দূর্নীতি

শিল্পকলার ডিজির কাছে ৩ বছরের হিসাব চেয়েছে দুদক

শিল্পকলার ডিজির কাছে ৩ বছরের হিসাব চেয়েছে দুদক

গ্লোবাল সিলেট ডেস্ক:- আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ তদন্তাধীন থাকার মধ্যে শিল্পকলা একাডেমির ডিজি লিয়াকত আলী লাকীর কাছে প্রতিষ্ঠানটির তিন বছরের হিসাব চেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। ২৪ মার্চ লাকীকে দুদকের পাঠানো এক চিঠিতে ২০১৯ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত শিল্পকলা একাডেমির যাবতীয় হিসাব এবং এই তিন বছরে নিয়োগ পাওয়া ৪৬ ব্যক্তির যাবতীয় তথ্য দিতে বলা হয়েছে। দুদকের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ইব্রাহিমের পাঠানো ওই নোটিশে লাকীর কাছে ঘুষ গ্রহণ, ক্ষমতার অপব্যবহার, কর্মকর্তা নিয়োগে অনিয়মসহ বিভিন্ন দুর্নীতি, ভুয়া বিল ভাউচারে মাধ্যমে শত শত কোটি টাকা আত্মসাৎসহ বিপুল পরিমাণ সম্পদ অর্জন ও বিদেশে পাচারের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়েছে। জানা যায়, ২০১৭ সালে পৃথক তিনটি সার্কুলারের মাধ্যমে ৪৬ জনকে নিয়োগ দেওয়া হয়। এসব নিয়োগের ক্ষেত্রে লিখিত পরীক্ষায় পাস না করেও পূর্বনির্ধারিত প্রার্থীদের টাকার বিনিময়ে নিয়োগ প্রদান করা হয়। এছাড়

সিলেটে কারখানার নাট-বল্টু্র দাম সাড়ে ১৪কোটি টাকা

গ্লোবাল ডেস্ক :- কারখানার জন্য নাট-বল্টু আনা হয়েছে আমেরিকা থেকে। সেই নাট-বল্টু আবার সরবরাহ করেছে মালয়েশিয়ান কোম্পানি। দাম কত জানেন? লোহা বা স্টিলের এক কেজি নাটের দাম ১ কোটি টাকা। বল্টুর দাম তার অর্ধেক, প্রতি কেজি ৫০ লাখ টাকা। কেনাকাটার এই মচ্ছব হয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত সার কারখানা সিলেটের শাহজালাল ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেডে (এসএফসিএল)। এই তালিকায় আরও আছে এক্সপেন্ডার হুইল। রাবার ও লোহায় তৈরি ছোট আকারের এই ঘূর্ণমান চাকার কেজি পড়েছে ১ কোটি টাকার বেশি। আধা কেজি ওজনের একটি লোহার স্প্রিংয়ের দাম ১৬ লাখ টাকা। এ রকম অস্বাভাবিক দাম দিতে গিয়ে ২৪৩ কেজি ওজনের এই চালানের খরচ পড়েছে সাড়ে ১৪ কোটি টাকা। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি চালানটি চট্টগ্রাম বন্দর থেকে খালাস নেওয়া হয়। কারখানার জন্য কেন আমেরিকান নাট-বল্টু কিনতে হবে? জানতে চাইলে এসএফসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ওমর ফারুক বলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা নেই। বাণ
শাবি উপাচার্য ফরিদের বিরুদ্ধে যত অভিযোগ

শাবি উপাচার্য ফরিদের বিরুদ্ধে যত অভিযোগ

  যা ছিল এক হল প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগের আন্দোলন, তা এখন রূপ নিয়েছে উপাচার্যবিরোধী আন্দোলনে। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের এখন একটাই দাবি, উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদের পদত্যাগ। বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম সিরাজুন্নেসা হলের প্রাধ্যক্ষ জাফরিন আহমদ লিজার পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর গত রোববার হামলা চালায় পুলিশ। তখন দুই পক্ষে সংঘর্ষ বাধে। এরপর থেকেই এ আন্দোলনের দাবি হয়ে ওঠে উপাচার্যের পদত্যাগ। সিরাজুন্নেসা হলের ছাত্রীদের সঙ্গে অন্য শিক্ষার্থীরাও তখন যুক্ত হন এই আন্দোলনে। এমনকি এর আগে ছাত্রীদের আন্দোলনে উপাচার্যের পক্ষে অবস্থান নেয়া ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরাও এখন উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে সরব। পুলিশের হামলার ঘটনায় বিস্ফোরণ ঘটলেও উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ দীর্ঘদিনের বলে জানা গেছে। তার বিরুদ্
করোনায় ধনীদের সম্পদ দিগুন হচ্ছে

