মুক্ত কলাম

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আবরার ফাহাদের পক্ষ থেকে আকুতি

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আবরার ফাহাদের পক্ষ থেকে আকুতি


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
লেখকঃ আবু বকর সিদ্দিক বিদায় প্রিয় বাংলাদেশ বিদায় প্রিয় বিদ্যাপীঠ। অশ্রুসিক্ত নয়নে করুণ মর্মবেদী যন্ত্রণাদায়ক মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করে পরপারের ঠিকানায় সাড়ে তিন হাত কবরের বাসিন্দা- বুয়েটে পড়ুয়া আপনার ছেলে আবরার ফাহাদ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বুকে পাজরে তিল তিল করে একটি স্বপ্নের বীজ বপন করেছিলাম বুয়েটে লেখাপড়া শেষ করে ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করে আপনাকে পদ্মাসেতুর নকশা উপহার দিব বলে। পদ্মাসেতু তৈরী করা জন্য বহু টাকা খরচ করে বিদেশ থেকে নকশা তৈরী করা হয়েছে, আমি আবরার ফাহাদ আপাকে এবং প্রিয় মাতৃভূমিকে ফ্রী নকশা তৈরী করে দিতাম- এই স্বাধীন বাংলার ১৬ কোটি মানুষ কে, তখন আমার বুক গর্বে ভরে যেতো আমি বাংলাদেশে জন্মেছি বলে। এই দেশটাকে অনেক কিছু দিতে চেয়েছিলাম, কিন্ত আমার দূর্ভাগ্য আমি দিতে পারিনি তার আগেই কিছু অমানুষ আমাকে মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করিয়ে অপারের ঠিকানায় পাঠিয়ে দিল! মাননীয় প
আবরার হত্যা : আমাদের বোধোদয়

আবরার হত্যা : আমাদের বোধোদয়


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
লেখক মাহবুবা জেবিন:: স্টিলের একটা বাক্স তাতে সাদা রঙ দিয়ে লেখা ফাহাদ আর পাশের ছবিতেই মর্গের টেবিলে ফাহাদের নিথর মরদেহ । নিষ্পাপ চেহারার ছেলেটা আধখোলা চোখে ঘুমিয়ে আছে চিরদিনের মতো । সারা শরীরে আঘাত আর নির্মমতার চিহ্ন । আহারে কত না কষ্ট পেয়ে ছেলেটা মরেছে । লন্ডন অথরিটির একটি ফরমায়েশি লেখার মাঝপথে এসে সকাল থেকে একটি লাইনও লিখতে পারিনি । কিছুতেই পারছিনা ফাহাদের ছবিটা মাথা থেকে সরাতে । কি যেন একটা গলার কাছে দলা পাকিয়ে উঠছে । চোখ ঝাপসা হয়ে আসছে বার বার । স্নেহময়ী মায়ের মনে নিশ্চয়ই কু ডেকেছিল । ফোন দিয়েছিলেন যেন সময় মত রাতে খাওয়ার কথা বলতে । আত্মভোলা ছেলেটা হয়তো না খেয়ে সারারাত পড়বে এরপর টেবিলে মাথা রেখেই ঘুমিয়ে পরবে । অসংখ্যবার ফোন দিয়েও না পেয়ে মা আর ঘুমাতে যাননি । জায়নামাজে বসেই খবর পান আদরের সোনামণি আর নেই । সারা জীবনে যে ছেলেটির গায়ে একটি ফুলের টোকা পরেনি তাকেই মানুষের চেহারার হায়েনা
আজ ‘কাশ্মীর বন্ধীত্বের ও অধিকার হারানোর-১মাস

