দূর্নীতি

সাড়ে তিন কোটি টাকার সড়ক এক মাসেই ধানক্ষেত

সাড়ে তিন কোটি টাকার সড়ক এক মাসেই ধানক্ষেত


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
সাড়ে তিন কোটি টাকার সড়ক এক মাসেই ধানক্ষেত! গ্লোবাল ডেস্কঃ-  নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলার হাওরাঞ্চলে তেতুলিয়া-গাগলাজুর জিসি সড়কের নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার এক মাসের মধ্যেই সড়কের বিভিন্ন অংশ ভেঙে গেছে। একটু বৃষ্টিতেই সেখানে কাদা হয়ে ধানক্ষেতের মতো হয়ে গেছে। এ অবস্থায় কাজের মান নিয়ে এলাকাবাসীদের মাঝে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মোহনগঞ্জ-গাগলাজুর ১৬ কিলোমিটার জিসি সড়কের মধ্যে তেতুলিয়া থেকে গাগলাজুর পর্যন্ত ৭ কিলোমিটার রাস্তা ডুবন্ত সড়ক। সড়কের দুপাশেই রয়েছে বড় বড় হাওর। হাওরের একমাত্র বোরো ফসল ঘরে তোলার জন্য কৃষকরা বারবার এ সড়কটি পাকাকরণ ও সংস্কারের জোর দাবি জানিয়ে আসছিল। এ দাবির প্রেক্ষিতে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ প্রায় সাড়ে তিন কোটি টাকা ব্যয়ে সড়কের পাকাকরণ ও সংস্কারের উদ্যোগ গ্রহণ করে। জিসি সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় গত বছর থেকে সড়কটির পাক
আবজালের ছয় চিকিৎসককে জিজ্ঞাসাবাদ করছে- দুদক

আবজালের ছয় চিকিৎসককে জিজ্ঞাসাবাদ করছে- দুদক


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্কঃ-  স্বাস্থ্য অধিদফতরের হিসাবরক্ষক আবজাল হোসেনের দুর্নীতিতে সহযোগিতার অভিযোগে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ডা. রেজাউল করিমসহ ছয় চিকিৎসককে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার (১ এপ্রিল) সকাল ১০টায় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে চলবে দুপুর পর্যন্ত। অন্য যাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তারা হলেন: কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজের কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মায়েনুল, মেডিসিন বিভাগের সহযাগী অধ্যাপক ডা. মো. ফরহাদ হোসেন, সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেন, মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আব্দুল মাজেদ ও হেপাটোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. আবুল বারকাত মুহাম্মদ আদনান। গত ২৪ মার্চ কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ১৩ কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ ১৪ জনকে তলব করে নোটিশ পাঠায় দুদক। পর্যায়ক্রমে তাদের ১, ২ ও ৩ এপ্রিল সেগুনবাগিচায় দ
সাড়ে পাঁচ কেজি স্বর্ণসহ চীনা নাগরিক – আটক

সাড়ে পাঁচ কেজি স্বর্ণসহ চীনা নাগরিক – আটক


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্কঃ-  শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিপুল পরিমাণ স্বর্ণসহ এক চীনা নাগরিককে আটক করেছে ঢাকা কাস্টম হাউস। এসময় তার কাছ থেকে সাড়ে পাঁচ কেজিরও বেশি সোনা উদ্ধার করা হয়। আটক চীনা যাত্রীর নাম নাম রুয়ান জিনফেং (৪৩)। শনিবার (২৪ মার্চ) সকালে দুবাই থেকে আসা এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ওই চীনা নাগরিককে আটক করে তার কাছ থেকে মোট ৪৮টি স্বর্ণবার উদ্ধার করা হয়। জব্দ করা সোনার পরিমাণ ৫ দশমিক ৫৬ কেজি। এর আনুমানিক বাজারমূল্য ২ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। আটক ওই যাত্রীকে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা কাস্টমস হাউসের উপ-পরিচালক অথেলো চৌধুরী।
ময়লার ঝুঁড়ি থেকে ৪৮টি স্বর্ণের বার – উদ্ধার

ময়লার ঝুঁড়ি থেকে ৪৮টি স্বর্ণের বার – উদ্ধার


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক:-  হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ময়লার ঝুঁড়িতে মিলেছে ৪৮টি স্বর্ণের বার। শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের একটি দল স্বর্ণের বারগুলো উদ্ধার করে। শুল্ক গোয়েন্দারা জানান, ৭ নম্বর বোর্ডিং ব্রিজের পাশে জেন্টস ওয়াশরুমের আবর্জনা ফেলার ঝুড়ির ভেতরে সাদা স্কচটেপে মোড়ানো অবস্থায় ৯টি প্যাকেটে ৪৮টি স্বর্ণবার উদ্ধার করা হয়েছে। যার ওজন ১৫ কেজি ৭৩৮ গ্রাম। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. শহীদুল ইসলাম জানান, স্বর্ণের একটি বড় চালান আসার গোপন সংবাদে শুল্ক গোয়েন্দা দল ৭ নং বোর্ডিং ব্রিজের আশপাশে সতর্ক নজরদারি রাখে। পরে ৭ নং বোর্ডিং ব্রিজের জেন্টস পুরুষ ওয়াশ রুমের আবর্জনা ফেলার ঝুড়িতে মালিকবিহীন পরিত্যক্ত অবস্থায় সাদা স্কচ টেপে মোড়ানো ৯টি প্যাকেট উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে কাস্টমস হাউজের ব্যাগেজ কাউন্টারে এনে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে স
রাজধানীতে বাসার ভেতর কোটি টাকার সরকারি ঔষধ জব্দ