করোনায় ধনীদের সম্পদ দিগুন হচ্ছে

  বাণিজ্য ডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারিকালে বিশ্বে শীর্ষ ১০ ধনীর সম্পদ বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে। এর বিপরীতে সারাবিশ্বে বেড়েছে দারিদ্র্য ও অসমতা। সোমবার এ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা অক্সফাম। খবর দ্য গার্ডিয়ান ও বিবিসির। যুক্তরাষ্ট্রের ফোর্বস সাময়িকী সম্পদশালী ব্যক্তিদের যে তালিকা করেছে, সেখানে শীর্ষ ধনীর মধ্যে রয়েছেন— টেসলা ও স্পেসেক্সের প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্ক, আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস, গুগলের প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজ ও সের্গেই ব্রিন, ফেসবুকের মার্ক জাকারবার্গ, মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস, মাইক্রোসফটের সাবেক প্রধান নির্বাহী স্টিভ বলমার, ওরাকলের সাবেক প্রধান নির্বাহী ল্যারি এলিসন, মার্কিন ব্যবসায়ী ওয়ারেন বাফেট, ফ্রান্সের ফ্যাশন জায়ান্ট এলভিএমএইচের প্রধান বার্নার্ড আর্নল্ট। অক্সফামের সংবাদ সম্মেলনে আরও বলা হয়েছে, এই ধনীদের ৭০ হাজার কোটি মার্কিন ডলারে
শাল্লার ইউএনও স্ট্যান্ডরিলিজ

শাল্লার ইউএনও স্ট্যান্ডরিলিজ

  শাল্লা প্রতিনিধি:: মুজিবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্পে দুর্নীতি ও হাওর রক্ষা বাঁধের পিআইসি তালিকা গঠনে অনিয়মের অভিযোগে শাল্লা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আল মুক্তাদির হোসেনকে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) জেলা প্রশাসকের আদেশে এই রিলিজ করা হয়। বর্তমানে দিরাই উপজেলা ভূমি অফিসের সহকারি কমিশনার অরুপ রতন সিংকে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর হোসেন। জানা যায়, ২০২১ সালের মার্চ মাসে মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্পে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠে। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক দফায় দফায় তদন্ত করেন। তদন্তে দুর্নীতির প্রমানও মিলে। এই দুর্নীতি ঢাকতে না ঢাকতেই আবারো উঠে বাজার ভিটি বন্দোবস্তর নামে অতিরিক্ত টাকা উত্তোলনের অভিযোগ। এরপরও থামেনি দুর্নীতির মহোৎসব। গ
‘প্রধানমন্ত্রী, বিমানের মতিঝিল কার্যালয়ে অভিযান চালান’

‘প্রধানমন্ত্রী, বিমানের মতিঝিল কার্যালয়ে অভিযান চালান’

  ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে যাওয়া-আসার টিকিটের দাম মূলত ৬৭ হাজার টাকা। এখন ৮৫ হাজার থেকে ৯০ হাজার টাকায়ও বিমানের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে না। বিমানের অসাধু কর্মকর্তা ও কিছু ট্রাভেল এজেন্সির মালিকের সমন্বয়ে গড়ে ওঠা সিন্ডিকেট প্রতি টিকিটে ২০ হাজার টাকার বেশি হাতিয়ে নিচ্ছে। মাসে কোটি কোটি টাকা অতিরিক্ত মুনাফা করে যাত্রীদের পেটে লাথি মারছে ওই ‘সিন্ডিকেট’। শনিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর–রুনি মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেছে বাংলাদেশ হজযাত্রী ও হাজি কল্যাণ পরিষদ। বেশকিছু দিন ধরে বিমানের টিকিটের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছিল যাত্রীদের। এ নিয়ে যাত্রীদের ক্ষোভ প্রকাশ করতেও দেখা গেছে। এরমধ্যেই বাংলাদেশ হজযাত্রী ও হাজি কল্যাণ পরিষদ সংবাদ সম্মেলন করে একই অভিযোগ তুলেছে। এর পেছনে জড়িতদের নাম প্রকাশ না করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার
সিলেটে র‍্যাবের অভিযানে বন্ধ হলো ভোজনবাড়ী  রেস্টুরেন্ট

সিলেটে র‍্যাবের অভিযানে বন্ধ হলো ভোজনবাড়ী রেস্টুরেন্ট

  সিলেটে মানহীন খাদ্য ও পচা বাসি খাবারসহ  নানা অনিয়মের কারণে ভোজবাড়ি রেস্টুরেন্টটি সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ করে দিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব) -৯। মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকা থেকে আগত র‍্যাবের বিশেষ ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসুর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে রেস্টুরেন্টটি বন্ধ করা হয়। এর আগে বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে নগরীর জিন্দাবাজার ভোজনভাড়ি রেস্টুরেন্টে অভিযান শুরু করে র‍্যাব-৯। এসময় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, বিএসটিআইসহ সংশ্লিষ্ট সকল কর্তৃপক্ষ উপস্থিত ছিলেন। অভিযান শেষে বেলা ২ টার দিকে ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, এখানে অভিযানে এসে আমরা খাদ্যের মানে ব্যাপক অনিয়ম পেয়েছি। তাছাড়া ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাস থেকে তাদের ট্রেড লাইসেন্স নবায়ন নেই, খাবার পরিবেশনের বৈধ কাগজপত্র নেই। সকল কিছু মিলে আমরা সাময়িক সময়ের জন্য রেস্টুরেন্টটি বন
‘রেট অনুযায়ী’ ঘুস দিতে না পারায় রেজিস্ট্রি হয়নি প্রতিমন্ত্রীর জমি

