অর্থনীতি

নারীর জন্য বরাদ্দ এক লাখ ৩৭ হাজার কোটি টাকা

নারীর জন্য বরাদ্দ এক লাখ ৩৭ হাজার কোটি টাকা


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্কঃ-   ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে নারী উন্নয়নে এক লাখ ৩৭ হাজার ৭৪২ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। যা গত অর্থবছরের তুলনায় ২৫ হাজার কোটি টাকা বেশি। প্রস্তাবিত এই বরাদ্দ মোট বরাদ্দের ২৯.৬৫ শতাংশ এবং জিডিপির ৫.৪৩ শতাংশ।বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে উত্থাপিত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে এই প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী। বাজেট অধিবেশনে ৪৩টি মন্ত্রণালয়ের জন্য পৃথক জেন্ডার বাজেট উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী। এর মধ্যে ২৭টি মন্ত্রণালয় ও ১৬টি বিভাগকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়।এ বছর প্রস্তাবিত বাজেটে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে চার লাখ ৬৪ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা। এর মধ্যে উন্নয়ন বাজেটের মোট আকার ধরা হয়েছে ১ লাখ ৭৯ হাজার ৬৬৯ কোটি টাকা।অর্থমন্ত্রীর হিসাবে গত পাঁচ বছরে নারী উন্নয়নে বরাদ্দ বেড়েছে দ্বিগুণেরও বেশি। যেখানে ২০১৩-১৪ অর্থবছরে জেন্ডার বাজেটে বরাদ্দ ধরা হয়েছিল ৫৯
বিকেন্দ্রী করণে শাসন কাঠামোর ঢালাও সংস্কার চান অর্থমন্ত্রী

বিকেন্দ্রী করণে শাসন কাঠামোর ঢালাও সংস্কার চান অর্থমন্ত্রী


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্কঃ- স্থানীয় সরকার ব্যবস্থাসহ দেশের শাসন কাঠামোর ঢালাও সংস্কার দাবি জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেছেন, জনসংখ্যায় ও এলাকায় আমাদের এক একটি জেলা পৃথিবীর প্রায় ৬০টি দেশের চেয়ে বড়। আমরা এখন উচ্চতর প্রবৃদ্ধি অর্জনে প্রস্তুত। এটি করতে হলে শাসন কাঠামো ঢেলে সাজাতে হবে। ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ করতে হবে। বৃহস্পতিবার (৭ জুন) দুপুরে দশম জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট বক্তৃতায় এসব কথা বলেন অর্থমন্ত্রী। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বাজেট অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ। বাজেট বক্তৃতায় শেষের দিকে উচ্চতর প্রবৃদ্ধি নিয়ে কথা বলেন অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘সবশেষে আমার প্রিয় বিষয় উচ্চতর প্রবৃদ্ধি নিয়ে কিছু কথা না বলে পারছি না। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, বাংলাদেশে নিয়মতান্ত্রিক বার্ষিক প্রবৃদ্ধির
শাল্লায় সরকারি ভাবে ধান ক্র‍য় কার্যক্রম উদ্বোধন

শাল্লায় সরকারি ভাবে ধান ক্র‍য় কার্যক্রম উদ্বোধন


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
স্টাফ রিপোর্টার:- সুনামগঞ্জের শাল্লায় সরকারীভাবে কৃষকের ধান ক্রয় কর্মসূচীর উদ্বোধন করা হয়েছে। এউপলক্ষ্যে সোমবার দুপুর ১ ঘটিকায় শাল্লা সরকারী খাদ্যগুদাম প্রাঙ্গণে ফিতা কেটে ক্রয় কর্মসূচীর অনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন শাল্লা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুম বিল্লাহ। এসময় উপস্থিত ছিলেন শাল্লা উপজেলা খাদ্য পরিদর্শক তথা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশীষ কুমার রায়। এছাড়া উদ্বোধন অনুষ্ঠানে স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সংবাদকর্মী, পেশাজীবি, কৃষক সহ নানা শ্রেণি পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন। শাল্লা উপজেলা খাদ্য পরিদর্শক ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশীষ কুমার রায় বলেন, চলতি বৎসর শাল্লা উপজেলায় প্রতি কেজি ধানের মূল্য ২৬ টাকা নির্ধারণ করে ৭০০ মেট্রিক টন ধান ক্রয়ের সরকারী নিদের্শনা আছে। প্রকৃত কৃষকগণের ধান নিতে আমি সর্বোচ্চ চেষ্ঠা করবো।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ দুধের গ্রামে কমে যাচ্ছে দুধ বিক্রেতা, সরকারি পৃষ্ঠপোষকাতার দাবী, কমে গেছে গো-চারণ ভূমি, ভিন্ন পেশায় গোয়ালরা

