দূর্নীতি

বক্তৃতার নামে সিইসি, কমিশনার, সচিবদের পকেটে দুই কোটি

বক্তৃতার নামে সিইসি, কমিশনার, সচিবদের পকেটে দুই কোটি


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক :- প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও কমিশনারদের মতো সাংবিধানিক পদের পদাধিকারীদের বিরুদ্ধে বক্তৃতা না দিয়ে অর্থ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তাঁদের সঙ্গে আছেন ইসির সচিবসহ পদস্থ কর্মকর্তারা। আর এই অর্থের পরিমাণ একেবারে কম নয়, দুই কোটি টাকার বেশি। বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও এরপরে উপজেলা নির্বাচনে প্রশিক্ষণ উপলক্ষে শুধু ‘বিশেষ বক্তা’ হিসেবে বক্তৃতা দিয়ে তাঁরা এই অর্থ নিয়েছেন। আর এর বাইরে ‘কোর্স উপদেষ্টা’ হিসেবে নির্বাচন কমিশনের তৎকালীন সচিব (বর্তমানে স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব) একাই নিয়েছেন ৪৭ লাখ টাকা। তিনি ‘বিশেষ বক্তা’ হিসেবেও টাকা নিয়েছেন। তবে তা কত জানা যায়নি। নির্বাচন কমিশন (ইসি) সূত্র জানায়, ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনে প্রশিক্ষণের জন্য নির্বাচন কমিশন ৬১ কোটি ২৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছিল। আর উপজেলা নির্বাচনে প্রশিক্ষণের জন্য বরাদ্দ ছিল ৬১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। ইসির ত
চট্টগ্রামের বোয়ালখালী থানার ওসি সাইরুল বসুন্ধরায় ৮ তলা ভবনের মালিক

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী থানার ওসি সাইরুল বসুন্ধরায় ৮ তলা ভবনের মালিক


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক:- রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ৮ তলা ভবনের মালিক হয়েছেন চট্টগ্রামের বোয়ালখালী থানার ওসি সাইরুল ইসলাম। ভবনটির আনুমানিক মূল্য ১১ কোটি টাকা। কনস্টেবল থেকে পদোন্নতি পেয়ে ওসি হওয়া এই পুলিশ কর্মকর্তা নামে-বেনামে সম্পদের পাহাড় গড়েছেন। একুশে পত্রিকার অনুসন্ধানে পাওয়া গেছে ওসি সাইরুলের সম্পদের ভান্ডার। এ যেন ‘আঙুল ফুলে বটগাছ’ হওয়ার কাহিনি।  অনুসন্ধানে জানা যায়, রাজধানীর অভিজাত এলাকা হিসেবে খ্যাত বসুন্ধরা আবাসিকের এম ব্লকে ৪২১৪ নম্বর প্লটে ৪ কাটা জমি কিনেছেন সাইরুল ইসলাম। উক্ত জমিতে তিনি নির্মাণ করেছেন ৮ তলা সুরম্য ভবন। ভবনটির নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে সম্প্রতি। নজরদারির সুবিধার্থে ভবনটির বাইরে স্থাপন করা হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা। ভবনটির বর্তমান বাজার মূল্য সম্পর্কে একটি আবাসন প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক একুশে পত্রিকাকে বলেন, ‘৪ কাটা জমির উপর ৮ তলা ভবন করা হলে এটির মোট স্পে
সিভিল সার্জনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা – ১৬ কোটি টাকার অভিযোগ

সিভিল সার্জনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা – ১৬ কোটি টাকার অভিযোগ


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক:- সাতক্ষীরায় কোনো ধরনের যন্ত্রপাতি না কিনেই ১৬ কোটি ৬১ লাখ টাকার বিল উত্তোলনের অভিযোগে সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন ডা. তওহীদুর রহমানসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন দুদক। মঙ্গলবার দুদকের খুলনা সমন্বতি জেলা কার্যালয়ে মামলাটি দায়ের করেন প্রধান কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক জালাল উদ্দিন। একইদিন গ্রামীণ ব্যাংকের ১ লাখ ৬৯ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সাবেক সিনিয়র কেন্দ্র ব্যবস্থাপক কে এম মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা হয়েছে। এই মামলার বাদি খুলনা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক তরুণ কান্তি ঘোষ। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সংশোধিত বিধিমালা অনুযায়ী এখন থেকে সমন্বিত জেলা কার্যালয়েই মামলা করা যাবে। নতুন বিধিমালা অনুযায়ী মঙ্গলবার খুলনা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে প্রথমবারের মতো দুটি মামলা দায়ের করা হলো। সাতক্ষীরার সিভিল সার্জনের বিরুদ্ধে মামলার এজাহ
ফেঞ্চুগঞ্জে পিডিএফের অফিসার মোয়াজ্জেমের অর্থ আত্মসাৎ চেষ্টাঃ