‘রেট অনুযায়ী’ ঘুস দিতে না পারায় রেজিস্ট্রি হয়নি প্রতিমন্ত্রীর জমি

  রেট অনুযায়ী’ ঘুসের টাকা দিতে না পারায় জমি রেজিস্ট্রি করতে পারেননি বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য। বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে যশোরের মণিরামপুরে এক সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, কখনও মিথ্যা তথ্য দেওয়া উচিত নয়। আমরা যেখানে কথা বলছি এখানে একটি অফিস দেখছি। সেখানে লেখা আছে, আমি এবং আমার অফিস দুর্নীতিমুক্ত। এ তথ্য কি সঠিক? স্বপন ভট্টাচার্য বলেন, সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে টাকা ছাড়া কোনো কাজ হয় না। আমি গত সপ্তাহে একটি জমি রেজিস্ট্রি করতে গেলাম। সেখানে ‘রেট অনুযায়ী’ ঘুসের টাকা দিতে না পারায় জমি রেজিস্ট্রি হয়নি। ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড রিসোর্সেস ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভের (এমআরডিআই) খুলনা অঞ্চলের সমন্বয়ক মবিনুল ইসলাম মবিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে মণিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ জাকির হাসান, উপজেলা ভাইস চেয়
১৩০ টাকার কম্পিউটার অপারেটর ৪৬০ কোটি টাকার মালিক !

১৩০ টাকার কম্পিউটার অপারেটর ৪৬০ কোটি টাকার মালিক !

  ঢাকা: ২০০১ সালে টেকনাফ স্থলবন্দরে চুক্তিভিত্তিক দৈনিক ১৩০ টাকা বেতনে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে চাকরি নেন নুরুল ইসলাম (৪১)। ওই চাকরি থেকে শুরু করলেও সময়ের পরিক্রমায় ৪৬০ কোটি টাকার সম্পদের মালিক বনে যান তিনি। চাকরির সুবাদে বন্দরের সংশ্লিষ্ট মানুষের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে উঠে নুরুল ইসলামের। একপর্যায়ে গড়ে তোলেন সিন্ডিকেট। দালালি, পণ্য খালাস, পণ্যের আড়ালে অবৈধ মালামাল এনে অল্প সময়েই কোটি কোটি টাকার মালিক বনে যান এ কম্পিউটার অপারেটর। দালালিসহ অবৈধ পন্থায় অর্জিত অর্থের মাধ্যমে ইতোমধ্যে ঢাকায় তার ছয়টি বাড়ি ও ১৩টি প্লটের মালিক তিনি। এছাড়া তার সাভার, টেকনাফ, সেন্টমার্টিন, ভোলাসহ বিভিন্ন জায়গায় নামে-বেনামে সর্বমোট ৩৭টি প্লট-বাগানবাড়ি-বাড়ি রয়েছে। অবৈধভাবে তার অর্জিত সম্পদের আনুমানিক মূল্য প্রায় ৪৬০ কোটি টাকা। সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকায় অভ
সিলেট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এহসান গ্রুপ

সিলেট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এহসান গ্রুপ

ধর্মীয় আবেগ-অনুভূতিকে কাজে লাগিয়ে এমএলএম কোম্পানির ফাঁদ তৈরি করে ধর্মপ্রাণ সাধারণ মুসলমান, ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যুক্ত ব্যক্তি, ইমাম শ্রেণি ও অন্যান্যদের টার্গেট করে ১৭ হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন এহসান গ্রুপের চেয়ারম্যান রাগীব আহসান। তার ফাঁদ থেকে রেহাই পাননি সিলেটের মানুষও। এ অঞ্চলের লোকজনের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি। রাগীব আহসান সিলেটসহ সারাদেশে শরিয়তসম্মত সুদবিহীন বিনিয়োগের বিষয়টি ব্যাপক প্রচারণা করে গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতেন। এছাড়া তিনি ওয়াজ মাহফিল আয়োজনের নামে ব্যবসায়িক প্রচার-প্রচারণাও চালাতেন। এসব প্রতারণা ও জালিয়াতির অভিযোগে বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) এহসান গ্রুপের চেয়ারম্যান রাগীব আহসান (৪১) ও তার সহযোগী মো. আবুল বাশার খানকে (৩৭) গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১০। রাগীব ১৭টি প্রতিষ্ঠানের নামে সিলেটসহ সারাদেশে প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করেন। তার ব
JS security