হবিগঞ্জে সাংবাদিককে পুলিশি নির্যাতন, প্রতিবাদের ঝড়

হবিগঞ্জে সাংবাদিককে পুলিশি নির্যাতন, প্রতিবাদের ঝড়স্টাফ রিপো্টারঃ-  হবিগঞ্জে সাংবাদিকের পায়ুপথে জলন্ত মোমবাতির গলন্ত ফোটা ফেলে নির্যাতনের প্রতিবাদে ফুঁসে উঠেছে সারা দেশের সাংবাদিক মহল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে বইছে প্রতিবাদের ঝড়। নির্যাতনের সংবাদে হবিগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবসহ সকল সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ হবিগঞ্জ মডেল থানার প্রধান ফটকে অবস্থান করে প্রতিবাদ জানিয়েছে।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে হবিগঞ্জে চ্যানেল এসএর জেলা প্রতিনিধি সিরাজুল ইসলাম জীবনকে মডেল থানা পুলিশ ধরে নিয়ে চোখ বেধে জলন্ত মোমবাতির গলন্ত গরম ফোটা ফেলে রাতভর নির্যাতন ও মারধর করে। রাতভর অমানবিক, পৈচাশিক নির্যাতন ও মারধর করায় সাংবাদিকের শরীরের আঘাতের চিহ্ন সম্বলিত ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রকাশ হলে দেশব্যাপী সাংবাদিকরা তীব্র নিন্দা প্রকাশ করে।এরই মধ্যে দেশের সাংবাদিক বান্ধব সংগঠন ‘বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম’ বিএমএসএফ’র কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দাসহ প্রতিবাদ জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে সাংবাদিকদের ওপর পুলিশি বর্বরতাকে থামনোর আহবান জানিয়েছে। সেই সাথে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে সাংবাদিক জীবনের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছে। অপরদিকে দেশের বিভিন্ন জেলার সাংবাদিকগণ তাদের নিজ নিজ আইডিতে নির্যাতনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে।চ্যানেল এস এর হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি সিরাজুল ইসলাম জীবনকে থানা পুলিশ ধরে নিয়ে চোখ বেধে থানার ভিতরে রাতভর মোমবাতি জাবালিয়ে গরম গলন্ত মোমের ছ্যাকা দিয়ে পৈশাচিক নির্যাতন ও মারধর করেছে থানা পুলিশ। পরের দিন সকালে সাংবাদিক জীবনকে হাসপাতালের চিকিৎসা রেজিষ্টারে গনপিটুনিতে আহতের কথা উল্লেখ করে হাসপাতালে ভর্তি করে। অপর দিকে পুলিশের অভিযোগ তাদের এক কর্মকর্তার কোমরে থাকা রিভলবার নিয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেছিল সে! খবর পেয়ে হবিগঞ্জের সাংবাদিকরা থানায় ঢুকতে চাইলে কাউকেই থানায় ঢুকতে দেয়া হয়নি। এমনকি কাউকে দেখা করতেও দেয়া হয়নি

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :296 বার!

JS security