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ দুধের গ্রামে কমে যাচ্ছে দুধ বিক্রেতা, সরকারি পৃষ্ঠপোষকাতার দাবী, কমে গেছে গো-চারণ ভূমি, ভিন্ন পেশায় গোয়ালরা


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
ল্প আলাল হোসেন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ (সুনামগঞ্জ): দক্ষিণ সুনামগঞ্জের দরগাপাশা ইউনিয়নে দুধের গ্রাম হিসেবে খ্যাত ইসলামপুরে দিন দিন কমে যাচ্ছে দুধ বিক্রেতার সংখ্যা। দুধের ব্যবসা ছেড়ে অধিকাংশই এখন অন্যান্য পেশার দিকে ঝোকছেন। বেশিরভাগ মানুষ এখন কৃষি আর মাছ ব্যবসায়ী হিসেবে স্থায়ী আসন করে নিয়েছেন। কেউ কেউ পাড়ি দিচ্ছেন প্রবাসেও। তাই, দুধ ব্যবসায় এই গ্রামের অতীত জৌলুস এখন বিলুপ্তির পথে। অথচ মাত্র এক দশক আগেও এই গ্রামের গরু থেকে উৎপন্ন খাটি দুধেই চাহিদা মিটতো উপজেলার প্রতিটি গ্রামের দুধ পিয়াসী মানুষের। দুধ ব্যবসায়ীরা প্রতিদিন গরু থেকে দুধ দোহন করে কলসিতে করে পায়ে হেঁটে উপজেলার পাগলা বাজার, পশ্চিম পাড়া, বীরগাঁও, শান্তিগঞ্জ, আক্তাপাড়াসহ বেশ কয়েকটি স্থানে দুধ সরবরাহ্ করতেন। এখনও যারা এই ব্যবসায় জড়িত আছেন তারাও একই কায়দায় দুধ বিক্রি করে থাকেন। মাত্র এক দশক আগে এই গ্রামে ১৫ থেকে ২০ জন দুধ পেশাদার দুধ ব্য
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের  উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থেকে মো: শহিদ মিয়াঃ- দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ২০১৮-২০১৯ সনের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা করা হয়েছে। বুধবার দুপুর ১২ টায় উপজেলা পরিষদ হলরুমে ২০১৮-১৯ সনের মোট ১ কোটি ৬৪ লক্ষ ২৩ হাজার টাকা বাজেট ঘোষনা করেন উপজেলা চেয়ারম্যান হাজী আবুল কালাম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: হারুন অর রশীদ,উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছা: রুবিনা বেগম,উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী আব্দুল হেকিম, জয়কলস ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ মিয়া,উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী রুবাইয়াত জামান, উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক সুরঞ্জিত চৌধুরী টপ্পা, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মো: আব্দুল তাহিদ,ইউপি সদস্য মাহবুবা চৌধুরী,মজিফুল বেগম,নাজমা বেগম প্রমুখ।
দিরাই উপজেলা পরিষদের বাজেট ঘোষণা

