙ্গে এক যুবকের সাথে অবৈধ সম্পর্ক সৃষ্টি হয়। এ ঘটনাটি হাতেনাতে ধরার পর সে তার স্ত্রী কে অবৈধ সম্পর্ক বাধা দেয়ায় জাকিরের উপর স্ত্রী শাশুড়ি শ্বশুরের ও তোরন মিলে তাকে মধ্যযুগি কায়দায় নির্যাতন করে তার মুখে বিষ ঢেলে হত্যা করার অভিযোগ করেন তার বাবা।
গত ১৪ই আগস্ট তাকে নির্যাতন করে জাকিরের মুখে জোরপুর্বক বিষ ঢেলে তাকে পান করানো হয়।
বিষ পানে তার অবস্থা আশংঙ্কা জনক হওয়ায় তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন সিলেট ওসমানি মেডিকেলে ভর্তি করেন।
ওসমানি মেডিকেলে চিকিংসাধীন অবস্থায় ৮দিন পর গত ২২ আগস্ট মারা যান। জাকির মারা যাওয়ার পর স্ত্রী শাশুড়ি শ্বশুর বাড়ির লোকজন তার লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে গেছেন।
এব্যাপারে জাকিরের পিতা কাছিদ আলী জানান, জনৈক ব্যক্তির মাধ্যমে খবর পেয়ে হাসপাতালে এসে লাশ সনাক্ত করেন। তার লাশ ময়না তদন্ত শেষে গত শনিবার বিকেলে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়। দাফন শেষে তার পিতা কাছিদ আলী বাদী হয়ে ৬জনের নাম উল্লেখ করে একটি অভিযোগ থানায় দায়ের করেন।
এব্যাপারে ছাতক থানার ওসি তদন্ত আমিনুল ইসলাম জানান অভিযোগ প্রাপ্তির কথা সত্যতা শ্বীকার করে বলেন- বিষয়টি তদন্ত করার পর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :465 বার!

JS security