দূর্নীতি

আলোচিত বালিশকাণ্ডে গণপূর্তের ১৬ কর্মকর্তা – বরখাস্ত

আলোচিত বালিশকাণ্ডে গণপূর্তের ১৬ কর্মকর্তা – বরখাস্ত


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক:-   আলোচিত রূপপুর পরমাণু বিদ্যু প্রকল্প এলাকায় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের থাকার জন্য বিছানা, বালিশ ও আসবাবপত্র কেনায় দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকার প্রাথমিক সত্যতা প্রমাণিত হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে প্রকৌশলী মোহাম্মদ মাসুলুল আলমসহ গণপূর্ত অধিদপ্তরের ১৬ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে গণপূর্ত মন্ত্রণালয়। মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) হাইকোর্টে আসা গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের দাখিল করা প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সাময়িক বরখাস্তকৃত কর্মকর্তারা হলেন, মো. শফিকুল ইসলাম, মো. আবু সাঈদ, মো. শাহিন উদ্দিন, মো. জাহিদুল কবীর, মো. রফিকুজ্জামান, সুমন কুমার নন্দী, মো. ফজলে হক, মো. রওশন আলী, মো. আমিনুল ইসলাম, মো. রুবেল হোসাইন, মো. তারেক, আহম্মেদ সাজ্জাদ খান, মো. মোস্তফা কামাল, মো. তাহাজ্জুদ হোসেন, একেএম জিল্লুর রহমান। গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব জিল্লুর রহমান স্বাক্ষরিত এ প্রতিবেদন পাঠানো
সম্রাটের ২ পিকআপ ভর্তি টাকার সন্ধানে গোয়েন্দারা!

সম্রাটের ২ পিকআপ ভর্তি টাকার সন্ধানে গোয়েন্দারা!


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবল ডেস্ক:- সম্রাটের ২ পিকআপ – ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার দুই দিন পর ২০ সেপ্টেম্বর ঢাকা থেকে দুই পিকআপ ভর্তি টাকা গেছে চট্টগ্রামের দিকে! এমন তথ্য বেরিয়ে এসেছে গোয়েন্দাদের অনুসন্ধানে। এই টাকা কোথায় গেছে, কার টাকা, এখন কী অবস্থায় আছে- সব কিছু উদঘাটনের চেষ্টা করছে একাধিক গোয়েন্দা সংস্থা। ধারণা করা হচ্ছে, দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন সম্রাটই ওই টাকা পা’চার করতে চেয়েছিলেন। রোববার ভোরে গ্রে’প্তার হয়েছেন তিনি। জানা গেছে, অবৈধ টাকা রাখার জায়গা খুঁজে পাচ্ছে না অবৈধ ক্যাসিনো পরিচালনা, দুর্নীতি, মা’দক, টেন্ডারবাজি ও চাঁদাবাজির সঙ্গে জড়িত এক শ্রেণির রাজনৈতিক নেতা। কয়েক শত কোটি টাকা নিয়ে তারা বিপাকে পড়েছেন। প্রাথমিকভাবে গোয়েন্দাদের ধারণা, চট্টগ্রামের হুন্ডি ব্যবসায়ী সাহীন চৌধুরী কাছে এ টাকা পাঠানো হয়েছে। বিষয়টির সত্যতা জানতে হুন্ডি ব্যবসায়ী সাহিন চৌধুরী এবং
ঠাকুরগাঁওয়ে দুদকের অভিযানে নগদ অর্থসহ শিক্ষা অফিসার আটক