দিরাই উপজেলা পরিষদের বাজেট ঘোষণা


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
দিরাই প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলা পরিষদের ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে ২ কোটি ৩৯ লাখ ৩৫ হাজার ৬১৩ টাকার বাজেট ঘোষণা করেন দিরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান তালুকদার। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গোলাপ মিয়া, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ছবি চৌধুরী, ইউপি চেয়ারম্যান এহসান চৌধুরী, রতন কুমার দাস, রেজুয়ান খান, শাহজাহান কাজী, সৌম্য চৌধুরী, আব্দুল কুদ্দুস, উপজেলা প্রকৌশলী ইফতেখার হোসেন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নুসরাত ফেরদৌসী । বাজেট বক্তৃতায় হাফিজুর রহমান তালুকদার বলেন, আমরা হাওর পাড়ের শিক্ষা, কৃষি, যোগাযোগের উপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছি। আমি চেয়ারম্যান হওয়ার পর থেকেই হাওর পাড়ের শিক্ষা, যোগাযোগসহ সকল ক্ষেত্রে ব্য
হাওরে জলাবদ্ধতা অপ্রয়োজনীয় বাঁধ নির্মাণকে দায়ি করছেন কৃষকরা

হাওরে জলাবদ্ধতা অপ্রয়োজনীয় বাঁধ নির্মাণকে দায়ি করছেন কৃষকরা


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
বিপ্লব রায়, সুনামগঞ্জ থেকে:- গেল দু’বছর পরপর সুনামগঞ্জের হাওরগুলোতে ব্যাপক বিপর্যয়ের পর এবার বাম্পার ফলন। কিন্তু কৃষকের মুখে হাসি ফুটতে না ফুটতে আবারও শঙ্কা জলাবদ্ধতায় পাকা ধান তলিয়ে যাওয়ার। তার উপর শ্রমিক সংকট প্রতিটি হাওরে হাওরে। মাঠভরা ফসল কিন্তু তা ঘরে তুলতে হিমশিম খাচ্ছেন কৃষকরা। কয়েকদিনের বর্ষণের ফলে জেলার বেশ কিছু হাওরে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে বজ্রপাত আতঙ্ক কৃষকের কাছে ‘মরার উপড় খাড়ার ঘা’। জেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের দাবি এপর্যন্ত জেলায় ৮০% ধান কাটা শেষ। তবে কৃষক ও কৃষি বিশ্লেষকরা এর পরিমান আরো ৪০% বলে জানিয়েছেন। জলাবদ্ধতা সৃষ্টির অন্যতম কারণ হিসেবে অপ্রয়োজনীয় বাঁধকেই দায়ি করলেন কৃষকরা। স্থানীয় কৃষকদের অভিযোগ, অনেক এলাকায় অপ্রয়োজনীয় বাঁধ হয়েছে বাধ নির্মানে নীতিমালা লংঘন করে স্থানীয়দের সাথে আলাপ-আলোচনা ছাড়াই। যার ফলে এখন হাওরে হাওরে জলাবদ্ধতা। পানি উন্নয়ন বোর্ড, উপজেলা প
‘বেগুনি রঙ ধান’ নিয়ে তোলপাড়, পাহারায় গ্রাম পুলিশ !

‘বেগুনি রঙ ধান’ নিয়ে তোলপাড়, পাহারায় গ্রাম পুলিশ !


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
দুলালী সুন্দরী বেগুনি রঙ ‘ধান’ নিয়ে তোলপাড়, পাহারায় গ্রাম পুলিশ ! গ্লোবাল সিলেট ডেস্ক:- গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে বেগুনী রংয়ের ধান ক্ষেত নিয়ে চলছে পরীক্ষা, নিরিক্ষা, পর্যবেক্ষণ ও গবেষণা। সম্পতি বিভিন্ন পত্রিকায় বেগুনী রংয়ের ধানের চমক শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর সারা দেশ ব্যাপী আলোড়ন সৃষ্টি হয়। এরপর থেকে কৃষি অধিদপ্তরের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও গবেষক এবং দেশের বিভিন্ন এলাকা হতে প্রতিদিন হাজারও নারী পুরুষ বেগুনী ধান দেখতে ভীড় করছেন। দর্শকের ভীড় ঠেকাতে উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি অধিদপ্তরের পক্ষ হতে দুইজন গ্রাম পুলিশকে ধানক্ষেত পাহাড়া দেওয়ার জন্য নিয়োজিত করা হয়েছে। গত ১৫ এপ্রিল হতে ধানক্ষেত পাহাড়া দেয়া হচ্ছে। উপজেলা কৃষি অফিসার রাশেদুল ইসলাম প্রতিদিন ক্ষেত দর্শন করছেন। এছাড়া দর্শকরা যাতে ধানের পাতা, ডাল ও শীষ ছিঁড়ে নিয়ে যেতে না পারে সে জন্য ক্ষেতের চারপাশে জাল দিয়ে
আজ মহান মে দিবস, চাই শ্রমিকের ন্যায্য মূল্য ও নিরাপদ কর্ম পরিবেশ