রাজধানীতে বাসার ভেতর কোটি টাকার সরকারি ঔষধ জব্দ


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্কঃ-  ঢাকার মোহাম্মদপুরে পৃথক বাসার ভেতরে তিনটি গুদামঘরের সন্ধান পেয়েছে র‌্যাব। সেখানে বিনামূল্যে বিতরণের জন্য সরকারের সরবরাহ করা বিপুল পরিমাণ ঔষধ রাখা হয়েছে। সরকারি হাসপাতালে রোগীদের মধ্যে বিতরণ না করে বিক্রির জন্য এগুলো গুদাম বানিয়ে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল বলে র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে র‌্যাব-২ অভিযান শুরু করে। রাত সাড়ে ৮টায় এ অভিযান শেষ হয় । র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, মোহাম্মদপুরের কলেজ গেট এলাকার পৃথক বাসায় অবৈধ তিনটি গুদামঘর পাওয়া গেছে। এসব ঘরে অবৈধভাবে সরকারি ঔষধ মজুদ করা হচ্ছিল। এ ছাড়া একই এলাকায় দুটি বাসায় ও চারটি ফার্মেসিতেও সরকারি ঔষধ পাওয়া গেছে। পাশাপাশি এসব গুদামঘর ও বাসায় বিভিন্ন ধরনের নকল ঔষধ মিলেছে। ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, বিনামূল্যে বিতরণের এসব ঔষধ  হাসপাতাল থেকে বাইরে গেল কিভাবে তা র‌্যাব তা তদন্ত
সুনামগঞ্জে হাওরে দুর্নীতি: ৩৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

সুনামগঞ্জে হাওরে দুর্নীতি: ৩৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
                               ফাইল ছবি সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:- সুনামগঞ্জের হাওরে বাঁধ নির্মাণে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে করা মামলায় ৩৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দিচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অভিযোগপত্রে পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) প্রকৌশলী, কর্মকর্তা, ফসল রক্ষা বাঁধের কাজের ঠিকাদারদের আসামি করা হয়েছে। তবে অভিযোগে পাউবোর ৩ প্রকৌশলী, ৩ সেকশন কর্মকর্তা ও ২৮ জন ঠিকাদার বাদ পড়েছেন। রোববার কমিশনের সভায় অভিযোগপত্র অনুমোদন দেওয়া হয়। শিগগিরই বিচারিক আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন দুদকের উপপরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য। দুদক সূত্র জানায়, ২০১৭ সালের ২ জুলাই সুনামগঞ্জ সদর থানায় মামলা করেন দুদকের সহকারী পরিচালক ফারুক আহমেদ। মামলায় আসামি করা হয় ৬১ জনকে। একই কর্মকর্তা তদন্ত শেষে এজাহারভুক্ত ৩৪ জনকে আসামির তালিকা থেকে বাদ দিয়ে নতুন ৬ জনকে অন্তর্ভুক্ত করে কমিশনে তদন্ত প্রতিব
১৫ বছরে ১৬টি জাহাজের মালিক হাসপাতাল- কর্মচারী

১৫ বছরে ১৬টি জাহাজের মালিক হাসপাতাল- কর্মচারী


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
                                        গ্লোবাল ডেস্কঃ-   রাজধানীর মহাখালী বক্ষব্যাধি হাসপাতালের তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী (হিসাবরক্ষক) লিয়াকত হোসেন জুয়েল ও তার স্ত্রী লাকি আক্তার চৌধুরীর নামে রয়েছে শত কোটি টাকার সম্পদ। মাত্র ১৫ বছরে সম্পদের পাহাড় গড়েছেন তিনি। ২০০৩ সালে স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে বক্ষব্যাধি হাসপাতালের হিসাব সহকারী পদে চাকরিতে যোগদান করেন লিয়াকত হোসেন। সে হিসাবে গত ১৫ বছর ধরে চাকরি করছেন তিনি। এই ১৫ বছরেই অঢেল সম্পদের মালিক হয়ে যান তিনি। বিষয়টি জেনে গত ৩১ জানুয়ারি সম্পদের হিসাবের বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। জানা যায়, লিয়াকত হোসেনের বাড়ি ফরিদপুরে। জেলা সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে রয়েছে তার বিপুল পরিমাণ সম্পদ। শহরের টেপাখোলার লক্ষ্মীপুর এলাকায় স্ত্রী লাকির নামে রয়েছে একটি আলিশান বাড়ি। টেপাখোলার ফরিদাবাদে ‘মাহি মাহাদ ভিলা’ নামে রয়েছে আরেকটি দৃষ্টিন
আমি দুদক কমিশনার বলছি-বাঁচতে চাইলে দেখা করুন

