আলিয়া মাদরাসায় শেখ হাসিনার জনসভা সফল করুন : ড. মোমেন

সিলেট প্রতিনিধিঃ-  সিলেট-১ আসনে মহাজোট মনোনীত প্রার্থী ড. এ কে আব্দুল মোমেন শান্তি ও সমৃদ্ধির জন্য আবারও নৌকায় ভোট দেয়ার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বে এখন রোল মডেল। বৃহস্পতিবার সিলেট নগর ও সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ ও নির্বাচনী সভায় ড. মোমেন এসব কথা বলেন। মোমেন বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সিলেটের ঐতিহাসিক আলিয়া মাদরাসা মাঠে আয়োজিত জনসভায় যোগ দিতে বঙ্গবন্ধুকন্যা আগামী ২২ ডিসেম্বর সিলেট আসছেন। নৌকার পক্ষে গণজোয়ার তুলে শেখ হাসিনার জনসভাকে সফল করুন।তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ যখন রাষ্ট্র পরিচালনায় থাকে, তখন পুরো দেশে শান্তি বিরাজ করে। কোথাও হানাহানি, বোমাবাজি, জঙ্গিবাদ এবং সন্ত্রাস থাকে না। দেশ শান্তি ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যায়।শান্তির সুবাসে মহান মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা, উন্নয়ন ও অগ্রগতির প্রতীক নৌকার পাল উড়ছে উল্লেখ করে মোমেন বলেন, সবার ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা ও সমর্থনে আগামী নির্বাচনে নৌকা বিজয়ী হবে। নৌকা বিজয়ী হলে সমাজ তথা দেশ থেকে দুর্নীতি ও সন্ত্রাস নির্মূল করা হবে।ড. মোমেন বলেন, শেখ হাসিনার আগমন উপলক্ষে সিলেটবাসী আনন্দ-উচ্ছ্বাসে মেতেছে। ইতোমধ্যে শহরে-গ্রামে চারদিকে উঠেছে নৌকার জোয়ার। সেই জোয়ারকে গণজোয়ারে রূপ দিয়ে আগামী শনিবার সিলেট নগরের আলিয়া মাদরাসা মাঠে জননেত্রী শেখ হাসিনার জনসভাকে জনসমুদ্রে রূপ দিতে হবে। দলে দলে জনসভায় যোগ দিয়ে শেখ হাসিনাকে জানিতে দিতে হবে নৌকার পক্ষে সিলেটবাসী ঐক্যবদ্ধ, আগামী নির্বাচনে সিলেটের প্রতিটি আসনে নৌকা জয়ী হবে।ড. মোমেন সিলেট নগরের পাঠানটুলা, লাভলী রোড সংলগ্ন এলাকায় গণসংযোগ, দুপুরে সিলেট সদর উপজেলার কান্দিগাও ইউনিয়নের ঘোপাল পয়েন্ট এলাকায় গণসংযোগ ও স্থানীয় আনোয়ার একাডেমী মাঠে জনসভা, সন্ধ্যায় সাদিপুর নলকট এলাকায় গণসংযোগকালে স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় করেন।এতে উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, নির্বাহী সদস্য সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক সিটি মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুজাত আলী রফিক ও সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক কাউন্সিলর জগদীশ দাস প্রমুখ।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :648 বার!

JS security