ঠাকুরগাঁওয়ে দুদকের অভিযানে নগদ অর্থসহ শিক্ষা অফিসার আটক


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
মাহমুদ আহসান হাবিব, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁও জেলা প্রাথমিক অফিসে ঘুষ লেনদেনের সময় হাতে নাতে জেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আনিছুর রহমান সহ এক কর্মচারিকে আটক করেছে দুদক। সোমবার সকালে দিনাজপুর দুদকের একটি টিম ঠাকুরগাঁও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। এসময় তার সাথে থাকা অফিস সহকারী জুলফিকার আলীকেও আটক করা হয়। দুদক সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুদকের একটি টিম ঠাকুরগাঁও জেলা শিক্ষা অফিসে অভিযান চালায়। এ সময় অফিস সহকারি জুলফিকার আলী জেলা সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আনিছুর রহমানকে ৫০ হাজার টাকা ঘুষ দেওয়ার সময় হাতে নাতে ওই দুজনকেই আটক করে। পরে জেলা সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আনিছুর রহমানের বাসভবনে তল্লাসি চালায় দুদক। দিনাজপুর দুদকের সহকারি পরিচালক আহসানুল কবির পলাশ জানান, তথ্যের ভিত্তিতে তাদেরকে নগদ অর্থসহ অফিস চলাকালীন সময়ে আটক করা হয়।
নির্বাচন কার্যালয়ের অফিস সহায়কের কোটি টাকার ৫ তলা বাড়ি

নির্বাচন কার্যালয়ের অফিস সহায়কের কোটি টাকার ৫ তলা বাড়ি


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক ঃঃ- বাঁশখালী থানার পাশ দিয়ে একটি সড়ক চলে গেছে পৌর সদরের আশকরিয়া পাড়ার দিকে। সড়ক ধরে যেতে যেতে ‘জয়নালের বাড়ি কোনটি’ জানতে চাইতেই সবাই পথ দেখিয়ে দিলেন। জয়নাল আবেদীন এ পাড়ায় বেশ পরিচিত নাম। গ্রামীণ এই পাড়ার বেশির ভাগ ঘর কাঁচা বেড়ার। দু-একটি দোতলা বা তিনতলা পাকা ভবন রয়েছে। সবকিছুকে ছাপিয়ে গেছে এ পাড়ায় জয়নালের নির্মাণাধীন পাঁচতলা ভবনটি। চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানা নির্বাচন কার্যালয়ের অফিস সহায়ক জয়নাল আবেদীন (৩৫) কোটি টাকার এই বাড়ি নির্মাণে হাত দিয়েই এলাকায় খুব পরিচিতি লাভ করেছেন। তাঁর গ্রেপ্তারের খবরও গ্রামের কমবেশি সবাই জানেন। নির্বাচন কার্যালয়ের ল্যাপটপ ব্যবহার করে রোহিঙ্গাদের ভোটার করার অভিযোগে গত রোববার রাতে গ্রেপ্তার হন তিনি। তাঁর বন্ধুর কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ২০১৫ সালে নির্বাচন কার্যালয়ের খোয়া যাওয়া একটি ল্যাপটপ। গতকাল মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশন স
জাবি উপাচার্যের বাস ভবনে ১২ এসি ১৩ কর্মচারী-গাড়ির তেল খরচ ৩৭ লাখ!

জাবি উপাচার্যের বাস ভবনে ১২ এসি ১৩ কর্মচারী-গাড়ির তেল খরচ ৩৭ লাখ!


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্কঃঃ-  সম্প্রতি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নয়ন প্রকল্প তথা মাস্টারপ্ল্যান অনুযায়ী নতুন ভবন নির্মাণসহ অন্যান্য কাজের জন্য ১৪৪৫ কোটি ৩৬ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। সেই টাকা থেকে ঈদ সালামি বাবদ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগকে ১ কোটি টাকা দিয়েছেন বলে দাবি করছেন শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন। বিশ্ববিদ্যালয়টির ভেতরে বাহিরে এখন জনগণের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে জাবি ইস্যু। সেই ইস্যুকে আরও উত্তপ্ত করেছে উপাচার্যের নিয়মবহির্ভূত কর্মকাণ্ড। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বেশ সৌখিন ও জাঁকজমকপূর্ণ জীবনযাপন করে আসছেন বলে জানা গেছে। তাই নিয়মের তোয়াক্কা না করে নিজের ইচ্ছামতো চলার অভিযোগ ওঠেছে জাবির এই উপাচার্যের বিরুদ্ধে। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মানুয়ায়ী, একজন উপাচার্যের জন্য একটি গাড়ি বরাদ্দ রয়েছে। কিন্তু ক্ষমতায় আসার পরপরই দেশের প্রথম এই নারী উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪টি গাড়ি ব্যব
পাঁচটি সাইনবোর্ড সাড়ে ২৭ লাখ, সিল ও স্ট্যাম্প ব্যয় ৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা!

