দিরাইয়ে গ্রাম্য বাজারে ঢিলেঢালা লকডাউন, সেলুনে প্রতিপক্ষের ছুরির আঘাতে এক যুবক খুন

দিরাই প্রতিনিধি:  সরকারের কঠোর লকডাউনের মাঝেও সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের গ্রাম্য বাজারগুলতে কোন লকডাউনের বালাই নেই। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সেলুন দোকানে চুল কাটতে গিয়ে প্রতিপক্ষের ছুরি আঘাতে এক যুবক খুন হয়েছে। সোমবার সকাল ১১ ঘটিকায় উপজেলার ধল বাজারে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যাক্তির নাম লেচু মিয়া(৩২)। তিনি উপজেলার ভাটিধল গ্রামের মৃত আব্দুল হামিদ এর ছেল। তাকে হত্যা করেছে একই গ্রামের আব্দুস শহীদের ছেলে বখাটে জেন্টু । স্হানীয় এলাকা বাসী  জানান, প্রতিদিনের মতো আজও ছিল ধল বাজারে দোকানপাঠ খোলা। লকডাউনের কোন প্রভাব নেই। ক্রেতা-বিক্রেতার স্বাস্হ্য বিধি মানার কোন তোয়াক্কা নেই। রেষ্টুরেন্ট, সেলুন(চুলকাটার)সহ সকল দোকানপাঠে রয়েছে ক্রেতাদের ভীড়। হাওরাঞ্চলের বাজার হওয়ায় এখানে প্রশাসনের কোন নজরধারি নেই। নিহত লেচু মিয়া চুল কাটতে এ বাজারের রাজন পালের সেলুন দোকানে বসেন। এ সময়ে হঠাৎ করে প্রতিপক্ষ জেন্টু ছুরি দিয়ে উপরর্যোপরি তার উপরে হামলা করে।এতে লেচু চিৎকার করে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। আশপাশের লোকজন এসে আহত লেচুকে উদ্ধার করে দিরাই স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। তার অবস্থা গুরতর হওয়ায় এখানকার ডাক্তার তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সিলেটে পৌছার পর ওসমানীর কর্তব্যরত ডাক্তার লেচুকে মৃত ঘোষনা করেন। দিরাই থানার ওসি আজিজুর রহমান খুনের ঘটনাটি নিশ্চিত করে তিনি বলেন এদের মধ্যে বাড়ীর সীমানা বিরুধ ছিল। আসামীকে ধরার চেষ্টা চলছে। লকডাউনের ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদুর রহমান মামুন বলেন, উপজেলা সদরসহ পার্শ্ববর্তী মিলন বাজারে আমরা গিয়েছি। কিন্তু ধলবাজারে আমরা যেতে পারিনি। ধলবাজার কমিটির সভাপতি ব্যবসায়ী মোহিত মিয়া খুনের ঘটনাটি সত্য বলে তিনি বলেন লকডাউনের ব্যাপারে তিনি বাজারের ব্যবসায়ীদের সাবধান করেছেন। তবে প্রশাসনের নজরদারী না থাকায় তিনি পুরোপুরি সফল হোননি।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :225 বার!

JS security