আজ ‘কাশ্মীর বন্ধীত্বের ও অধিকার হারানোর-১মাস


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
এস এম ওয়াহিদুল ইসলামঃ- ভারতীয় উগ্রবাদী হিন্দুদের প্রতিনিধিত্বকারী মোদি সরকারের একতরফাভাবে বিশেষ মর্যাদা -সম্পন্ন স্বায়ত্তশাসিত একমাত্র মুসলিম রাজ্য কাশ্মীরের মর্যাদা কেড়ে নেওয়ার আজ ১মাস পূর্ণ হলো। পৃথিবীর ভূ-স্বর্গ খ্যাত কাশ্মীর এখন জ্বলছে সাম্প্রদায়িকতার আগুনে। কাশ্মীরের আকাশ এখন বারুদের ঝাঁঝালো উৎকট গন্ধে উপত্যকার জনগোষ্ঠী শ্বাসরুদ্ধ! মজলুম মুসলিম জনগোষ্ঠীর আর্তচিৎকার ইতারে ছড়িয়ে ধ্বনিত হচ্ছে বিশ্বময়-! কিন্তু বিশ্বমানবতার ফেরিওয়ালারা আশ্চর্যজনক নিরবতা পালন করছে! তারচেয়ে অবাক করা বিষয় মুসলিম বিশ্বের ধৃষ্টতাপূর্ণ উদাসীনতা! উম্মাহর হ্নদয়ের রক্তক্ষরণ ঘটেছে ৫আগষ্টের পরে মধ্যপ্রাচ্যের দুই মুসলিম রাষ্ট্রের মোদি'কে তাদের রাষ্ট্রীয় সম্মান প্রদান। একমাত্র মুসলিম প্রতিবেশী পাকিস্তান শুরু থেকেই প্রতিবাদে উচ্চকণ্ঠ। তুরস্ক ও মালয়েশিয়া এবং ইরান পাকিস্তানের পাশে থেকে কাশ্মীরীদের অধিকার কেড়ে
মনের সুখই আসল সুখ বা অপরকে সুখী করানোই প্রকৃত সুখ

মনের সুখই আসল সুখ বা অপরকে সুখী করানোই প্রকৃত সুখ


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
নজরুল ইসলাম তোফা: মানুষের এই জগত জীবন অতি সংক্ষিপ্ত জীবন। তাদের আছে দুঃখ-কষ্ট, সুখ-শান্তি, আশা-ভরসা, সফলতা বা বিফলতার জীবন। এরই মধ্যে জীবনের নানা অপূূর্ণতাকে নিয়েই মানুষ অভিযোগ কিংবা ক্ষোভও প্রকাশ করে থাকে। তারা জীবন যাপনের অংশে যেন অনন্ত আশা-আকাঙ্ক্ষা নিয়ে আফসোস করে। তারা কোনোদিন তা পরিপূর্ণ করতে পারে না বা কোনো দিনই পরিতৃপ্ত হতে পারে না। কেউ কেউ খুব কঠোর পরিশ্রম করে সফল হলে বলতেই হয়, তা সৃষ্টিকর্তারই নিয়ামত। আসলে সুখ-শান্তির প্রত্যাশা হলো- মানুষদের সহজাত প্রবণতার একে বারেই ভিন্ন দিক। তাকে জোর জবরদস্তি করে কখনোই আদায় করা যায় না। ইসলাম চেয়েছে দেহ এবং মনের প্রয়োজন সমভাবে পূরণ করতে পারলে মানুষ পেতে পারে সুখের সন্ধান। তার জন্য মানুষের বিজ্ঞতার আলোকেই পরিশ্রম করা প্রয়োজন। সমগ্র পৃথিবীতে এমন কাউকেই পাওয়া যাবে না যে, তারা সুখী হতে চায় না। আসলে যার যা চিন্তা চেতনাতেই যেেন সুখী হতে চায়। অনেকেভাব
খন্দকার মোশতাকের মন্ত্রিসভা

খন্দকার মোশতাকের মন্ত্রিসভা


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম : শাহ মোয়াজ্জেম ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সময় জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ। অন্য সবাই বঙ্গবন্ধুর মন্ত্রিসভার সদস্য ছিলেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর রক্তাক্ত ক্ষতবিক্ষত লাশ ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের সিঁড়িতে রেখেই খন্দকার মুশতাকের হাত ধরে শপথ নেন তারা। প্রেসিডেন্ট : খন্দকার মুশতাক আহমেদ। ভাইস প্রেসিডেন্ট : মোহাম্মদউল্লাহ (লক্ষীপুর)। বঙ্গবন্ধুর প্রধানমন্ত্রীত্বকালে দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি। মন্ত্রিসভার ১০ জন সদস্য হলেন বিচারপতি আবু সাঈদ চৌধুরী (টাঙ্গাইল) : বঙ্গবন্ধুর প্রধানমন্ত্রীত্বকালে প্রথম রাষ্ট্রপতি। অধ্যাপক ইউসুফ আলী (দিনাজপুর) : জিয়ার আমলেও মন্ত্রী। ফণীভূষণ মজুমদার (মাদারীপুর) : ১৯৭৮ সালে ফের আওয়ামী লীগে যোগদান। সোহরাব হোসেন (মাগুরা)। আবদুল মান্নান (টাঙ্গাইল) : ১৯৭৮ সালে আওয়ামী লীগে ফেরত। মনোরঞ্জন ধর (ময়মনসিংহ) : ফের আওয়ামী লীগে যোগদান ১৯৭৮। আবদুল মোমিন (নেত্রকোনা)। আওয়ামী লীগে ফেরত ১৯৭৮। আস
অব্যক্ত কথাকলি

