ইতিহাস

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জমিদার বাড়িতে সবজি চাষ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জমিদার বাড়িতে সবজি চাষ

গ্লোবাল সিলেট ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রীর ৩১দফা নির্দেশনা মোতাবেক করোনা পরিস্থিতিতে সম্ভাব্য খাদ্যঘাটতি মোকাবেলায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর হরিপুর জমিদার বাড়ির আশেপাশে অব্যবহৃত ও পরিত্যক্ত খালি জায়গায় শাকসবজি চাষের উদ্যোগ নেওয়া হয়। প্রাথমিক পর্যায়ে প্রত্নস্থলের আশেপাশে পড়ে থাকা অব্যবহৃত জায়গায় ডাটা, লালশাক, পুঁইশাক, ঢেরশ, চালকুমড়ো, মিষ্টি কুমড়, ঝিংগা, ধুন্দল, বরবটি চাষ করা হয়েছে। মহামারী করোনার এই সংকট কালীন সময়ে দেশের উৎপাদন বৃদ্ধিতে অবদান রাখার স্বার্থে নিজ দায়িত্ত্বের পাশাপাশি স্বেচ্ছাশ্রমে তেভাগা নীতিতে চাষকৃত এসব শাকসব্জির একটি অংশ স্থানীয় দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মধ্যে বিতরণ, একটি অংশ চাষাবাদের সাথে সম্পৃক্ত কর্মচারীদের মধ্যে বিতরণ এবং অবশিষ্ট অংশ বিক্রি করে উৎপাদন ব্যয় করা হয়। গত ২৭ জুলাই তেভাগা নীতিতে উৎপাদিত শাকসব্জি উপকারভোগী স্থানীয় দরিদ্র জনগোষ্ঠী, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের কর্মচারীদের

আজ ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস

গ্লোবাল ডেস্কঃ-  আজ ৭ জুন ঐতিহাসিক ছয়-দফা দিবস পালিত হচ্ছে। ১৯৬৬ সালের এদিন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষিত বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ ৬-দফা দাবির পক্ষে দেশব্যাপী তীব্র গণআন্দোলনের সূচনা হয়। এই দিনে আওয়ামী লীগের ডাকা হরতালে টঙ্গী, ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে পুলিশ ও ইপিআররে গুলিতে মনু মিয়া, শফিক ও শামসুল হকসহ ১১ জন বাঙালি শহীদ হন। এরপর থেকেই বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আপসহীন সংগ্রামের ধারায় ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের দিকে এগিয়ে যায় জাতি। পরবর্তী সময়ে ঐতিহাসিক ৬-দফাভিত্তিক নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনই ধাপে ধাপে বাঙালির স্বাধীনতা সংগ্রামে পরিণত হয়। যার কারণে ৭ জুনকে ৬-দফা দিবস হিসেবে পালন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। বাণীতে তারা ৬ দফা দাবি বাস্তবায়নের জন্য যারা জীবন দিয়েছেন তাদের স্মৃতির প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানান। এ উপলক্ষে আওয়াম

হযরত মুহাম্মদ (সা:) থেকে আদি পিতা আদম (আ:) পর্যন্ত নামের তালিকা- Global-Sylhet     

গ্লোবাল ডেস্ক:- একনজরে দেখে নিন প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) থেকে আমাদের আদি পিতা হজরত আদম (আ.) পর্যন্ত পূর্বপুরুষগণের নামের তালিকা-নিম্নে দেওয়া হল। ১. হযরত মুহম্মদ মুস্তাফা (স) ২. তাঁহার পিতা আব্দুল্লাহ ৩. তাঁহার পিতা আব্দুল মোত্তালিব ৪. তাঁহার পিতা হাসিম ৫. তাঁহার পিতা আব্দ মানাফ ৬. তাঁহার পিতা কুছাই ৭. তাঁহার পিতা কিলাব ৮. তাঁহার পিতা মুরাহ ৯. তাঁহার পিতা কা’ব ১০. তাঁহার পিতা লুই ১১. তাঁহার পিতা গালিব ১২. তাঁহার পিতা ফাহর ১৩. তাঁহার পিতা মালিক ১৪. তাঁহার পিতা আননাদর ১৫. তাঁহার পিতা কিনান ১৬. তাঁহার পিতা খুজাইমা ১৭. তাঁহার পিতা মুদরাইকা ১৮. তাঁহার পিতা ইলাস ১৯. তাঁহার পিতা মুদার ২০. তাঁহার পিতা নিজার ২১. তাঁহার পিতা মা’দ ২২. তাঁহার পিতা আদনান ২৩. তাঁহার পিতা আওয়াদ ২৪. তাঁহার পিতা হুমাইসা ২৫. তাঁহার পিতা সালামান ২৬. তাঁহার পিতা আওয ২৭. তাঁহার পিতা বুয ২৮.

