অপরাধ

স্ত্রী হত্যার দায়ে সাবেক এসপি বাবুল আক্তার গ্রেপ্তার

স্ত্রী হত্যার দায়ে সাবেক এসপি বাবুল আক্তার গ্রেপ্তার

হত্যার দায়ে চট্টগ্রামের সাবেক পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। পাঁচ বছর আগে চট্টগ্রামে স্ত্রী মিতু হত্যা মামলায় মঙ্গলবার সাবেক এই এসপিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম নেয়ার পথে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। বাবুল আক্তারকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পিবিআইয়ের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) বনজ কুমার মজুমদার। ২০১৬ সালের ৫ জুন সকালে চট্টগ্রাম নগরীর ও আর নিজাম রোডের বাসার অদূরে ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে যাওয়ার পথে খুন হন মাহমুদা খানম মিতু। বাবুল আক্তার তার স্ত্রী হত্যা মামলার বাদী হলেও তার শ্বশুরের অভিযোগ, জামাই বাবুল আক্তারই তার মেয়ের হত্যাকাণ্ডে জড়িত। সেদিনের ঘটনায় মোটরসাইকেলে আসা তিন হামলাকারী মিতুকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে পালিয়ে যায়। ঘটনার পর থেকে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছিল, গত কয়েক বছরে চাকরিকালীন সময়ে
বিশ্বনাথে তিন বন্ধুর সাথে এক প্রেমিকার প্রেম

বিশ্বনাথে তিন বন্ধুর সাথে এক প্রেমিকার প্রেম

স্টাফ রিপোর্ট: প্রেমের মরা জলে ডুবে না….তুমি সুজন দেইখা কইরো পিরিত মরলে যেনো ভুলে না দরদি…। শিল্পীর ধরদ ভরা গানের সাথে, ফাতেমা বেগম (২০) নামের এক প্রেমিকার সাথে তিনবন্ধুর প্রেমের সন্ধান মিলেছে। ইতি পূর্বে ফাতেমা ২০ দিনের মধ্যে ৩ প্রেমিকের সাথে বারবার পালানো এবং দুইবার দুই প্রেমিককেও বিয়ে করেছেন ফাতেমা! ফতেমা সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার টেংরা গ্রামের দিনমজুর শানুর আলীর মেয়ে। সরেজমিন ফাতেমার নিজ গ্রাম টেংরা গ্রামে গেলে স্থানীয়রা শানুর আলীকে তাদের টেংরা গ্রামের বাসিন্দা এবং দুই মেয়ে ও এক ছেলে সন্তানের জনক। তার স্ত্রী প্রবাসে থাকায় তার মেয়ে ফাতেমার দিকে নজর লাগে একই গ্রাম টেংরা গ্রামের মৃত আব্দুল করিমের পুত্র বখাটে আব্দুল্লাহ। বখাটে আব্দুল্লাহ ফাতেমার সাথে প্রেমের কথা সে তার তিন বন্ধুকে জানালে তিন বন্ধুই এক সময় ফাতেমার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে। গত ৫ রামাদ্বান ফাতেমা নিজ বাড়ি থেকে তার দ্
গ্রাম পুলিশ হত্যা: আসামীদের দ্রুত বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

গ্রাম পুলিশ হত্যা: আসামীদের দ্রুত বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

  সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বড়দল উত্তর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের কর্মরত গ্রাম পুলিশ মোঃ আব্দুর রউফ কে নৃশংস ভাবে হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত থাকা সকল আসামীদের দ্রুত বিচারের দাবীতে মানববন্ধন করে বাংলাদেশ গ্রাম পুলিশ, তাহিরপুর উপজেলা সদস্য বৃন্দ। মঙ্গলবার ( ১১ মে ) দুপুরে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে তাহিরপুর উপজেলার গ্রাম পুলিশের  সভাপতি আবুল কালামের সভাপতিত্বে এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি গোলাপ মিয়া। সাংগঠনিক সম্পাদক ইউসুফ আলী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সাইকুল ইসলাম, নিছেল মিয়া, চঞ্চল রাণী পাল, শেফালি রাণী সরকার। এসময় মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আব্দুর রউফ হত্যা কান্ডে জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানাই। এসময় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন,সাইকুল ইসলাম, আব্দুল আহাদ, নিচেল, আব্দুল কদ্দুস, আব্দুল আজিজ সহ বাংলাদেশ গ্রাম পুলিশ, তাহিরপুর উপজেলা সদস
শাল্লায় হামলা: আ. লীগ নেতাসহ আরও দুজন গ্রেপ্তার

