ময়মনসিংহে মা-মেয়ে হত্যার রহস্য উদঘাটন

গ্লোবাল ডেস্কঃ- ময়মনসিংহ সদরের খাগডহরে চাঞ্চল্যকর মা-মেয়ে খুনের ঘটনায় একমাত্র আসামি শফিকুল ইসলাম শাহীন খুনের ঘটনা স্বীকার করেছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ। পারিবারিক কলহের কারণে এই হত্যা করা হয়।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম ও ডিবির শাহ কামাল আকন্দ যৌথ অভিযান চালিয়ে ১৮ ঘণ্টার মাথায় শফিকুল ইসলাম শাহীনকে গত বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে নগদ দুই লাখ পাঁচ হাজার টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করা হয়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তাকে আদালতে পাঠালে শাহীন হত্যার দায় স্বীকার করে নিজেকে জড়িয়ে জবানবন্দি দেন।

এর আগে ডিবি পুলিশ হত্যাকারীকে গ্রেপ্তারের কৌশল হিসেবে ঘাতকের মা, ভাই এবং অতি কাছে এক ব্যবসায়ী বন্ধু আলমগীরকে আটক করে। রাতভর জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে ঘাতকের আটক বন্ধু আলমগীর পুলিশকে নিশ্চিত করে যেখানেই থাকুক তাকে মোবাইল করবেই। যেই কথা সেই কাজ। রাত পেরিয়ে সকাল হতেই শফিকুল ইসলাম শাহীন পুলিশের খাচায় আটক বন্ধু আলমগীরকে নতুন একটি মোবাইল নম্বর থেকে রিং করেন শাহীন। ওই নম্বরের সূত্র ধরেই ডিবির তথ্য প্রযুক্তি এলআইসি টিমসহ রওনা দেন অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করতে।

এদিকে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশও রওনা দেয় একই দিকে। এক পর্যায়ে কোতোয়ালি ও ডিবি পুলিশ সম্মিলিত ভাবেই শফিকুল ইসলাম শাহীনকে কিশোরগঞ্জের গাইটাল বাসস্ট্যান্ড থেকে গ্রেপ্তার করে।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :167 বার!

JS security