হবিগঞ্জে সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে থানা ঘেরাও ‘বিএমএসএফ’ নিন্দা

বিশেষ প্রতিনিধি:-
হবিগঞ্জে চ্যানেল এস জেলা প্রতিনিধি সিরাজুল ইসলাম জীবনকে বৃহস্পতিবার রাতে আটক করে রাতভর চোখ বেঁঁধে মারধর করেছে সদর মডেল থানা পুলিশ। এসময় জ্বলন্ত মোমবাতির ফোটা ফেলে আগুনের ছ্যাকা দিয়ে নির্যাতন করা হয়েছে। এ ঘটনায় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টায় এক প্রতিবাদ বিবৃতিতে সাংবাদিক নির্যাতন ঘটনার সাথে জড়িত পুলিশের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছে। বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলট ও সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর অবিলম্বে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। বিএমএসএফ নেতৃবৃন্দ বলেন, ইতিপূর্বে সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে দৈনিক যুগান্তরের ষ্টাফ রিপোর্টার হাবিব সারোয়ার আজাদকে পুলিশি নির্যাতন ও ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর ব্যর্থ চেষ্টার কথা দেশের সাংবাদিকরা ভুলে যায়নি। এখনি এব্যাপারে পদক্ষেপ নিন! নইলে সাংবাদিকদের প্রতিরোধ ঠেকাতে পারেবেননা।
বিবৃতিতে বলা হয় হবিগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসা রেজিষ্টারে লেখানো হয়েছে গণপিটুনিতে আহতের কথা। পুলিশের অভিযোগ, তাদের এক কর্মকর্তার কোমরে থাকা রিভলবার নিয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেছিল সে!? খবর পেয়ে হবিগঞ্জের সাংবাদিকরা থানায় ঢুকতে চাইলে কাউকেই আজ থানায় ঢুকতে দেয়া হয়নি। এমনকি কাউকে দেখা করতেও দেয়া হয়নি। ঘটনাটি দূপুরে জানাজানি হলে হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবে সকল সাংবাদিক প্রতিবাদ সভা করে। বৈঠকে সাংবাদিক জীবনের মুক্তি ও ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত পুলিশ সদস্যদের শাস্তি দাবিতে সদর থানার সামনে বিক্ষোভ করেন সাংবাদিকরা।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :603 বার!

JS security