আমি দুদক কমিশনার বলছি-বাঁচতে চাইলে দেখা করুন


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্কঃ- ‘হ্যালো, আমি দুদকের কমিশনার বলছি। আপনার বিরুদ্ধে কিছু ফাইল জমা পড়েছে। দুর্নীতির অভিযোগে মামলা রুজুর পর সেটার তদন্ত হচ্ছে। বাঁচতে চাইলে দেখা করুন। এভাবেই সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের দুর্নীতিগ্রস্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মোবাইলফোনে দুদকের কমিশনার, পরিচালক ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা পরিচয়ে হুমকি-ধমকি দিয়ে তটস্থ রাখছে একটি অপরাধী চক্র। দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ফাঁসানোর হুমকি দিয়ে এ পর্যন্ত পাঁচ শতাধিক দুর্নীতিগ্রস্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীর কাছ থেকে প্রায় ৪০ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে চক্রটি। আর এ টাকা লেনদেন হয়েছে কখনো বিকাশে কখনো নগদে। গত ২৭ জানুয়ারি দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কার্যালয় থেকে র‌্যাব ডিজি বরাবর পত্রযোগে দুদকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার পরিচয়ে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দফতরে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ফোন করে দুর্নীতির মামলা রুজু ও তদন্ত চলছে- মর্মে ভয় দেখিয়ে আর্থিক প্রতারণার অভিয
সিলেট স্বাস্থ্য অধিদফতরের ৪ কর্মকর্তা-দুদকের নজরে

সিলেট স্বাস্থ্য অধিদফতরের ৪ কর্মকর্তা-দুদকের নজরে


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
সিলেট প্রতিনিধিঃ- দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার করার অভিযোগে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অভিযুক্ত ২৩ কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চিঠি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এর মধ্যে রয়েছেন সিলেটের স্বাস্থ্য অধিদফতরের চার কর্মকর্তা-কর্মচারীও। জানা গেছে, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে দুদক থেকে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিবের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। চিঠিতে দুদকের ভারপ্রাপ্ত সচিব স্বাক্ষর করেছেন। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়াসহ দুর্নীতি প্রতিরোধকল্পে বর্তমান কর্মস্থল থেকে তাদেরকে জরুরি ভিত্তিতে বদলির ব্যবস্থা নিতেও বলা হয়েছে। অভিযুক্ত ২৩ জনের মধ্যে সিলেটের স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালকের কার্যালয়ের প্রধান সহকারী নুরুল হক, প্রশাসনিক কমকর্তা গাউস আহমেদ, উচ্চমান সহকারী আমান আহমেদ ও অফিস সহকারী-কাম কম্পিউটার অপারেটর নেছার আহমেদ
কর্মসংস্থান ব্যাংকে বেকারদের ঋনের তালিকায় আছেন জনপ্রতিনিধি ও স্বাবলম্বী ব্যক্তি

কর্মসংস্থান ব্যাংকে বেকারদের ঋনের তালিকায় আছেন জনপ্রতিনিধি ও স্বাবলম্বী ব্যক্তি


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ- মৌলভীবাজারের ৭টি উপজেলায় রয়েছে শিক্ষিত ও অর্ধ-শিক্ষিত বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের অপার সম্ভাবনা। কিন্তু অর্থের অভাবে বেকার যুবকরা। কর্মসংস্থান তৈরী করতে হিমসিম খাচ্ছেন তারা। স্বল্প সুদে ঋণ নিয়ে বেকারদের কর্মসংস্থানের জন্য জেলায় কর্মসংস্থান ব্যাংক থাকলেও এর সুফল ভোগ করতে পাচ্ছেননা জেলার উপজেলার প্রকৃত বেকার যুবকরা। বরং কর্মসংস্থান ব্যাংকের সুবিধা নিচ্ছে সমাজের স্বাবলম্বী কিছু ব্যবসায়ী এবং কতিপয় জনপ্রতিনিধি। এনিয়ে বেকার যুবকদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। জেলা কর্মসংস্থান ব্যাংক সূত্রে জানা যায়, রাজনগর উপজেলার পাঁচগাঁও ইউনিয়নের ইউপি সদস্য তারেক রহমান কর্ণেলের নাম ঋণ খেলাপির তালিকায় রয়েছে। অথচ এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ওই ইউপি সদস্য স্বাবলম্বি। এবিষয়ে ইউপি সদস্য তারেক রহমান কর্ণেল কর্মসংস্থান ব্যাংক থেকে ঋণ তুলার বিষয়টি স্বীকার করে জানান-‘কত টাকা ঋণ এনেছি সঠিক মনে
error: Content is protected !!
JS security