‘সিলেটে বিশৃঙ্খলা করলে দাঁতভাঙা জবাব’- Global-Sylhet

‘সিলেটে বিশৃঙ্খলা করলে দাঁতভাঙা জবাব’
গ্লোবাল ডেস্কঃ- সিলেটে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট সমাবেশের নামে কোনো বিশৃঙ্খলা করলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে দাঁতভাঙা জবাব দেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেছন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে ‘অশুভ শক্তি বিএনপি-জামায়াত-কামাল গংদের রুখে দাঁড়াও দেশবাসী’ শীর্ষক সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।হাছান মাহমুদ বলেন, ২০১৪ সালে নির্বাচনের আগে বিএনপি-জামায়াত দেশব্যাপী বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছিল। এই নির্বাচনকেও সামনে রেখে যদি বিশৃঙ্খলার চেষ্টা করে তার দাঁতভাঙা জবাব দেওয়া হবে। গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বানচাল করার চেষ্টা করেও তারা পারেনি। এখন তারা আবারও নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে। তাই আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। তাদেরকে রাজনীতির মাঠ থেকে চিরতরে উৎখাত করতে হবে।জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট সম্পর্কে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, মেয়াদ উত্তীর্ণদের নিয়ে জাতীয় ঐক্য হয়েছে। অতি শীঘ্রই এই জাতীয় ঐক্য থেকে অনেকেই বেরিয়ে আসবে। এটা জাতীয় ঐক্য নয়, মেয়াদ উত্তীর্ণদের ঐক্য। ড. কামাল হোসেনরা বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে চায়। কারণ ড. কামালের স্ত্রী পাকিস্তানি আর মেয়ের জামাতা ইহুদি। বিএনপি এই ইহুদির পাল্লায় পড়েছে। তারা ইহুদিদের ভাড়া করেছে।তিনি বলেন, খালেদা জিয়া জেলে ও তার ছেলে তারেক রহমান পলাতক। আর বিএনপি নেতারা গর্তে। এই সুযোগে জাতীয় ঐক্যের মূল উদ্দেশ্য খালেদা জিয়াকে মাইনাস করা। ইতিমধ্যে ড. কামাল হোসেনরা মাইনাসের ষড়যন্ত্রে কিছুটা হলেও স্বার্থক হয়েছেন। খালেদা জিয়াকে মাইনাস করেছেন। তাই বিএনপি নেতাদেরকে বলবো, আপনাদের সর্ষের মধ্যেই ভূত আছে। বিএনপির রাজনীতি এখন বিএনপির হাতে নেই। তাদের রাজনীতি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও ড. কামালদের হাতে চলে গেছে।হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি এখন কাগুজে বাঘ। তাদের কোন গর্জন নেই। আর ড. কামাল হোসেন হলেন কোলা ব্যাঙ। বর্ষায় আওয়াজ দেয়, কাজের কিছু নেই। তাই আসন্ন নির্বাচনকে ঘিরে কোনো ষড়যন্ত্র হলে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে তার উপযুক্ত জবাব দেওয়া হবে।সংগঠনের সহ-সভাপতি চিত্রনায়িকা নুতনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আকতার হোসেন, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।

....সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করুন

মন্তব্য

সংবাদটি পড়া হয়েছে :354 বার!

error: Content is protected !!
JS security