ফেঞ্চুগঞ্জে পিডিএফের অফিসার মোয়াজ্জেমের অর্থ আত্মসাৎ চেষ্টাঃ


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
মুহাম্মদ হাবিলুর রহমান জুয়েল, ফেঞ্চুগঞ্জ থেকেঃ- ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার হাটুভাঙ্গা গ্রামে অবস্থিত পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনের দল নং ৫ সদস্য কোড ২৩ পাস বই নং ০৫৬৩ বিগত ২০/০৩/১৮ ইং তারিখে ২০,০০০ টাকা উত্তলোন করা হয়। উত্তলিত ব্যক্তির নাম মোছাঃ মনি বেগম, পিতা মতিন মিয়া, গ্রাম হাটুভাঙ্গা। তিনি ২/৪/১৮ ইং থেকে নিয়মিত কিস্তি পরিশোধ করে আসছেন৷ কিন্তু গত কিছুদিন পূর্বে তাহার বিবাহ থাকায় এবং পিতার অসুস্থতার কারণে নিয়মিত কিস্তি আদায় করেননি। পরবর্তী সময় তিনি যথারীতি কিস্তি আদায় করে আসছেন। যদি মধ্য অবস্থায় তাহার অর্থনৈতিক সংকট থাকায় কিস্তি পরিশোধ না করায় খেলাফিতে পড়ে যান৷ কিন্তু তারপরও তিনি নিয়মিত কিস্তি দিয়ে আসছেন। এ পর্যন্ত তার ১৭/৬/১৯ তারিখ পর্যন্ত ১২৬৮০ টাকা রয়েছে । কিন্তু গত ৬/৫/২০১৯ তারিখে তার বিরুদ্ধে সার্টিফিকেট মামলা নামে একটি নোটিশ পৌছানো হয়৷ সেখানে উল্লেখ করা হয় (১৩৮০০+৩৩১২=১৭১১২) টাকা সু
শাল্লায় সরকারি ভবনে পত্রিকা অফিস, সাইনবোর্ড সাঁটানো থাকলেও কিছুই জানেন না কর্তৃপক্ষ!

শাল্লায় সরকারি ভবনে পত্রিকা অফিস, সাইনবোর্ড সাঁটানো থাকলেও কিছুই জানেন না কর্তৃপক্ষ!


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
স্টাফ রিপোর্টারঃ-  সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলায় ভূমি ও সাব রেজিস্ট্রী (পুরাতন কোর্ট) অফিস ভবনে স্থানীয় পত্রিকা সুনামগঞ্জের খবরের সাইনবোর্ড অবৈধভাবে সাঁটিয়ে অফিস করছেন পত্রিকাটির শাল্লা প্রতিনিধি পীযুষ শেখর দাশ (পি.সি. দাশ)। সরকারি নিয়ম-নীতি লঙ্ঘন করে বেশ কিছুদিন থেকে সরকারি এ ভবনে পত্রিকার কার্যালয়ে পরিনত করেছেন বলে স্থানীয়দের রয়েছে অভিযোগ। তবে সরকারি ভবনে দীর্ঘদিন থেকে ওই প্রতিনিধি পত্রিকা অফিস হিসেবে চালিয়ে গেলেও সেবিষয়ে কিছুই জানেন না সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।  খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উল্লিখিত পত্রিকা অফিসের নামে ওই ভবনের কোনো কক্ষ বরাদ্দ নেই। কিভাবে সরকারি এ ভবনকে পত্রিকা অফিসে পরিণত করেছেন তা কারো জানা নেই। সরকারি ওই ভবনের যে কক্ষে পত্রিকা অফিসটি করা হয়েছে তাতে আপন যুব সংঘ নামের একটি সাইনবোর্ডও দেখা যায়।  সরকারি ওই ভবনটির পাঁচটি কক্ষ নিয়ে একদিকে রয়েছে উপজেলা সাব রেজিস্ট্রারের কার্যালয় ও অ
সিলেটে ডাক্তারদের চিকিৎসার অন্তরালে চলছে – টেস্ট বানিজ্য