আজ মহান মে দিবস, চাই শ্রমিকের ন্যায্য মূল্য ও নিরাপদ কর্ম পরিবেশ


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
এস,এম,ওয়াহিদুল ইসলাম, বার্তা সম্পাদক:-আজ ১লা মে, মহান মে দিবস। শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের আন্তার্জাতিক সংহতি প্রকাশের এক ঐতিহাসিক দিন। আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস হিসেবে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে শ্রমজীবী মানুষ এবং শ্রমিক সংগঠন সমুহ গুরুত্বের সাথে দিবস পালন করে আসছে। ১৮৮৬ সালে পহেলা মে যুক্তরাষ্ট্রে শিকাগো শহরের "হে মার্কটে শ্রমের উপযুক্ত মূল্য এবং দৈনিক ৮ঘন্টা কাজে দাবীতে ধর্মঘট পালন করে। শ্রমীকের ন্যায্য অধিকার আদায়ের জন্য ব্যাপক সংখ্যক শ্রমিক প্রাণ দিয়েছিল। উন্নত বিশ্বে শ্রমিকের পারিশ্রমিক মূল্য সন্তোষ জনক ও কর্মঘন্টা নির্ধারিত ৮ঘন্টা হলেও তৃতীয় বিশ্বের স্বল্পোন্নত ও দারিদ্র্য পিরিত কোটি-কোটি শ্রমিকের পারিশ্রমিক অনুযায়ী না আছে সঠিক শ্রম মূল্য না নির্দিষ্ট কর্মঘন্টা! বিভিন্ন দেশে কাজের পরে নির্ধারিত বেতন-ভাতাও সঠিক ভাবে পাচ্ছেনা লক্ষ লক্ষ শ্রমিক। আমাদের দেশও তার বাইড়ে নয়। শিশু শ্রম আশংকা জনক ভাবে ব
রাতের আঁধারে কাটা হয়েছে টাঙ্গুয়ার হাওড়ের বাঁধ তলিয়ে যাচ্ছে পাকা ধান

রাতের আঁধারে কাটা হয়েছে টাঙ্গুয়ার হাওড়ের বাঁধ তলিয়ে যাচ্ছে পাকা ধান


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
রাতের আঁধারে কাটা হয়েছে টাঙ্গুয়ার হাওড়ের বাঁধ তলিয়ে যাচ্ছে পাকা ধান         বিপ্লব রায় সুনামগঞ্জ থেকে:- রাতের আঁধারে ফসল রক্ষা বাঁধ কেটে দেয়ায় হুমকির মুখে পড়েছে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার টাঙ্গুয়ার হাওড়ের প্রায় দেড় হাজার হেক্টর জমির পাকা ধান। পানি ঢুকে পড়ায় অনেক কৃষক ধান কাটতে পারছেন না। ধারণা করা হচ্ছে, মাছ ধরার জন্য জেলেরা এ কাজ করেছেন। এ ঘটনায় এরই মধ্যে একজনকে আটক করেছে প্রশাসন। স্থানীয়রা জানায়, গত বৃহস্পতিবার শেষ রাতের দিকে কিছু লোক নাউটানা খালের বাঁধটি কেটে দেয়। হাওড়ে হুড়হুড় করে ঢুকে পড়ছে পানি। গতকাল দুপুর পর্যন্ত টাঙ্গুয়ার হাওড়ের প্রায় ৪০ শতাংশ বোরো ধানের জমিতে পানি প্রবেশ করেছে। বৈরী আবহাওয়ায় নদীতে পানি বাড়ছে। ফলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়ার শঙ্কায় আছেন কৃষকরা। বাঁধটি দিয়ে পানি প্রবেশ বন্ধ করা না হলে এ পানি টাঙ্গুয়ার হাওড়ের আরো
error: Content is protected !!
JS security