Day: August 9, 2019

কাশ্মীরে মুসলিম নির্যাতন ও হত্যার প্রতিবাদে দিরাইয়ে – মানববন্ধন

কাশ্মীরে মুসলিম নির্যাতন ও হত্যার প্রতিবাদে দিরাইয়ে – মানববন্ধন


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
দিরাই প্রতিনিধি :-  সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে শুক্রবার বেলা ২ টায় দিরাই থানা পয়েন্টে দিরাই পৌর ছাত্র জমিয়তের উদ্যোগে ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।  কাশ্মীরে মুসলিমদের নির্মম নির্যাতন ও হত্যার প্রতিবাদে দিরাইয়ে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।  মাওলানা যাকওয়ান আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক উবায়দুল্লাহ্ তাহমিদের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন উপজেলা  জমিয়তে উলায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সভাপতি মাওলানা নাজিমুদ্দিন তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মুহি উদ্দিন ক্বাসিমী, উপজেলা যুব জমিয়ত সভাপতি মাওলানা আবিদুর রহমান, উপজেলা ছাত্র জমিয়ত  সভাপতি ওবায়দুক হক চৌধুরী, সহ-সভাপতি আব্দুল্লাহ্ রাজি,  সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আ'সআদ আহমদ সহ জমিয়ত, যুব জমিয়ত, ছাত্র জমিয়ত ধর্মপ্রাণ মুসলিম জনতা। মানববন্ধনের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন হাফিজ মাহমুদুর রহমান। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, কাশ
মুম্বাই হামলার মাস্টারমাইন্ড হাফিজ সাঈদকে মুক্তি দিয়েছে পাকিস্তান

মুম্বাই হামলার মাস্টারমাইন্ড হাফিজ সাঈদকে মুক্তি দিয়েছে পাকিস্তান


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক :-   এক মাস না হতেই মুম্বাই হা, ম, লার মাস্টারমাইন্ড হাফিজ সাঈদকে মুক্তি দিয়েছে পাকিস্তান। মঙ্গলবার ভারত জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল করে দেওয়ার পরেই সাঈদকে মুক্তি দেয় দেশটির সরকার। এদিকে মাঙ্গলবার পাকিস্তান পার্লামেন্টে ইমরান খান হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন, ‘কাশ্মীরের যা পরিস্থিতি ফের পুলওয়ামার মতো ঘটনা ঘটতে পারে।’ ভারতের দাবি, গত ফেব্রুয়ারি মাসে ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের পুলওয়ামার ঘটনার পিছনে আন্তর্জাতিক জঙ্গি মাসুদ আজহার রয়েছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, গত জুনে হাফিজ সাঈদকে গ্রে, প্তা, র করে পাকিস্তান পঞ্জাবের কাউন্টার টেররিজম ডিপার্টমেন্ট। জঙ্গিদের আর্থিক সাহায্য করার অভিযোগ এনে তাকে গ্রে, প্তা, র করা হয়। তবে, কূটনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাতের আগে হাফিজ়কে গ্রে, প্তা, র করে সন্ত্রাসাবাদ বিরোধী মনোভাবের বার্তা দ
প্রেমিককে নিয়ে স্বামীকে হত্যা: লাশ নিয়ে স্ত্রীর অভিনয়

প্রেমিককে নিয়ে স্বামীকে হত্যা: লাশ নিয়ে স্ত্রীর অভিনয়


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক :-  দিনাজপুরের বিরল উপজেলায় পরকীয়া প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে গলায় গামছা পেঁচিয়ে স্বামীকে হত্যা করেছে স্ত্রী। এ ঘটনায় পুলিশ স্ত্রী তৈয়বা বেগমকে (২১) আটক করেছেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি স্বামীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। শুক্রবার সকালে হত্যাকাণ্ডের শিকার ফরহাদুল ইসলামের (২৩) লাশ উদ্ধার পুলিশ। তিনি বিরল উপজেলার ৮নং ধর্মপুর ইউপির ধর্মপুর টিকড়িপাড়া গ্রামের মোজাহার আলীর ছেলে। তাদের তিন বছর বয়সের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। পুলিশ জানায়, পরকীয়ার কারণে বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। প্রায় সময় সংসারে ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকতো। বেশ কিছুদিন ধরে তাদের বাড়িতে অপরিচিত এক পুরুষ যাতায়াত করতো। তবে এলাকার কেউ তাকে চিনতো না। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে স্ত্রী তৈয়বা বেগম ও তার প্রেমিক মিলে পরিকল্পিতভাবে গলায় গামছা পেঁচিয়ে স্বামী ফরহাদুল ইসলামকে হত্যা করে। পরে সকাল বেল
বক্তৃতার নামে সিইসি, কমিশনার, সচিবদের পকেটে দুই কোটি

বক্তৃতার নামে সিইসি, কমিশনার, সচিবদের পকেটে দুই কোটি


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক :- প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও কমিশনারদের মতো সাংবিধানিক পদের পদাধিকারীদের বিরুদ্ধে বক্তৃতা না দিয়ে অর্থ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তাঁদের সঙ্গে আছেন ইসির সচিবসহ পদস্থ কর্মকর্তারা। আর এই অর্থের পরিমাণ একেবারে কম নয়, দুই কোটি টাকার বেশি। বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও এরপরে উপজেলা নির্বাচনে প্রশিক্ষণ উপলক্ষে শুধু ‘বিশেষ বক্তা’ হিসেবে বক্তৃতা দিয়ে তাঁরা এই অর্থ নিয়েছেন। আর এর বাইরে ‘কোর্স উপদেষ্টা’ হিসেবে নির্বাচন কমিশনের তৎকালীন সচিব (বর্তমানে স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব) একাই নিয়েছেন ৪৭ লাখ টাকা। তিনি ‘বিশেষ বক্তা’ হিসেবেও টাকা নিয়েছেন। তবে তা কত জানা যায়নি। নির্বাচন কমিশন (ইসি) সূত্র জানায়, ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনে প্রশিক্ষণের জন্য নির্বাচন কমিশন ৬১ কোটি ২৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছিল। আর উপজেলা নির্বাচনে প্রশিক্ষণের জন্য বরাদ্দ ছিল ৬১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। ইসির ত
শ্বশুর বাড়িতে নববধূর ঝুলন্ত – মরদেহ