সিলেটে ডাক্তারদের চিকিৎসার অন্তরালে চলছে – টেস্ট বানিজ্য


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক:- সিলেটে চিকিৎসার আড়ালে চলছে ডাক্তারদের টেস্ট বানিজ্য। স্বাস্থ্যসেবায় সরকারি নীতিমালা কঠোর ও প্রয়োগ না হওয়ার কারণে নগরীতে বিপুলসংখ্যক বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক গড়ে উঠেছে। যত্রতত্র চেম্বার খোলে ডাক্তাররা গভীর রাত পর্যন্ত দেখে যাচ্ছেন রোগী। প্রয়োজন হোক বা না হোক, রোগীর টেস্টের ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ কমিশনের লোভে অনেক ডাক্তার নানা পরীক্ষা লিখে হাতে ধরিয়ে দিচ্ছেন প্রেসক্রিপশন।  কোন কোন ডাক্তার নিজের মনোনীত জায়গায় পরীক্ষা না করালে পরবর্তীতে সে রোগীকে আর দেখেন না। অনেক চেম্বারে আবার রোগীর চাইতে বেশি দেখা মিলে ঔষধ কোম্পানির রিপ্রেজেন্টেটিভদের। মানহীন কোম্পানির ঔষধ ডাক্তার রোগীর প্রেসক্রিপশনে লিখতে দেশি-বিদেশী নানা প্রকার সামগ্রী উপহার দেন তারা। প্রেসক্রিপশনের বই, ভিজিটিং কার্ড বানিয়ে দেয়া, মাস শেষে লম্বা খামে কমিশন প্রদান করা, কোন ঔষধ কোম্পানি বছর শেষে ডাক্তারকে বিদেশ ভ্রমনে
উদ্বোধনের আগেই সিলেটে আড়াই কোটি টাকার ব্রিজে-ফাঁটল

উদ্বোধনের আগেই সিলেটে আড়াই কোটি টাকার ব্রিজে-ফাঁটল


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
স্টাফ রিপোর্টারঃ-  সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলায়  প্রায় আড়াই কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ব্রীজে উদ্বোধনের আগেই ফাটল ধরেছে। মুল পিলারে ফাটলের পাশাপাশি বৃষ্টির পানিতে ভেসে গেছে ব্রীজের গার্ড ওয়াল। আগামী সপ্তাহের মধ্যে ব্রীজটি উদ্বোধনের কথা রয়েছে। এরই মধ্যে ব্রীজটিতে ফাটল ধরায় বেরিয়ে এসেছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের দুর্নীতির তথ্য। অভিযোগ ওঠেছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর (এলজিইডি) কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে। জানা গেছে, ২০১৭ সালের ৩১ শে ডিসেম্বর এলজিইডি’র বাস্তবায়নে ২ কোটি ৩৭লক্ষ টাকা ব্যয়ে আইআরআইডিপি-২ প্রকল্পের আওতায় মুক্তাপুর (জৈন্তাপুর ইউপি হেডকোয়ার্টার) ঢুলটিরপাড় ২নং লক্ষীপুর বাজার জিসি সড়কের ১ হাজার ৪৪০ মিটার চেইনেজ চিকারখালের উপর ৫৪ মিটার আরসিসি গার্ডার ব্রিজ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি। জৈন্তাপুর উপজেলা সদরের সাথে কয়েকট
রূপপুর প্রকল্পে রাঁধুুনির বেতন ৮০ হাজার, গাড়ি চালকের ৯৩ হাজার!

রূপপুর প্রকল্পে রাঁধুুনির বেতন ৮০ হাজার, গাড়ি চালকের ৯৩ হাজার!


