সৎ ছেলেকে জবাই করে হত্যার চেষ্টা: ঘাতক সৎ মা আটক

গ্লোবাল ডেস্ক :- রাঙামাটি শহরে ফারজান আহাম্মেদ (৪) নামে এক শিশুকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার চেষ্টা করেছে সৎ মা কাউসার ফেরদৌস।রোববার (১২ জানুয়ারি) সকালে শহরের কোর্ট বিল্ডিংস্থ সোনালীবাগ এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

ঘাতক সৎ মাকে এলাকাবাসীর সহায়তায় আটক করেছে কোতয়ালী থানা পুলিশ। শিশুটি বর্তমানে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

জানা যায়, রোববার দুপুরে রাঙামাটি শহরের সোনালী বাগ এলাকায় সৎ মা ছুরি দিয়ে গলা কেটে দিলে এই ঘটনা ঘটে। পরে ছেলের চিৎকারে ফারজানের মা ছুটে আসলে তাকেও হত্যারা চেষ্টা চালায় কাউসার ফেরদৌস। ফারজানের মায়ের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে ঘাতককে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় শিশুটিকে দ্রুত রাঙামাটি সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ফারজানের মা ফারজানা আক্তার জানান, দুপুরের দিকে সে বাসার ছাদে কাপড় শুকাতে গেলে এক পর্যায়ে আমার স্বামীর প্রথম স্ত্রী কাউসার ফেরদৌস বাসায় এসে আমার শিশুকে বাথরুমে নিয়ে গিয়ে গলায় ছুরি চালিয়ে দেয়। এ সময় আমার ছেলে চিৎকার করতে থাকে। ছেলের চিৎকার শুনে আমি রুমে আসলে দেখি ফারজানের গলা সে ছুরি দিয়ে কাটছে। আমাকে দেখে সে আমার ছেলেকে ছেড়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে তাড়া করে।

রাঙামাটি সদর সার্কেল অফিসার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ জানান, পুলিশ খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে হামলাকারী মহিলাকে আটক করতে সক্ষম হয়। আহত শিশু ফারজানের মায়ের বক্তব্যে শুনে আমরা আইনি প্রক্রিয়া শুরু করবো। তিনি বলেন, শিশুটির অবস্থা এখনো বলা যাচ্ছে না। তবে ডাক্তার তার চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :279 বার!

JS security