ক্রোয়েশিয়া পুলিশের নির্যাতনের শিকার হবিগঞ্জের যুবক

আজিজুল ইসলাম সজীব ॥ ক্রোয়েশিয়ায় পুলিশি নির্যাতনের শিকার হয়ে বসনিয়ার একটি হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন হবিগঞ্জের যুবক রাসেদুজ্জামান রুয়েল (৩০)। তিনি হবিগঞ্জ সদর উপজেলার সুলতান মামদপুর গ্রামের ভিংরাজ মিয়ার পুুত্র। আহত রুয়েলের স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, গত ১২ জুন গ্রিস থেকে অবৈধ পথে ইতালি যাচ্ছিলেন রুয়েল।

পথে স্লোভেনিয়ার একটি জঙ্গল থেকে রুয়েলসহ আরও প্রায় ৪৫ জনকে আটক করে সেখানকার পুলিশ। পরে তাদের হস্তান্তর করা হয় ক্রোয়েশিয়ার পুলিশের কাছে। অন্যরা বাংলাদেশ ও পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিক। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাসেদুজ্জামান রুয়েলের ভাতিজা হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আমির উদ্দিন জিসান।

তিনি আরো জানান, অমানবিক নির্যাতনের পর ক্রোয়েশিয়ার পুলিশ রুয়েলকে বসনিয়ায় ফেরত পাঠিয়েছে। রুয়েলের মুখ এবং মাথায় ছিদ্র হয়ে রক্ত ঝরেছে। বর্তমানে বসনিয়ার রাজধানী সারজেবে জার্মানির এক সংস্থার মাধ্যমে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

রুয়েলের ভাই রাসেদুজ্জামান রকি বলেন, গত ২৭ মে রুয়েল বাড়িতে ফোন করে জানান, ‘ভাই আমি গেমে যাচ্ছি। এরপর থেকে আর কোনো যোগাযোগ হয়নি। পরে আমরা ফেসবুকের মাধ্যমে জানতে পারি আমার ভাই নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এ নির্যাতনের ঘটনায় বিচারের দাবীতে রবিবার (২১ জুন) অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনাতে সহস্রাধিক লোকজন আন্দোলন করেছে। এতে যোগ দেন কয়েকটি সামাজিক সংগঠন। এ সময় সবার হাতে ছিল রুয়েলের ক্ষতবিক্ষত ছবি সংবলিত ব্যানার ও ফেস্টুন।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :287 বার!

JS security