শ্বশুর বাড়িতে নববধূর ঝুলন্ত – মরদেহ


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক :- চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় শ্বশুরবাড়ি থেকে সিমলা খাতুন (১৯) নামে এক নববধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার খাসকররা গ্রাম থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত সিমলা খাতুন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তালতলা গ্রামের পশুহাট পাড়ার মৃত আকবর আলীর মেয়ে। নিহতের পরিবারের দাবি, যৌতুকের দাবিতে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার রাতে সিমলার শ্বশুরবাড়ির একটি শয়ন কক্ষে তার মরদেহ ঝুলতে দেখা যায়। তবে এ সময় তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন কেউ বাড়িতে ছিলেন না। পরে স্থানীয়রা সিমলার বাবার বাড়িতে খবর দিলে তার পরিবারের লোকজন পুলিশকে জানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। নিহত সিমলার বড় ভাই লাল্টু মিয়া জানান, তিন মাস আগে আলমডাঙ্গা উপজেলার খাসকররা গ্রামের নবিছদ্দিন সরদারে
ছিনিয়ে নেয়া সেই আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

ছিনিয়ে নেয়া সেই আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্কঃ-  গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে হাতকড়াসহ ছিনিয়ে নেয়া ১৮ মামলার আসামি চিনু মিয়া (৩৮) পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে গোবিন্দগঞ্জের কাটাখালী বাঁধের ওপর এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে। এছাড়া এ ঘটনায় পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। নিহত চিনু মিয়ার বাড়ি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের বিশ্বনাথ গ্রামে। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইন, হত্যা চেষ্টা, প্রতারণা, চাঁদাবাজি, অগ্নিসংযোগ ও নাশকতাসহ ১৮টি মামলা রয়েছে। গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হাতকড়াসহ ছিনিয়ে নেয়া আসামি চিনু মিয়া বৃহস্পতিবার গভীর রাতে চর এলাকায় পালিয়েছিল। গোপন সংবাদ পেয়ে পুলিশ কাটাখালী এলাকায় অবস্থান নেয়। চিনু ও তার সহযোগিরা কাটাখালীতে পৌঁছালে পুলিশ তাদের আটকের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ
পাচারকালে প্রায় দুই হাজার বস্তা সরকারি চাল জব্দ

পাচারকালে প্রায় দুই হাজার বস্তা সরকারি চাল জব্দ


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক:- হবিগঞ্জে পাচারকালে প্রায় দুই হাজার বস্তা সরকারি চাল জব্দ করেছে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসন। বুধবার (৭ আগস্ট) রাত ১০টার দিকে শহরের গরুর বাজার এলাকার একটি গুদাম থেকে এসব চাল জব্দ করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াছিন আরাফাত রানা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের গরুর বাজার এলাকার সুরমা অটোরাইস অ্যান্ড ফ্লাওয়ার মিলে অভিযান চালানো হয়। এ সময় মিলের গুদামে রাখা সরকারি এক হাজার ৫০ বস্তা, একটি ট্রাকে ভর্তি ৮শ’ ৬০ বস্তা এবং বিপুল পরিমাণ খোলা চাল জব্দ করা হয়। এসব চাল পাচারের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছিল। খাদ্য অধিদফতরের সিল সংবলিত প্রতিটি বস্তা ৩০ কেজি ওজনের। এগুলো দরিদ্রদের মাঝে বিতরণের ভিজিডি ও ভিজিএফের চাল বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর সঙ্গে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরও জানান, চালগুলো কীভাবে এখানে এসেছে বিষয়টি অনু
প্রেমিকের হাত ধরে কানাইঘাটে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও

প্রেমিকের হাত ধরে কানাইঘাটে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক :-  কানাইঘাটে পরকীয়া প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়ে গেছে এক প্রবাসীর স্ত্রী। জানা যায়, উপজেলার দিঘীরপাড় ইউপির কটালপুর গ্রামের মৃত মুন্সী আব্দুল ওয়াহিদের দুবাই প্রবাসী পুত্র ওলিউর রহমান স্বপন প্রায় ৭ বছর পূর্বে পাশর্বর্তী লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউপির নক্তিপাড়া গ্রামের আলা উদ্দিনের মেয়ে সুহাদা বেগমকে বিয়ে করেন। ৩ বছর পূর্বে ওলিউর রহমান বাড়ীতে ছুটি খাটিয়ে পুণরায় দুবাই চলে যান। এ সুযোগে প্রবাসীর স্ত্রী সুহাদা বেগম তার স্বামীর বাড়ীর পাশর্^বর্তী দর্পনগর পশ্চিম বাল্লাগ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য রফিকুল হকের পুত্র বিবাহিত মাতাব উদ্দিনের সাথে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। ঘটনাটি জানাজানি হলে স্বামীর বাড়ীর লোকজন সুহাদা বেগমকে সর্তক করে দেওয়ার পরও সুহাদা বেগম কোন কর্ণপাত না করে পরকীয়া প্রেম চালিয়ে যায়। একপর্যায়ে কয়েক মাস পূর্বে সুহাদা বেগম স্বামীর বাড়ী। 
error: Content is protected !!
JS security