সুনামগঞ্জের শাল্লায় পিআইসি গঠনে অনিয়ম জেলা প্রশাসক বরাবরে আরো ৫ কৃষকের অভিযোগ

নাইম তালুকদার সুনামগঞ্জ :-সুনামগঞ্জ শাল্লা উপজেলা পিআইসি গঠনে দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে আরো ৫ জন কৃষক আলাদাভাবে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবরে অভিযোগ দায়ের করেছেন। এই অভিযোগের অনুলিপি সুনামগঞ্জ-২, আসনের সংসদ সদস্য, নির্বাহী প্রকৌশলী, উবো(২), সুনামগঞ্জ এং উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সভাপতি উপজেলা কাবিটা বাস্তবায়ন কমিটি,শাল্লা উপজেলাসহ ১নং আটগাওঁ, ২নং হবিবপুর, ৩ন বাহাড়া, ৪নং শাল্লা ইউ/পি চেয়ারম্যান বরাবরে সদয় অবগতির জন্য অনুলিপি প্রেরণ করা হয়েছে। রবিবার বিকেলে জেলা প্রশাসক বরাবরে এই অভিযোগগুলো দায়ের করেন শাল্লা উপজেলার কাশিপুর গ্রামের কৃষক সাবাজ মিয়া, আব্দুল ওয়াব, আটগাঁও গ্রামের মো: শামীম আহমদ, মো: লিটন মিয়া, শরীফপুর গ্রামের মো: বজলু মিয়া।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,গত ০২/০১/২০১৯ইং তারিখে শাল্লা উপজেলা কাবিটা বাস্তবায়ন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় সকল সদস্যদের উপস্থিতিতে ও মতামতের ভিত্তিতে প্রকৃত কৃষকদের নিয়ে পিআইসি গঠন করা হয় এবং সদস্য সচিব হিসেবে অনেকের নাম ঘোষনা করা হয়। নাম ঘোষনার পর সকলেই কাজের প্রস্তুতি নেন। কিন্তু কিছুদিন যেতে না যেতেই অভিযুক্তরা জানতে পারেন সভায় সিদ্ধান্তকৃত পিআইসিকে কার্যাদেশ না জানিয়ে প্রকল্প থেকে তাদের নাম বাদ দিয়ে গোপনে অন্যদের প্রকল্পের সদস্য সচিব করা হয়েছে যাদের প্রকল্পে কোন জমিজমা নেই। ভূমিহীন ব্যক্তিদেরকে দিয়ে বাধঁ নির্মান করলে বাধঁ হুমকির মুখে পড়তে পারে এবং এতে করে কৃষকদের ক্ষতির সম্ভাবনা থাকবে। শাল্লা উপজেলা বাধঁ নির্মানের কাজ শুরু হওয়ার আগেই যেখানে একের পর এক অনিয়মের অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে। তাতে অনিয়ম কতটুকু হবে সেটা আগেই কৃষকরা বুজতে পারছে। বিষয় টি কতৃপক্ষ ক্ষতিয়ে কৃষকদেও নিয়ে পিআসি গঠন করবেন সেটাই প্রত্যাশা ভুক্তভোগী কৃষকদের। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুল আহাদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার হাতে অভিযোগ পত্র আসেনি। আসলে তদন্ত সাপেক্ষে আইন হত ব্যবস্থা নেওয়া হবে

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :391 বার!

JS security