থানার বাথরুমে ভারতীয় নারীর সন্তান প্রসব

গ্লোবাল সিলেট ডেস্কঃ-     তীব্র প্রসব বেদনা নিয়ে ঢাকা রেলওয়ে থানার (জিআরপি) বাথরুমে ঢুকেছিলেন ভারতীয় নারী রোকসানা আক্তার। কিছুক্ষণ পর সেখান থেকে ভেসে আসে শিশুর কান্নার আওয়াজ। পরে বাথরুম তেকে উদ্ধার করা হয় নবজাতক শিশুসহ মাকে। ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার রাতে। মা-ছেলে বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ২১২ নম্বর ওয়ার্ডের ২৪ নম্বর বেডে ভর্তি আছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, মা-ছেলে দু’জনই সুস্থ আছেন।জানা গেছে, রোকসানার বাবার নাম রাসুল এবং মায়ের নাম খারুন্নেসা। তাদের গ্রামের বাড়ি ভারতের মাইসুর জেলার বেঙ্গল থানা এলাকায়।ঢাকা রেলওয়ে থানার ওসি ইয়াসিন ফারুক জানান, সোমবার রাতে নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকার কমলাপুরে আসছিলেন রোকসানা। পথে গেন্ডারিয়া রেলস্টেশনে ব্যথা অনুভব করেন। তার সঙ্গে কেউ ছিল না। কমলাপুর রেলস্টেশনে ট্রেন আসলে ট্রেন কর্তৃপক্ষ রোকসানাকে ঢাকা রেলওয়ে থানা পুলিশের কাছে বুঝিয়ে দেন। থানায় আসার পর রোকসানা বাথরুমে যেতে চান। তিনি বাথরুমে গিয়ে বেশকিছুটা সময় নেন। পরে বাথরুম থেকে পুলিশ সদস্যরা বাচ্চার কান্নার আওয়াজ শুনতে পান। বাথরুমের দরজা খুললে রোকসানাসহ তার সন্তানকে উদ্ধার করা হয় ।ওসি আরো জানান, রোকসানা ভারতীয় নাগরিক। তার স্বামীর নাম আব্দুল। তিনি বাংলাদেশি নাগরিক। রোকসানা বাংলায় কথা বলতে পারেন না। তবে হিন্দিতে কথা বলতে পটু। তার স্বামীর বাড়ি কখনো বলছেন চাঁদপুরে আবার কখনো বলছেন নারায়ণগঞ্জে। ঘটনার দিন স্বামী আব্দুল তাকে নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী ট্রেনে তুলে দেয়। রোকসানা পুরোপুরি সুস্থ হলে বিস্তারিত জানা যাবে। পুলিশের পক্ষ থেকে মা-ছেলের দেখভাল করা হচ্ছে। বর্তমানে মা গাইনি ওয়ার্ডে এবং শিশুটি আছে নবজাতক ইউনিটে ভর্তি আছেন।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :387 বার!

JS security