স্বামীকে হেরোইন দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন স্ত্রী

রাজশাহীতে স্বামীকে মাদক মামলায় ফাঁসাতে চেয়েছিলেন স্ত্রী। এ জন্য বাড়িতে রেখেছিলেন হেরোইন। তবে মাদকের মামলায় ফেঁসে গেছেন তিনি নিজেই। সোমবার সন্ধ্যায় রাজশাহী মহানগরীর চন্দ্রিমা থানার আসাম কলোনি বৌ বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তার এই নারীর নাম নাসরিন বেগম (২২)। তাঁর স্বামীর নাম সোহেল রানা (৩০)। রাজশাহী নগর পুলিশের (আরএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা সোহেল-নাসরিনের ভাড়া বাড়িতে অভিযান চালিয়ে প্রথমে সোহেলকে আটক করেছিলেন।

পরে দুজনকে নিবিড়ভাবে জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসে, স্বামী সোহেল রানাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করেছিলেন স্ত্রী নাসরিন বেগম। তাই পুলিশ তাঁকেই গ্রেপ্তার করেছে। নগর ডিবি পুলিশের উপকমিশনার আরেফিন জুয়েল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, নাসরিনের অনুমতি না নিয়ে তাঁর মামাতো বোনকে দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন সোহেল। স্ত্রী-সন্তান রেখে সোহেল দ্বিতীয় বিয়ে করায় ক্ষুব্ধ হন নাসরিন। আর তাই স্বামীকে ফাঁসাতে তিনি বাড়িতে ১০ গ্রাম হেরোইন রেখেছিলেন। কৌশলে ডিবি পুলিশকে বাড়িতে হেরোইন থাকার কথা জানানো হয়। ডিবির সদস্যরা হেরোইন উদ্ধার করে সোহেলকে আটক করেন। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন, নাসরিন ও সোহেলকে নিবিড়ভাবে জিজ্ঞাসাবাদে এ ঘটনার প্রকৃত রহস্য উন্মোচন হয়। তাই নাসরিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। আর ছেড়ে দেওয়া হয় সোহেলকে।

উপকমিশনার আরেফিন জুয়েল আরও জানান, ডিবি পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে নাসরিন নিজের অপরাধ স্বীকার করেছেন। পরে তাঁকে চন্দ্রিমা থানায় হস্তান্তর করা হয়। এ থানায় তাঁর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলাও করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে পুলিশ তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :151 বার!

JS security