দুর্বৃত্তদের হাতে বানিয়াচঙ্গে খুন হলেন অরুণ মেম্বার

বানিয়াচঙ্গ প্রতিনিধি: বানিয়াচঙ্গে দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হলেন ৯নং পুকড়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার অরুণ দাশ (৬০)। গতকাল মঙ্গলবার সকালে উপজেলার পুকড়া গ্রামের ফারুক মিয়ার পুকুর পাড় থেকে অরুণ দাশের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি পশ্চিম পুকড়া গ্রামের মৃত অনীশ দাশের ছেলে। নিহত অরুণ দাশ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, গত সোমবার শ্বশুর বাড়ির পার্শ্ববর্তী কবিরপুর গ্রামে একটি ধর্মীয় উৎসবে যান অরুণ দাশ। সন্ধ্যায় ছেলে অনন্ত দাশের সাথে মোবাইল ফোনে কথাও হয় তার। এরপর থেকে পরিবারের সাথে আর যোগাযোগ ছিলনা অরুণ দাশের। গতকাল মঙ্গলবার হাওরে কাজ করতে যাওয়ার সময় তার ভাগ্নে জগদীশ দাশ পুকুর পাড়ে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। পরে পুলিশকে খবর দেন জগদীশ দাশ।

৯নং পুকড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন জানান, সোমবার দিবাগত রাতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের একটি উৎসবে যোগ দেওয়ার জন্য পার্শ্ববর্তী কবিরপুর গ্রামে গিয়ে আর ফিরে আসেননি অরুণ। পরদিন মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় একটি পুকুর পাড়ে তার লাশ পাওয়া যায়। তিনি আরো জানান, তার বাম চোখটি উপড়ে ফেলা হয়েছে। শরীরে রয়েছে একাধিক আঘাতের চিহ্ন।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। খবর পেয়ে হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যাহ, বানিয়াচং-আজমিরিগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ মোহাম্মদ সেলিম ও বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রঞ্জন কুমার সামন্তসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রঞ্জন কুমার সামন্ত বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে। আমরা আশা করছি দ্রুত এই হত্যাকান্ডের প্রকৃত রহস্য উদঘাটন করতে পারব।

লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। সন্ধ্যায় তার গ্রামের শ্বশানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলা দায়ের হয়নি।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :165 বার!

JS security