অব্যক্ত কথাকলি


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
----------------------- নীরেশচন্দ্র রায় ১. ফেরিওয়ালার কাজে নিযুক্ত থেকে আমি মানুষ আবিষ্কার করেছি। মানুষে-মানুষে দেখেছি অমানুষের মিলন মেলা। হেলারও ছলে জমে মেলা তাইতো আমি আজ মেলার ফেরিওয়ালা। হয়তো এই মেলাই হবে একদিন মহা মিলনের মহাকাব্য, এর প্রতিটি পঙতিতে থাকবে অঝর ধারার প্রেম। খুঁজবে সবাই প্রেমের বাঁশীওয়ালাকে। ২. ফুটন্ত শিমুল কলির মতো লালাভে আমার জীহ্বাগ্র স্পর্শ করতেই বোয়ালের মতো লম্ফঝম্ফ করলে তৃপ্ততায় আলিঙ্গন করলে প্রকৃতিকে। অমানিশায় দীপাবলীর আলো প্রজ্জ্বলিত হলো দীপশিখা। আমি সেই আলোয় স্নান করে তীর্থ যাত্রা করলাম চির মহামিলনের প্রত্যাশায়। যবনিকা হলো প্রশান্তির। কেহ বলিল আমি অস্পৃস্য! আমি জানি-আমি তোমারই জন্য আগুন্তক। ৩. চন্দ্রের আলোয় দীপ্তমান পত্রপল্লব আমাকে বলল তুমি শাখাগ্রে অবস্থান করো, এখানে বসে পতঙ্গ নৃত্য অবলোকন করো স্বচিন্তনে,আর রচনা করো কাব্যিক ভাবনা,সৃজন করো স্পর্শমনি।
পাসপোর্ট ছাড়া পাইলট আর হাসপাতালে বোমা – আমাকে ভাবাচ্ছে!

পাসপোর্ট ছাড়া পাইলট আর হাসপাতালে বোমা – আমাকে ভাবাচ্ছে!


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
ইমতিয়াজ আমিন:-পাসপোর্ট সঙ্গে না নিয়ে বিদেশে অবস্থান করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আনতে যাওয়ায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একজন পাইলকে আটকে দিয়েছে কাতার ইমিগ্রেশন। বুধবার রাতে দোহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এ ঘটনা ঘটে। ওই পাইলটের নাম ক্যাপ্টেন ফজল মাহমুদ। তিনি এখন দোহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশনে অবস্থান করছেন। অপর একটি বেসরকারি বিমানের ফ্লাইটে তার পাসপোর্ট পাঠিয়ে তাকে দেশে আনার চেষ্টা চলছে। জানা গেছে, বিদেশ সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আনতে বুধবার রাতে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বোয়িং ৭৮৭ মডেলের একটি ড্রিমলাইনার দোহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যায়। বিশেষ এই বিমানের পাইলট ছিলেন ক্যাপ্টেন ফজল মাহমুদ। তিনি পাসপোর্ট ছাড়াই কাতার যান, যেটি ধরা পড়ে সেদেশের ইমিগ্রেশনে। পরে তাকে ইমিগ্রেশনে আটকে রাখা হয়। পরে রিজেন্ট এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে করে ফজল মাহমুদের পাসপোর্ট কাতার
সিয়াম সাধনার পর বাঁকা চাঁদ দেখেই ঈদুল ফিতর

সিয়াম সাধনার পর বাঁকা চাঁদ দেখেই ঈদুল ফিতর


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
নজরুল ইসলাম তোফা:: সারা বিশ্বের মুসলমানদের ধর্মীয় এবং জাতীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। এই দিনটি অনেক তাৎপর্যপূর্ণ এবং মহিমায় অনন্য। মাসব্যাপী সিয়াম সাধনার শেষেই শাওয়ালের 'বাঁকা চাঁদ' নিয়ে আসে পরম আনন্দ ও খুশির ঈদ। "আউদ" মূলশব্দ থেকেই আরবী শব্দটি ''ঈদ'' অর্থাৎ এ ঈদের প্রমিত বাংলা শব্দ হচ্ছে আনন্দ, খুশি বা আনন্দোৎসব। যা ফিরে ফিরে এসেই অনুষ্ঠিত হয় বাঙালির ঘরে ঘরে ঈদ। এইটি ইসলাম ধর্মের রীতি হিসেবে গণ্য। ফিতর শব্দের অর্থ হচ্ছে রোজা ভাঙা বা খাওয়া। আসলেই ঈদুল ফিতরে ১ মাস রোজা থেকে আত্ম সুদ্ধি হয়।সেই আত্ম সুদ্ধির কাঠামোকেই ভেঙ্গে ফেলার চরম আনন্দ উৎসবকে "ঈদুল ফিতর" বলা যেতে পারে।সুতরাং "ঈদুল ফিতর" সারা বিশ্বের মমিন মুসলমান ধর্মাবলম্বীর দুটি ঈদের মধ্যে একটি ঈদ। ঈদ খুশির অন্যতম প্রধান উপকরণ হচ্ছে ঈদের দিনে ঈদগাহে দুই রাকায়াত ওয়াজিব নামাজ পড়া। এমন এঈদের নামাজের ফজিলত সম্পর্কেই মহানবী বলেন, ঈদুল ফিতরের এ
সংস্কৃতির আত্মানুসন্ধানে পহেলা বৈশাখের অগ্রযাত্রা – নজরুল ইসলাম তোফা।।