শাল্লায় হামলা: আ. লীগ নেতাসহ আরও দুজন গ্রেপ্তার

  সুনামগঞ্জের শাল্লার উপজেলার নোয়াগাঁওয়ে হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় আরও দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। হামলার ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, দিরাই উপজেলার সরমঙ্গল ইউনিয়নের ধনপুর গ্রামের আব্দুল রশিদের ছেলে আওয়ামী লীগ নেতা হান্নান মিয়া (৫০) ও পার্শ্ববর্তী চন্ডিপুর গ্রামের সোয়েব মিয়ার ছেলে রফিকুল ইসলাম (২২)। সোমবার বিকালে জেলা ডিবি পুলিশের একটি দল তাদের নিজ গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে। গত ২ মে থেকে নোয়াগাঁও গ্রামের ঘটনায় তিনটি মামলা তদন্ত করছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে হান্নান মিয়া সরমঙ্গল ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও একই ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য। হামলার ঘটনায় প্রধান আসামী যুবলীগ নেতা ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম স্বাধীন মিয়াসহ
জামালগঞ্জে স্বজনদের হাতে স্বামী-স্ত্রী খুন !

জামালগঞ্জে স্বজনদের হাতে স্বামী-স্ত্রী খুন !

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে স্বজনদের হাতে নিহত হয়েছেন স্বামী-স্ত্রী । রবিবার (৯ মে) রাত পৌনে ৮ টায় উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নের আলিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, আলিপুর গ্রামের আলমগীর হোসেন (৩২) ও তার স্ত্রী মুর্শেদা বেগম (২৮)। পুলিশ জানায়, শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে রবিবার রাত পৌনে ৮ টার দিকে আলিপুর গ্রামের আলমগীর ও তার চাচতো ভাই রাসেলের মধ্যে ঝগড়া বাঁধে। এক পর্যায়ে রাসেল ধারালো অস্ত্র দিয়ে চাচাতো ভাই আলমগীর ও তার স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। স্বজনরা গুরুতর আহত অবস্থায় স্বামী-স্ত্রী দুজনকে জামালগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সাড়ে দশটার দিকে তাদের মৃত ঘোষণা করেন। জামালগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সাইফুল আলম জানান, দুজনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে
মায়ের পরকীয়া প্রেমিককে যেভাবে ধরিয়ে দিল শিশু

মায়ের পরকীয়া প্রেমিককে যেভাবে ধরিয়ে দিল শিশু

ঢাকা সংবাদদাতা: স্বামী ও দুই শিশু সন্তানকে রেখে কারখানার ম্যানেজারের সঙ্গে পরীকয়ায় জড়িয়েছিলেন এক নারী পোশাক কর্মী। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর ওই নারী এখন পরকীয়া প্রেমিককে স্বামী বলে দাবি করছেন। ঘটনাটি ঘটেছে গাজীপুর সদর উপজেলার বাঘের বাজার ঈদগামাঠ এলাকায়।এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, নয় বছর আগে মেম্বারবাড়ি এলাকার আবদুস সাত্তারের ছেলে জাহাঙ্গীরকে ভালোবেসে বিয়ে করেন স্বপ্না (ছন্দনাম)। জাহাঙ্গীর পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি। তাদের ঘরে ফুটফুটে দুই শিশুপুত্র রয়েছে। কিন্তু স্বামী-সন্তানদের রেখেই কারখানার ম্যানেজারের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন স্বপ্না। জানা গেছে, মেম্বারবাড়ি এলাকায় একটি কারখানা চাকরি করেন স্বপ্না। আর সেখানকার ম্যানেজার হলেন শাহরিয়ার পারভেজ। তিনিও বিবাহিত ও তার তিনজন সন্তান রয়েছে। তার গ্রামের বাড়ি নওগাঁ জেলার সদর থানায়।অভিযোগ উঠেছে, কাজের কারণে স্বপ্নার রাজমিস্
সুনামগঞ্জে শাবি শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

সুনামগঞ্জে শাবি শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) আলমগীর হোসেন নামের এক শিক্ষার্থীর লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। আলমগীর হোসেনের নিজ বাড়ীর পাশে একটি আম গাছের ডালের সাথে  ফাঁস লাগানো অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। সে শাবিপ্রবির ২০১২-১৩ সেশনের রসায়ন বিভাগের ছাত্র। নিহত  আলমগীর হোসেন সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার আব্দুল রাজ্জাকের ছেলে । বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ধর্মপাশা থানার ওসি খালেদ চৌধুরী। তিনি বলেন বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক ৭ টা থেকে ৯ টার মধ্যে সে গলায় ফাঁস লাগাতে পারে বলে।  লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যাবো। ময়নাতদন্ত শেষে মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।
বেয়াইর হাত ধরে ঘর ছাড়লো বেয়াইন