ক্যান্সার গবেষণায় নোবেল পেলেন দুই বিজ্ঞানী!!

গ্লোবাল আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ-নেতিবাচক ইমিউন নিয়ন্ত্রণে বাধাদানের মাধ্যমে ক্যান্সার থেরাপি আবিষ্কারের জন্য যৌথভাবে নোবেল পুরস্কার জিতে নিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র ও জাপানের দুই বিজ্ঞানী। সোমবার সুইডেনের কারোলিনস্কা ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা বিজ্ঞানে চলতি বছরের বিজয়ী হিসেবে জেমস পি অ্যালিসন ও তাসুকু হোনজোর নাম ঘোষণা করা হয়।চিকিৎসা বিজ্ঞানে বিজয়ীর নাম ঘোষণার মাধ্যমে ২০১৮ সালের নোবেল পুরস্কার প্রদান শুরু হয়েছে। এ বিভাগে নোবেল জয় করেছেন জেমস. পি. অ্যালিসন ও তাসুকু হনজো। মূলত নেতিবাচক ইমিউন নিয়ন্ত্রণে বাধাদানের মাধ্যমে ক্যান্সার থেরাপি আবিষ্কারের জন্য এই দুই চিকিৎসা বিজ্ঞানী যৌথভাবে নোবেল পেয়েছেন।এবার নোবেল পুরস্কারের ৮০ লাখ সুইডিশ ক্রোনার এই দুই বিজ্ঞানী ভাগ করে নেবেন। আগামী ১০ ডিসেম্বর সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে।মঙ্গলবার পদার্থ, বুধবার রসায়

আজ বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদের ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকী

গ্লোবাল সিলেট ডেস্কঃ-    আজ (৫ সেপ্টেম্বর) বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক নূর মোহাম্মদ শেখের ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকী। ১৯৭১ সালের এই দিনে যশোর জেলার গোয়ালহাটিতে পাকবাহিনীর সঙ্গে সম্মুখ যুদ্ধে শহীদ হন তিনি। যশোরের শার্শা উপজেলার কাশিপুর গ্রামে তাকে সমাহিত করা হয়।বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ শেখ ১৯৩৬ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি নড়াইল সদর উপজেলার চন্ডীবরপুর ইউনিয়নের মহিষখোলা গ্রামে (বর্তমানে নাম নূর মোহাম্মদনগর) জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মো. আমানত শেখ ও মাতা মোসা. জেন্নাতা খানম। ডানপিটে নূর মোহাম্মদ পড়ালেখায় বেশিদূর এগোতে পারেননি। স্থানীয় বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে অধ্যায়নরত অবস্থায় তার শিক্ষা জীবনের অবসান ঘটে।এরপর ১৯৫৯ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি নূর মোহাম্মদ তৎকালীন ইস্ট পাকিস্তান রেজিমেন্টে যোগদান করেন এবং কৃতিত্বের সঙ্গে প্রশিক্ষণ শেষে একই বছরের ৩ ডিসেম্বর দিনাজপুর সেক্টরে যোগদানের মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন। এরপ

