সংসদ নির্বাচন

শফি আহমেদ চৌধুরীকে বিএনপি থেকে বহিষ্কার

শফি আহমেদ চৌধুরীকে বিএনপি থেকে বহিষ্কার

বিএনপি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে সিলেট-৩ আসন উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী  । দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে এনে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। শনিবার (১৯ জুন) রাতে বিএনপির দফতর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। তিনি বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন। বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও দলীয় দফতরের দায়িত্বে থাকা এমরান সালেহ প্রিন্স স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও দলের স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকার সুস্পষ্ট অভিযোগে দলীয় গঠনতন্ত্রের ৫(গ) ধারা মোতাবেক শফি আহমেদ চৌধুরীকে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির পদসহ সকল পর্যায়ের পদ থেকে অব্যাহতি প্রদানপূর্বক দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। দলের সিদ্ধান্ত ও শৃঙ্খলা অমান্য করার পরিপ্রেক্ষিতে গেল ১৫ জুন শফি আহমেদ চৌধুরীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। এ নোটিশের জবাবে তার বক্তব্য গ্
সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে দুই প্রার্থীর মনোনয়ন অবৈধ

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে দুই প্রার্থীর মনোনয়ন অবৈধ

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে দুই প্রার্থীর মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। আর আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির প্রার্থীসহ চারজনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) দুপুরে রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহা. ইসরাইল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য আতিকুর রহমান আতিক, স্বতন্ত্র হিসেবে বিএনপির কেন্দ্রীয় সদস্য সাবেক সাংসদ শফি আহমেদ চৌধুরী, জুনায়েদ মোহাম্মদ মিয়ার মনোনয়ন বৈধ ঘোষাণা করা হয়। অন্যদিকে শেখ জাহেদুর রহমান মাসুম, ফাহমিদা হোসেন রুমার প্রার্থীতা বাতিল করা হয়। তবে তারা প্রার্থীতার জন্য আপিল করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন এ রিটারর্নিং কর্মকর্তা। তিনি আরও বলেন, সিলেট-৩ আসনের নির্বাচন ইভিএমে অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে সব ধ
একলাস মোল্লাহ ও ডিপজলের কাছে মনোনয়ন পত্র বিক্রী করেনি আওয়ামীলীগ

একলাস মোল্লাহ ও ডিপজলের কাছে মনোনয়ন পত্র বিক্রী করেনি আওয়ামীলীগ

  ঢাকা–১৪ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করতে গিয়ে বিফল হয়েছেন এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ ও চলচ্চিত্র তারকা মনোয়ার হোসেন ডিপজল। তাঁরা দুজনই দীর্ঘদিন ধরে বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত। আওয়ামী লীগের ফরম বিক্রির সঙ্গে যুক্ত সূত্র বলছে, গত মঙ্গলবার দুপুরের পর এখলাস মোল্লাহ নেতা–কর্মীসহ আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে যান। একই সময়ে মনোয়ার হোসেন ডিপজলও ফরম সংগ্রহের লক্ষ্যে বাইরে অপেক্ষা করছিলেন। তাঁর সঙ্গে চলচ্চিত্র অঙ্গনের আরও কয়েকজন অভিনেতা ছিলেন। এখলাস মোল্লাহ মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করতে গেলে ধানমন্ডি কার্যালয়ের কর্মীরা সেখানে উপস্থিত নেতাদের তা জানান। এখলাস মোল্লাহকে আওয়ামী লীগ বা এর সহযোগী কোনো সংগঠনের প্রাথমিক সদস্যপদ কিংবা কোনো পদ আছে কি না, তার প্রমাণপত্র সংগ্রহের পরামর্শ দেন। সে মোতাবেক কর্মীরা এখলাস মোল্লাহর কাছে আওয়ামী লীগ করার প্রমাণপত্র চান। তবে তিনি তা দে
সাবেক ছাত্রনেতাদের মাঠে নামাচ্ছে বিএনপি, টার্গেট দ্বাদশ নির্বাচন.

সাবেক ছাত্রনেতাদের মাঠে নামাচ্ছে বিএনপি, টার্গেট দ্বাদশ নির্বাচন.