সংস্কৃতির আত্মানুসন্ধানে পহেলা বৈশাখের অগ্রযাত্রা – নজরুল ইসলাম তোফা।।


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
বাংলা পঞ্জিকার ১ম মাস বৈশাখের ১ তারিখেই হয় ‘পয়লা বৈশাখ’ বা ‘পহেলা বৈশাখ’। বাংলা সনের এ দিনটিকেই বলা হয় বাংলা ‘নববর্ষ’। এমন দিনটিকেই বাংলাদেশের মানুষ খুব উৎসবের সঙ্গেই পালন করে আসছে। শুভ ‘নববর্ষ’ উদযাপনে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে অংশ গ্রহণ করে থাকে। বাঙালি মেয়েরা ঐতিহ্যবাহী পোশাক শাড়ী এবং পুরুষেরা পাজামা-পাঞ্জাবি পরিধানে খুব বিনোদনপূর্ণ ভাবে এ দিনটি উৎযাপন করে। আবার প্রত্যেক ঘরে ঘরেই বিশেষ ধরণের খাবার তৈরি হয়। যেমন: পান্তা-ইলিশ এবং নানা রকমের পিঠাপুলির ব্যবস্থা সহ হরেক রকমের খাবার। সর্বোপরি বলাই যায় যে, সব স্তরের বাঙালি জাতি তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী নতুন বছরের প্রথমে ঘরে ঘরে ভালো খাবার খায় এবং মানুষদের প্রতিও ভেদা ভেদ দূর করেই যেন মানবতা বোধকে জাগ্রত করে। এমন এই নববর্ষের দিনটিতেই অনেক দরিদ্র, নিপীড়িত, অসহায় মানুষদের পাশাপাশি দাঁড়ানোর প্রেরণার একটি বৃহৎ পটভূমিই বলা চ
বেগম জিয়ার প্যারোলে মুক্তির কথাবার্তা বনাম কাল নাগিনীর বিষপানে আত্মহত্যা — গোলাম মওলা রনি:

বেগম জিয়ার প্যারোলে মুক্তির কথাবার্তা বনাম কাল নাগিনীর বিষপানে আত্মহত্যা — গোলাম মওলা রনি:


Warning: printf(): Too few arguments in /home/globalsylhet/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
মানুষের জীবনে এমন কতগুলো মুহুর্ত আসে যখন চিৎকার চেচামেচি, হৈ হুল্লোড়, আনন্দ-ফুর্তি অথবা কান্নাকাটির তুলনায় নীরব থাকাটা বেশী অর্থপূর্ন হয়ে ওঠে এবং সেই নীরব থাকার শক্তি যে কতোবড় এবং কতোটা মহান হয়ে উঠতে পারে তার প্রমান বিশ্ব রাজনীতিতে বহুবার দৃশ্যমান হয়েছে। একইভাবে মুক্ত মানুষের চেয়ে কারাবন্দী মানুষের ক্ষমতা, কর্তৃত্ব, মান-সম্মান ও মর্যাদা যে কতো ব্যাপক ও বিশাল হতে পারে তারও শত শত প্রমান ইতিহাসে রয়েছে। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে উপরোক্ত কথাগুলো আমার হঠাৎ করেই মনে হলো কারাবন্দী সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম জিয়াকে নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে ক্ষমতাসীনদের দরদ ও মমত্ববোধের বাহারী রংচটা কথাবার্তা শুনে। ক্ষমতাবানরা বলছেন- বেগম জিয়া দরখাস্ত করলে তাকে প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে বিবেচনা করা হবে। বিএনপি বলছে – তারা প্যারোলে নিয়ে ভাবছেন না। কারণ বেগম জিয়া মরে গেলেও প্যারোলের শর্তে জেল থেকে বের হবেন না। বেগম জিয়ার অতীত ই
error: Content is protected !!
JS security