সিলেটের উন্নয়নে যেসব অসামান্য অবদান রেখেছিলেন সাইফুর রহমান

গ্লোবাল সিলেট প্রতিনিধিঃ-বাংলাদেশের রাজনীতির ইতিহাসে এক কালজয়ী ব্যক্তিত্বের নাম সাইফুর রহমান। জাতীয় সংসদের ১২ বার বাজেট উপস্থাপন করেছিলেন তিনি। সেই কীর্তিমান পুরুষের ৯ম মৃত্যুবার্ষিকী বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর)।জীবিতাবস্থায় বৃহত্তর সিলেটের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে রেখে গেছেন অনন্য ভূমিকা। সিলেট অঞ্চলের মানুষ ভালবেসে যাকে ‘সিলেট বিভাগের উন্নয়নের রূপকার’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছিলেন। কি এমন কাজ করছিলেন সিলেটের উন্নয়নে? যার কারণে আজো কীর্তিমান এই পুরুষের মৃত্যুর নয় বছর পেরিয়ে গেলেও এখনও তার অভাব অনুভব করেন সিলেটের মানুষ। জানা যায়, তাঁর আমলে সিলেট অঞ্চলে করা উন্নয়ন কর্মকান্ড ছড়িয়ে আছে সিলেটের আনাচে-কানাচে। যা তাকে মানুষের স্মৃতির মণিকোঠায় জায়গা করে দিয়েছে স্থায়ীভাবে।সিলেটের উন্নয়নে সর্বাগ্রে আছে সড়ক যোগাযোগের উন্নয়নের বিষয়টি। সিলেট নগরীর যানজট নিরসনে নগরীর প্রায় প্রতিটি সড়কের সম্প্রসারণ এবং সার্কিট হাউজ থে

ফেরাউনের মমিতে নতুন রহস্য

গ্লোবাল আন্তর্জাতিকডেস্কঃ-    মমি। ছোট্ট একটা শব্দ। কিন্তু তারই মধ্যে অমোঘ রহস্যের হাতছানি। হাজার হাজার বছর আগেকার পৃথিবীর দিনকাল ভেসে ওঠে চোখের সামনে। সেই সঙ্গে অবধারিত অতিলৌকিক সব আখ্যান। তুতেনখামেনের অভিশপ্ত মমি হোক বা অন্য ফারাওদের মমি— সাধারণ মানুষদের পাশাপাশি গবেষকদেরও কৌতূহলের শেষ নেই। এ নিয়ে নতুন নতুন আবিষ্কারও তাই হয়ে চলেছে।সম্প্রতি এক বহু পুরনো মমিকে ঘিরে নতুন আবিষ্কারের কথা উঠেছে এসেছে সামনে। তাতে বলা হয়েছে, ফারাওদের আগেও মমি প্রথা চালু ছিল প্রাচীন মিসরে! চাঞ্চল্যকর এই খবরে স্বাভাবিকভাবেই উত্তেজিত কৌতূহলী মানুষরা।আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান বিষয়ক ওয়েবসাইট ‘লাইভসায়েন্স.কম’-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, গত শতাব্দীর শুরুতে ওই মমিটি পাওয়া গিয়েছিল। ১৯০১ সাল থেকে ইতালির তুরিন মিউজিয়ামে সংরক্ষিত রয়েছে মমিটি। মোটামুটি ৩৭০০ থেকে ৩৫০০ খ্রিষ্ট পূর্বাব্দের সময়ের ওই মমিটি সম্পর্কে এতদিন সকলের ধারণা ছি

সবচেয়ে ভয়ংকর প্রাচীন অস্ত্র!

গ্লোবাল সিলেট ডেস্কঃ-  প্রাচীন পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়াবহ অস্ত্রের নাম ছিল ‘শোতেল’। ইথিওপিয়ার সুপ্রাচীন সভ্যতায় এর উদ্ভাবন ঘটে। প্রচণ্ড ধার এবং বাঁকানো অবয়বের কারণে এর খ্যাতি ছিল বিশ্বজোড়া। অশ্বারোহী এবং পদাতিক উভয় জাতের যোদ্ধারাই এই তলোয়ার ব্যবহার করতো।তবে কবে কখন প্রথম এর উদ্ভাবন ঘটে তা অবশ্য ইতিহাসবিদরা জানাতে পারেননি; তবে রাজা আমদা সিয়নের রাজত্বকালে (১৩১৪-১৩৪৪ সাল) এই অস্ত্রের ব্যাপক প্রচলন ঘটে।রাজার বাহিনীতে এই অস্ত্রধারীদের নিয়ে আলাদা একটি ব্যাটালিয়ন ছিল। ‘শোতেলাই’ বলে তাদের ডাকা হতো। সাধারণ সোর্ড ফাইটিং এর পাশাপাশি হুকিং অ্যাটাকের স্পেশালিটির জন্য শোতেল ছিল মোক্ষম অস্ত্র। বিশেষত অশ্বারোহীদের বিরুদ্ধে এই তলোয়ার ছিল এক মারাত্মক হুমকি। হুকিং অ্যাটাক দিয়ে অশ্বারোহীদের কুপোকাত করত শোতেলাইরা। এর ব্লেডটি প্রায় ৪০ ইঞ্চি পর্যন্ত লম্বা হত। হাতলে বিশেষভাবে প্রক্রিয়াজাত চামড়া ব্যবহার করা হতো

