নাসিরের ‘অবৈধ সম্পর্ক’ নিয়ে এবার মুখ খুললেন সুবাহ

নাসির হোসেন ও কেবিন ক্রু তামিমা সুলতানা তাম্মির বিয়ে নিয়ে চলছে বিতর্ক। এরই মধ্যে এই দম্পতিকে নিয়ে একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য করে যাচ্ছেন নাসিরের সাবেক প্রেমিকা মডেল ও অভিনেত্রী হুমাইরাহ সুবাহ।

মঙ্গলবার ফেসবুক লাইভে এসে তিনি বলেন, আমি নাসির ও তার বউ তামিমাকে নিয়ে কিছু কথা বলতে চাই। টিভিতে, খবরের কাগজে যখনই নাসির আর ওই ফালতু মেয়ে তামিমার কথা আসতেছে, তখনই আমার নামটা আসতেছে! ওই মেয়েটা আমার ফেসবুকে ফ্রেন্ড ছিল। তাদের সম্পর্কে আমি ‘এ’ টু ‘জেট’ জানি। এটাও জানি, নাসিরের সঙ্গে ওর আগে থেকেই অবৈধ সম্পর্ক ছিল।

তিনি বলেন, নাসিরের সঙ্গে যখন আমার ব্রেকআপ হয়, তখন থেকেই ওই মেয়ের সঙ্গে নাসিরের সম্পর্ক ছিল। শুধু তামিমা না, এমন অনেক মেয়ের সঙ্গেই নাসিরের অবৈধ সম্পর্ক ছিলো। নাসির ৮০-৯০টা মেয়ের জীবন নষ্ট করেছে। আমি এটাই বুঝলাম না, এত ভালো ভালো মেয়ের সঙ্গে প্রেম করে, এতো ভালো মেয়েদের জীবন নষ্ট করে তার লাইফে আজ একটা নষ্টা মেয়ে জুটেছে। 

তামিমাকে নিয়ে তিনি বলেন, ক্রিকেটার নাসিরকে টাকার জন্য বিয়ে করেছে। যে মহিলা একটা বাচ্ছা ফেলে অন্যের সঙ্গে আসে, সে কখোনো ভালো হতে পারে না। সেটা ভালোবাসা না। সে নষ্টামি করতে এসেছে। অনেক ভালো ফ্যামিলির মেয়ে আছে অনেক নির্যাতন সহ্য করেও বাচ্ছাদের জন্য সংসার করে। আমি অনেক পতিতাকেও দেখেছি, যারা নিজের বাচ্চার পেটে ভাত দেয়ার জন্য পতিতাবৃত্তিতে নেমেছে। তামিমাকে রাস্তায় যেখানে দেখবেন সেখানেই জুতা দিয়ে পিটাবেন। মাথা ন্যাড়া করে কালি দিয়ে সারা বাংলাদেশ ঘুরাবেন।

‘এই তামিমা এক হিন্দু ছেলেকে বিয়ে করেছে। সেই ছেলের নাম অলোক। ফান্সে গিয়েও বিয়ে করেছে। সে নারায়ণগঞ্জে বিয়ে করেছে।’ 

‘নাসির আমাকে বহুবার মেরে ফেলতে লোক ঠিক করেছে। নাসির তো লোভি। নাসিরকে লোভ দেখিয়ে বিয়ে করেছে। তামিমা বলে বেড়ায় সে নাকি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আত্মীয়। নাসিরকে কনভেন্স করেছে। জাতীয় দলে ঢোকানোর প্রলোভন দিয়েছে নাসিরকে। জাতীয় দলে খেলার জন্য পলিটিক্যাল সাপোর্ট পাওয়ার জন্য এই দুশ্চরিত্রা মেয়েকে বিয়ে করেছে নাসির।  

নাসিরের সাবেক এ প্রেমিকা বলেন, নাসির এতো ভালো ভালো পরিবারের মেয়েদেরকে সর্বনাশ করেছে। তাদের জীবনকে নষ্ট করেছে।  তাদের সঙ্গে আকাম-কুকাম করে আজকে ফালতু একটা মেয়ে, বাচ্ছার মা, যার পাঁচ-ছয়টা বিয়ে হইছে তাকে বিয়ে করেছে।  এটা আল্লাহর বিচার। এটা ওর কর্মের ফল। এটা আল্লাহ বিচার করছে। এ জন্য তামিমার মতো একটা মেয়ে পাইছে।  প্রত্যেকটা মেয়ের হাড়নিঃশ্বাস লাগছে। এটা মুখ দিয়ে দিতে হয় না। অটোমেটিলি চলে আসে।

নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে বলেন, আমি সিনেমার অফার পেয়েছি।  নাসিরও আমাকে সিনেমায় আসতে না বলেছে।  নাসিরের কারণে তার সর্বনাশ হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, পরে চিন্তা করে সিনেমা করেছি। নাসিরের জন্য আমাকে অনেক কথা শুনতে হয়েছে। আমি সিনেমাতে না এসে কি করব? আমি যদি কোনো ছেলেকে বিয়ে করি, তাহলে শ্বশুড়বাড়িতেও বলবে নাসিরের গার্লফ্রেন্ড। কথাতো সেখানেও শুনতে হবে। 

‘আমি ২০১৮ সালে লাইভে আসি। সেখানে অনেক কান্নাকাটি করেছি। আমি তখন বুঝিনি। আমি তখন ছোট্ট ছিলাম’। 

সাবেক প্রেমিক প্রসঙ্গে সুবাহ বলেন, আমি বুঝতে পারিনি নাসির এতটা নিচু, এতটা খারাপ। নাসির যে এত দুশ্চরিত্রের অধিকারী সেটা আমি কখনোই কল্পনা করতে পারিনি। আমি ভেবেছিলাম আমার সঙ্গে ব্রেকাপের পর সে ভালো হয়ে গিয়েছে, খেলায় মন দিয়েছে। রুবেল ভাইয়ের মতো ইসলামিক মাইন্ডের একটা মেয়েকে বিয়ে করবে। কিন্তু না, সে তো ঠিক হয়নি। উল্টা এতটাই নষ্ট চরিত্রের একটা মেয়েকে বিয়ে করেছে যেটা অবিশ্বাসযোগ্য। তাকে নিয়ে সে লাইভে এসে নাচানাচি, গান গাওয়াসহ কত নষ্টামী করেছে। তারা চায় আমাকে জেলাস বানাতে। কিন্তু যে ছেলে আমার লাইফ নষ্ট করেছে তার জন্য আমার ফিলিংস কাজ করবে?’

২০১৮ সালে ফেসবুক লাইভে এসে নাসিরের সঙ্গে নিজের প্রেমের জানান দিয়ে আলোচনায় আসেন হুমাইরাহ সুবাহ। পরবর্তীতে তিনি মিডিয়ার কাজে মনোনিবেশ করেন। গত দুই বছর তাদের পুরনো সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা না হলেও গেলো ভালোবাসা দিবসে নাসিরের বিয়ের পর সেই আলোচনা আবারও নতুন করে শুরু হয়। এমন পরিস্থিতিতে নাসির-তামিমা দম্পতির সঙ্গে তাকে না জড়াতে সবার কাছে অনুরোধ জানান সুবাহ।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :53 বার!

JS security