পাঁচটি সাইনবোর্ড সাড়ে ২৭ লাখ, সিল ও স্ট্যাম্প ব্যয় ৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা!


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
স্টাফ রিপোর্টারঃ- বিভিন্ন প্রকল্পের ব্যয়ের হিসাব দেখে দেশের জনগণের চোখ কপালে উঠার উপক্রম! মেঘা প্রকল্পের সাথে দুর্নীতির মহা যজ্ঞ পাল্লা দিয়ে চলছে। লাগামহীন লুটপাটেরই যেন আয়োজন। নদী স্ট্যাম্প ও সিল বাবদ খরচ ৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা। আর এই খরচ প্রস্তাব করা হয়েছে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের সন্দ্বীপ চ্যানেলের ভাঙনরোধে ৪.৪ কিলোমিটার তীর সংরক্ষণ প্রকল্পে। উন্নয়ন প্রকল্পে মন্ত্রণালয়গুলোর খরচের প্রস্তাবনায় কোনো ধরনের লাগাম নেই। ব্যয়ের মাত্রা বছর অতিক্রম করলেই বৃদ্ধি পায়। প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির (পিইসি) সুপারিশও বেশির ভাগ ক্ষেত্রে পরিপালন করা হচ্ছে না। কোনো কোনো খাতের ব্যয় অযৌক্তিক হিসেবে বাদ দেয়ার জন্য বলা হলেও তা কিছু কমিয়ে বহাল রেখে আবারো প্রস্তাব করা হয়। আবার বিভিন্ন চাপে প্রকল্প প্রস্তাবনা অনুমোদনের সুপারিশও করতে হয় বলে পরিকল্পনা কমিশন সূত্রে জানা গেছে। পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে সম্প্রতি
৯ কোটি টাকায় মৃতকে জীবিত করলেন সাব-রেজিস্ট্রার

৯ কোটি টাকায় মৃতকে জীবিত করলেন সাব-রেজিস্ট্রার


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:- জমির কাগজ জালিয়াতির মাধ্যমে নয় কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার তৎকালীন সাব-রেজিস্ট্রার জাহাঙ্গীর আলম। এ ঘটনায় তার সঙ্গে আরও দুজন জড়িত। এমনই প্রমাণ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। যে কারণে সাব-রেজিস্ট্রার জাহাঙ্গীর আলমসহ তিনজনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমনকারী এই কমিশনটি। আর বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলাটি করেছেন দুদকের ময়মনসিংহ সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক সাধন সূত্র ধর। এদিকে এরই মধ্যে সাব-রেজিস্ট্রার জাহাঙ্গীর আলম এক মাস আগে ভালুকা থেকে যশোরের ঝিনাইদহ সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে বদলি হয়েছেন। দুদকের মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, ভালুকার সাব-রেজিস্ট্রার জাহাঙ্গীর আলম, অফিসের দলিল লেখক সিরাজুল ইসলাম সুজন এবং স্থানীয় আবু রাসেল চৌধুরীর যোগসাজশে প্রতারণা করে নয় কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। জালিয়াতির মাধ্যমে ভালুকা
পেটে গজ রেখে সেলাই করে দেয়া রোগীর মৃত্যু, ক্লিনিক ভাঙচুর