আজ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৭তম প্রয়াণ দিবস-

গ্লোবাল সিলেট ডেস্ক:- আমার দিন ফুরালো ব্যাকুল বাদল সাঁঝে, গহন মেঘের নিবিড় ধারার মাঝে’- রবীন্দ্রনাথ কি বুঝতে পেরেছিলেন, শ্রাবণের ভরা বর্ষার মধ্যেই তার জীবনের সমাপ্তি ঘনিয়ে আসবে?আজ বাইশে শ্রাবণ। আজ কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৭তম মহাপ্রয়াণ দিবস। ১৩৪৮ বঙ্গাব্দের ২২ শ্রাবণ তিনি কলকাতায় পৈত্রিক বাসভবনে মৃত্যুবরণ করেন।কলকাতার জোড়াসাঁকোর বিখ্যাত ঠাকুর পরিবারের দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর ও সারদাসুন্দরী দেবীর চতুর্দশ সন্তান রবীন্দ্রনাথ বাংলা সাহিত্যের আকাশে রবি হয়েই উদিত হয়েছিলেন। জন্ম ১২৬৮ বঙ্গাব্দের পঁচিশে বৈশাখ।রবীন্দ্রনাথ কবি, উপন্যাসিক, নাট্যকার, সঙ্গীতজ্ঞ, প্রাবন্ধিক, দার্শনিক, ভাষাবিদ, চিত্রশিল্পী, গল্পকার- সবগুলো শৈল্পিক গুণের সমন্বিত এক বিস্ময়কর প্রতিভা। আট বছর বয়সে তিনি কবিতা লেখা শুরু করেন। বিশ্বের বিভিন্ন ভাষায় তার সাহিত্যকর্ম অনুদিত হয়েছে। বিভিন্ন দেশের পাঠ্যসূচিতে তার লেখা সংযোজিত হয়েছে।প

ইতিহাসের এ দিনে : ২৪ জুলাই-

গ্লোবাল সিলেট ডেস্কঃ- ১২০৬ সালের এ দিনে কুতুবুদ্দিন আইবেক সিংহাসনে আরোহণ করেন। ১৭০৪ সালের এ দিনে স্পেনীয়দের কাছ থেকে ইংরেজরা জিব্রালটার দখল করে নেয়। ১৮১৪ সালের এ দিনে ক্যালকাটা স্কুল বুক সোসাইটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৮২৩ ‌সালের এ দিনে চিলিতে দাসত্ব প্রথা বিলোপ হয়। ১৮৬১ সালের এ দিনে ‘নীলদর্পণ’ নাটকের ইংরেজি অনুবাদ প্রকাশের দায়ে পাদ্রি জেমস্ লং কারারুদ্ধ হন। ১৮৬৮ সালের এ দিনে যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানী ও গবেষক ‘জন ওয়েসলি হিট’ প্লাস্টিক তৈরীর জন্য নতুন ধরণের উপাদান তৈরী করতে সক্ষম হন। ১৮৭৯ সালের এ দিনে মি. ফিউরি কলকাতায় প্রথম বৈদ্যুতিক বাতি প্রদর্শন করেন। ১৯২১ সালের এ দিনে ফিলিস্তিন, ইরাক, ও পূর্ব জর্দান বৃটিশদের অধীনে এবং সিরিয়া ও লেবানন ফরাসী সরকারের অধিনে চলে আসে। ১৯৩২ সালের এ দিনে কলকাতায় রামকৃষ্ণ মিশন সেবা প্রতিষ্ঠান স্থাপিত হয়। ১৯৩৩ সালের এ দিনে ২৭ বছর ধরে ধারাবাহিক প্রচারিত না
JS security