হ্যান্ড স্যানিটাইজার শুন্য ঠাকুরগাঁওয়ের হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলো

মাহমুদ আহসান হাবিব,ঠাকুরগাঁও :- ভয়ানক করোনার থাবায় সারা বিশ্বসহ আতঙ্কিত পুরো দেশ। এ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে বারবার হাত পরিষ্কার রাখার কথা বলা হলেও প্রয়োজনীয় হ্যান্ড স্যানিটাইজার শুন্য রয়েছে ঠাকুরগাঁওয়ের হাসপাতাল, ক্লিনিক ও প্যাথলজি সেন্টারগুলো। আর এ নিয়ে জেলার চিকিৎসাসেবা প্রতিষ্ঠানগুলোর সমালোচনা করেছে ভুক্তোভোগীরা।

সদর উপজেলার মুথুরাপুর এলাকার মইনুল ইসলাম জানান, তিনি জেলা শহরের একটি ক্লিনিকে তার স্বজনকে দেখতে গিয়েছিলেন। কিন্তু সেখানে মানুষ অবাধে প্রবেশ করছে হাত না ধুয়েই এবং কোন প্রকার হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যাবহার না করেই । কারন সে প্রতিষ্ঠানে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের কোন ব্যাবস্থাই রাখা হয়নি। একই অভিযোগ করেছেন নারগুন গ্রামের আজমত আলী।

সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, জেলায় ৩৫টিরও বেশি প্রাইভেট হাসপাতাল ও ক্লিনিক রয়েছে। এগুলোতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবস্থা নেই। এ ছাড়া কয়েকটি প্যাথলজি ও চিকিৎসকদের প্রাইভেট চেম্বারে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবস্থা থাকলেও অন্যগুলোতে সে ব্যবস্থা রাখা হয়নি। এ বিষয়ে সিভিল সার্জন ডা. মাহফুজার রহমান সরকার বলেন, হাসপাতাল, ক্লিনিক ও প্যাথলজি সেন্টারের মালিকদের ডেকে করোনার ভাইরাস প্রতিরোধে জরুরি সভা করা হয়েছে।

তাদের হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবস্থা রাখতে বলা হয়েছে। এটা অমান্য করলে এবং আমরা তার প্রমান পেলে সে প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :144 বার!

JS security