দুর্নীতি প্রতিহত করতে সামাজিক আন্দোলন প্রয়োজন

সৈনিকের ন্যায় আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছে  বিশ্বের আনাচে কানাচে  । সমান্তরাল করে দিচ্ছে ধনী- গরীব,  ছোট – বড় সবাইকে। উন্নত বিশ্ব যেখানে নাস্তানাবুদ অবস্থা উন্নয়ন শীল দেশ হিসাবে করোনার কাছে বাংলাদেশ নগন্য। জাতীয় এই দুঃসময়ে জনগণ তাদের চলমান জীবনের ক্লান্তি লগ্ন পার করছে। কোন দিশা পাচ্ছেনা বিশ্বের বিশেষজ্ঞ দল , নিতে পারছে না করোনাকে পরাজিত করার কোন সঠিক সিদ্ধান্ত। রাত দিন চিন্তা করেও সমাধান পাচ্ছে না কোন দেশের সরকার। নির্দ্বিধায়  বলা যায়  বিশ্ব আজ কঠিন  সময় পার করছে। করোনা ভাইরাস বুঝিয়ে দিচ্ছে সময় আজ মানুষের প্রতিকূলে। বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশেও হানা দিয়েছে করোনা ভাইরাস।

সবমিলিয়ে সরকারি, বেসরকারি , দেশী -বিদেশী ও সমাজের বিত্তশালীরা এগিয়ে আসছে এই সংকটময় মুহূর্ত অতিক্রম করার জন্য। মানুষ স্বপ্ন দেখছে অন্ধকার দূর হয়ে আলোয় আলোকিত হবে। একই সময়ে সমাজের বর্জ্য স্তূপের ন্যায় বেড়ে ওঠা কিছু অপদার্থ দিনের পর দিন তাদের অপকর্ম  বৃদ্ধি করে যাচ্ছে। মানুষের এই সংকটময় মুহূর্ত  উত্তরণের জন্য সরকার যেখানে আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছে, মানুষ রুপি পশুরা দুর্নীতিও চুরির মাধ্যমে তা প্রতিহত করার চেষ্টা করছে। অসহায় মানুষের বেঁচে থাকার স্বপ্ন কে গলাটিপে হত্যা করছে।  চুরি করছে চাল-ডালসহ সহযোগিতার নিত্য প্রয়োজনীয় খাবার।

 নিজ পৈশাচিক ক্ষমতার বলে কেড়ে নিচ্ছে  অন্যের বেঁচে থাকার অধিকার। তাদের প্রতিহত করার সময় এসেছে। আমরা আমাদের অধিকার রক্ষার জন্য দুর্নীতি বাজদের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। সামাজিক আন্দোলনের মাধ্যমে তাদের চোখে আঙুল দিয়ে দেখাতে হবে। পাপ বাপকে ছাড়ে না। করুণার আক্রমণে মৃত্যুর মিছিলে যুক্ত হওয়া  প্রতিদিনের খবর। বেঁচে থাকার জন্য তাদের কত টাকার প্রয়োজন? এই অবৈধ টাকার সৃষ্ট পাপ পরবর্তী প্রজন্ম নিবে না। সামাজিকভাবে তাদের বয়কট করতে হবে।

চোরদের কোন বিশেষ অনুষ্ঠানে অতিথি করা যাবে না। যেখানেই রাষ্টীয় ও সামাজিক আইন অমান্য করবে সেখানেই সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বাধা দিতে হবে। একটা দেশকে দূর্নীতি মুক্ত করার জন্য সরকারের একা পক্ষে সম্ভব নয়। সরকারের সাথে জনগণকে এগিয়ে আসতে হবে। মনে রাখতে হবে যে দেশ যত উন্নত সে দেশের জনগনের সচেতনতা তত উন্নত। আসুন আমরা প্রত্যেকেই নিজ নিজ অবস্থান থেকে অন্যায়ের প্রতিবাদ করি। আসেন দেশকে ভালো বাসি। দেশের আইনকে শ্রদ্ধা করি। দেশকে পরবর্তী প্রজন্মের জন্য বাসযোগ্য করে যাই।

মোঃ মোস্তাহার মিয়া মোস্তাক
প্রভাষকঃ সুরমা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ
পাথারিয়া,দঃ সুনামগঞ্জ,সুনামগঞ্জ ।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :211 বার!

JS security