পেটে গজ রেখে সেলাই করে দেয়া রোগীর মৃত্যু, ক্লিনিক ভাঙচুর


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক :-   নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ভুল চিকিৎসায় আমান্তিকা নামে এক রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় ক্লিনিক ভাঙচুর করেছে বিক্ষুব্ধ রোগীর স্বজনরা। সোমবার দুপুরে উপজেলার মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকায় সোনারগাঁ জেনারেল হাসপাতাল নামের একটি ক্লিনিকে এ ঘটনা ঘটে। এসময় বিক্ষুদ্ধ স্বজনরা ক্লিনিকের পরীক্ষাগার, মেশিনপত্র, গ্লাস, দরজা জানালাসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। ঘটনার পর ওই ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে বিক্ষুদ্ধ স্বজনদের বিচারের আশ্বাসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী মো. পিন্টু মিয়া বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়েরর প্রস্তুতি চলছে। সোনারগাঁ জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে কাউকে পাওয়া যায়নি। জানা যায়, উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বড় সাদিপুর গ্রামের পিন্টু মিয়ার স্ত্রী আমান্তিকা গর্ভবতী হলে সিজার নিয়মিত চিকিৎসা
বালিশকান্ডকে হার মানিয়ে বিস্ময়কর দুর্নীতি ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে, একটি পর্দার দাম সাড়ে ৩৭ লাখ!

বালিশকান্ডকে হার মানিয়ে বিস্ময়কর দুর্নীতি ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে, একটি পর্দার দাম সাড়ে ৩৭ লাখ!


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্কঃ- আলোচিত রূপপুর বালিশকান্ডকে হার মানিয়ে এবার বিস্ময়কর দুর্নীতির নতুন নজির গড়েছে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। যার মধ্যে একজন রোগীকে আড়াল করার পর্দা ক্রয় করতে দাম দেখিয়েছে সাড়ে ৩৭ লাখ টাকা। এ অভিযোগ ওঠে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ২০১২-২০১৬ সাল পর্যন্ত উন্নয়ন প্রকল্পের নামে থাকা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স অনিক ট্রেডার্সের বিরুদ্ধে। তবে এর সাথে সে সময়কালে হাসপাতালের শীর্ষ কর্মকর্তারাও সম্পৃক্ত ছিলেন বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। ইতিমধ্যে হাসপাতালটির যন্ত্র ও সরঞ্জাম কেনাকাটাতেই অন্তত ৪১ কোটি টাকার দুর্নীতির প্রাথমিকভাবে প্রমাণ পেয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। পরে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে দুদককে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। সম্প্রতি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল নাগরিক টিভির এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে। জানা যায়, দুর্নীতির অভিযোগে ঠিকাদা
বক্তৃতার নামে সিইসি, কমিশনার, সচিবদের পকেটে দুই কোটি

বক্তৃতার নামে সিইসি, কমিশনার, সচিবদের পকেটে দুই কোটি


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক :- প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও কমিশনারদের মতো সাংবিধানিক পদের পদাধিকারীদের বিরুদ্ধে বক্তৃতা না দিয়ে অর্থ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তাঁদের সঙ্গে আছেন ইসির সচিবসহ পদস্থ কর্মকর্তারা। আর এই অর্থের পরিমাণ একেবারে কম নয়, দুই কোটি টাকার বেশি। বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও এরপরে উপজেলা নির্বাচনে প্রশিক্ষণ উপলক্ষে শুধু ‘বিশেষ বক্তা’ হিসেবে বক্তৃতা দিয়ে তাঁরা এই অর্থ নিয়েছেন। আর এর বাইরে ‘কোর্স উপদেষ্টা’ হিসেবে নির্বাচন কমিশনের তৎকালীন সচিব (বর্তমানে স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব) একাই নিয়েছেন ৪৭ লাখ টাকা। তিনি ‘বিশেষ বক্তা’ হিসেবেও টাকা নিয়েছেন। তবে তা কত জানা যায়নি। নির্বাচন কমিশন (ইসি) সূত্র জানায়, ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনে প্রশিক্ষণের জন্য নির্বাচন কমিশন ৬১ কোটি ২৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছিল। আর উপজেলা নির্বাচনে প্রশিক্ষণের জন্য বরাদ্দ ছিল ৬১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। ইসির ত
error: Content is protected !!
JS security