বেয়াইর হাত ধরে ঘর ছাড়লো বেয়াইন

ঢাকা সংবাদদাতা: ফটিকছড়ি উপজেলার ভুজপুর থানাধীন নারায়ণহাট ইউনিয়নে প্রেমের টানে ইব্রাহীম নামে ৪৪ বছর বয়সী এক ব্যক্তির সাথে পালিয়ে গেছে মনোয়ারা বেগম নামে ৪৩ বছর বয়সী এক নারী। তারা সম্পর্কে বেয়াই-বেয়াইন। গত ২৩ এপ্রিল নারায়ণহাট ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের ঘড়াভাঙা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, দেড় বছর পূর্বে ওই ইউনিয়নের পশ্চিম চানপুর ঘরাভাঙা এলাকার মন্তু মিয়ার ছেলে মানিকের সাথে একই ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের কাট্টস্যে এলাকার ইব্রাহীম প্রকাশ কালু ড্রাইভারের মেয়ে সাথী আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে উভয় পরিবারে স্বাভাবিক সম্পর্ক বিদ্যমান। এরই মাঝে বেয়াই ইব্রাহীমও মেয়ের শ্বশুর বাড়িতে মাঝেমধ্যে আসা-যাওয়া করতেন। এক সময় দুই কন্যা সন্তানের জনক ইব্রাহীমের সাথে মেয়ের শাশুড়ি মানোয়ারা বেগমের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে দু’জনের এ সম্পর্ক গভীর প্রেমে রূপ নেয়।
তাহিরপুরে ছুরিকাঘাতে গ্রামপুলিশ নিহত!

তাহিরপুরে ছুরিকাঘাতে গ্রামপুলিশ নিহত!

নিজস্ব প্রতিবেদক :- সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে আব্দুর রউফ নামে এক গ্রামপুলিশ খুন হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৬ মে) ভোররাতে উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের বোরোখাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আব্দুর রউফ (৩৫) একই এলাকার মৃত আব্দুর রশীদের ছেলে। চার শিশুসন্তানের জনক রউফ উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়ন পরিষদে গ্রাম পুলিশ সদস্য হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ গ্রামপুলিশ সমিতি তাহিরপুর উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ইউসুফ আলী নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। পুলিশ ও নিহতর পরিবার সূত্র জানায়, বুধবার রাতের খাবার খেয়ে স্বামী স্ত্রী একই বসত ঘরের পৃথক দুই রোমে দুইজন ঘুমিয়ে পড়েন। রাত প্রায় তিনটার দিকে স্ত্রী শিরিনা বেগম ঘুম থেকে উঠে পাশের রোমে গিয়ে দেখেন তার স্বামী রোমের মধ্যে নেই। পরে তিনি বারান্দায় গিয়ে দেখেন তার স্বামী রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন। পরিবা
রাস্তার পাশ থেকে নবজাতক উদ্ধার

রাস্তার পাশ থেকে নবজাতক উদ্ধার

  কানাইঘাট উপজেলার ৫নং বড়চতুল ইউনিয়ন কমপ্লেক্স এর পাশের রাস্তা থেকে এক নবজাতককে উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (৫ মে) ভোর ৬টার দিকে পরিচয়হীন নবজাতক কন্যা শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার ভোরে কানাইঘাট-দরবস্ত রাস্তার পাশে গাছের নিচে টাওয়াল দিয়ে মোড়ানো রক্তমাখা অবস্থায় জনৈক বতাই মিয়ার বাড়ির লোকজন নবজাতক কন্যাটিকে দেখতে পেয়ে উদ্ধার করেন। পরে ঐ বাড়ির ইছমতুন বেগম ফুটফুটে নবজাতককে কোলে নেন এবং নবজাতকটি পুরোপুরি সুস্থ থাকায় গোসল করান। মুহূর্তে এই খবর আশপাশ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ফুটফুটে নবজাতক কন্যাকে দেখতে জনৈক বতাই মিয়ার বাড়িতে মানুষজন ভিড় শুরু করেন। পরবর্তীতে বতাই মিয়ার মেয়ে নিঃসন্তান দম্পতি বনপাড়া গ্রামের শিমুল আহমদ ও তার স্ত্রী মুন্নি বেগম নবজাতক কন্যাটিকে তাদের দায়িত্বে বুঝে নেন। বতাই মিয়ার বাড়ীর ইছমতুন বেগম জানান, নবজাতককে রক্তমাখা
JS security