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক:- বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় প্রকল্প রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র। ২০১৭ সালের নভেম্বরে এর মূল নির্মাণকাজ শুরু হয়, যদিও প্রকল্পটির ব্যয় নিয়ে রয়েছে নানা প্রশ্ন। সম্প্রতি এই প্রকল্পের আসবাবপত্র কেনা ও ফ্ল্যাটে তোলায় হরিলুটের চিত্র সংবাদমাধ্যমে উঠে আসে। এবার জানা গেল রূপপ্রকল্পের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অস্বাভাবিক বেতন-ভাতার হিসাব। এই প্রকল্পের সব পদেই অস্বাভাবিক বেতন-ভাতা ধরা হয়েছে। বেতন ছাড়াও আরো কয়েকটি খাতে অস্বাভাবিক ব্যয় ধরে চূড়ান্ত করা হয়েছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ (মূল পর্যায়) কাজে। এই প্রকল্পের প্রকল্প-পরিচালকের বেতন ধরা হয়েছে চার লাখ ৯৬ হাজার টাকা। পাশাপাশি প্রকল্পের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন করবেন, এজন্য আরও পাবেন দুই লাখ টাকা। সব মিলিয়ে প্রকল্প পরিচালক পাবেন ছয় লাখ ৯৬ হাজার টাকা। এই প্রকল্পের গাড়িচালকের বেতন ৭৩ হাজার ৭০৮
কাজের দুই দিনের মাথায় সড়কের পিচ উঠে গেছে

কাজের দুই দিনের মাথায় সড়কের পিচ উঠে গেছে


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
গ্লোবাল ডেস্ক:- চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার মনপুরা গ্রামে কচুয়া-কাশিমপুর সড়কের আড়াই কিলোমিটার পাকাকরণের জন্য ২০১৫ সালে দরপত্র আহ্বান করা হয়। শুরু থেকেই ঠিকাদারের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ ওঠে। ঠিকাদার নিম্নমানের ইট ব্যবহার করেন। এর ওপর কাজ প্রায় দুই বছর ফেলে রাখেন। অবশেষে গত মঙ্গলবার সড়কটি পিচঢালাই করা হয়। কিন্তু বৃহস্পতিবার গ্রামবাসী হাঁটতে গিয়ে দেখেন তাঁদের জুতার সঙ্গে পিচ উঠে আসছে। অনিয়মের অভিযোগটি জানার পর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান শিশির সড়কের কাজ পরিদর্শনে যান। তিনি গিয়ে অনিয়মের অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পান। এ বিষয়ে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান বলেন, ‘স্থানীয় ঠিকাদার মো. সুমন প্রধানীয়া কাজটি করেছেন। কাজের মান অত্যন্ত খারাপ। সড়কটির ৫০ জায়গায় পরীক্ষা করে দেখা গেছে, হাত দিতেই পিচের ঢালাই উঠে যাচ্ছে। উপজেলা প্রকৌশলীকে কাজটি আবার করার জন্য নির্দেশ দিয়েছি।’
৭ হাজার টাকার চুলা উঠাতে সাড়ে ৬ হাজার টাকা খরচ! সরকারি কর্তাদের জন্য আসবাবপত্র ক্রয়ে সাগর চুরি

৭ হাজার টাকার চুলা উঠাতে সাড়ে ৬ হাজার টাকা খরচ! সরকারি কর্তাদের জন্য আসবাবপত্র ক্রয়ে সাগর চুরি


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র ও প্রকল্পের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের থাকার জন্য নির্মিত ভবন এবং ব্যয়ের চার্ট। ছবি : সংগৃহীত বিশেষ প্রতিবেদনঃ- রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের থাকার জন্য নির্মিত ভবনে আসবাবপত্র কেনা ও ফ্ল্যাটে তোলার ব্যয়ে অসংঙ্গতি পাওয়া গেছে। ৩৩০টি তোশক কিনতে খরচ দেখানো হয়েছে ১ কোটি ১৯ লাখ টাকা। একই অবস্থা অন্য গুলোর ক্ষেত্রেও। প্রকল্পের আসবাবপত্র কেনার নথিপত্র পর্যালোচনা করে এমন তথ্য পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে অনলাইন সংবাদ মাধ্যম দেশ রূপান্তর। প্রতিবেদনে বলা হয়, সরকারি আসবাপত্র ক্রয়ের ক্ষেত্রে অর্থ ব্যয়ের এমন অসংঙ্গতির ঘটনা ঘটিয়েছেন গণপূর্ত অধিদপ্তরের পাবনা জেলার পূর্ত বিভাগের কর্মকর্তারা। প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের কাছ থেকে জানা গেছে, সরকারের অগ্রাধিকার তালিকায় থাকা এই প্রকল্পের আওতায় মূল প্রকল্প এলাকার বাইরে হচ্ছে গ্রিনসিটি আবাসন পল্লী। সেখানে বিদ্
error: Content is protected !!
JS security