রাজনীতিতে খাদের কিনারায় থাকা বাংলাদেশ জাতীয়বাদী দল (বিএনপি) ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারের উপায় খুঁজছে। বিশেষ করে গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়ের পর দলটির সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রচণ্ড রকমের হতাশা ভর করেছে। এ কারণে দলের হাইকমান্ড নেতাকর্মীদের মনোবল চাঙ্গা করতে প্রাণপণ চেষ্টা করে যাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে রাজপথে সক্ষমতা প্রমাণ করা সাবেক ছাত্রনেতাদের মাঠে নামানো হচ্ছে। ২০২৩ সালের শেষ দিকে অনুষ্ঠেয় দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ওই নেতাদের আসন ভিত্তিতে দায়িত্ব দেয়া হচ্ছে। রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে বিশেষত তরুণদের অংশগ্রহণ বাড়ানোর কাজ করবেন তারা। এজন্য ওই নেতাদের ইতোমধ্যে ‘গ্রিন সিগন্যাল’ও দেয়া হয়েছে। দলীয় সূত্র মতে, একদিকে চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অসুস্থতা, অন্যদিকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান দীর্ঘদিন ধরে লন্ডনে থাকার কারণে সাংগঠনিকভাবে নাজুক অবস্থ
সিলেট-৩ আসনের ১০ সম্ভাব্য প্রার্থীকে সিটি করপোরেশনের নোটিশ

সিলেট-৩ আসনের ১০ সম্ভাব্য প্রার্থীকে সিটি করপোরেশনের নোটিশ

সিলেট-৩ আসনের উপ নির্বাচনের অন্তত সম্ভাব্য প্রার্থীকে নোটিশ দিয়েছে সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক)। বিধিবর্হিভূতভাবে নগরীর ভেতর বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার লাগিয়ে প্রচারণা করায় তাদেরকে নোটিশ দেয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট প্রার্থীদেরকে সিটি করপোরেশন এলাকায় প্রচারণা চালানোর জন্য নির্ধারিত হারে কর পরিশোধ করার জন্য এ নোটিশ দেয়া হয়। নোটিশপ্রাপ্তদের বেশিরভাগই আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী। নোটিশপ্রাপ্ত সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও জজ কোর্টের পিপি এডভোকেট নিজাম উদ্দিন, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, যুবলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও এ্যাথলেটিক ফেডারেশনের সেক্রেটারি এডভোকেট আবদুর রকিব মন্টু, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ নেতা স্যার এনাম উল ইসলাম, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আতিকুর রহমান আতিক, কে
সিলেট-৩ আসনে নৌকা পেতে এক ডজন প্রার্থীর দৌড়ঝাঁপ

সিলেট-৩ আসনে নৌকা পেতে এক ডজন প্রার্থীর দৌড়ঝাঁপ

সিলেট সংবাদদাতা: সিলেট-৩ আসনটি সিলেট জেলার দক্ষিণ সুরমা উপজেলা, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা এবং বালাগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত। পূর্বে বালাগঞ্জ উপজেলার শুধু ৩টি ইউনিয়ন দেওয়ান বাজার ইউনিয়ন, পূর্ব গৌরীপুর ইউনিয়ন ও পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়ন অন্তর্ভুক্ত ছিল।[২] ২০১৮ সালের সীমানা পুনঃনির্ধারনে বালাগঞ্জ উপজেলার সবগুলি ইউনিয়ন অন্তর্ভুক্ত করা হয়। সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে এক ডজন নেতা দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। নানাভাবে তারা প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং ব্যানার-পোস্টার টাঙিয়ে তারা প্রার্থিতার জানান দিচ্ছেন। শুভেচ্ছা-মতবিনিময়ও করছেন তারা। আসনটিতে কে প্রার্থী হতে যাচ্ছেন তা নিয়ে চলছে আলোচনা ও চুলচেরা বিশ্লেষণ। সিলেট-৩ আসনের (দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ) সংসদ সদস্য এবং জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জনপ্রিয় নেতা মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী করো
দিরাইয়ের মেয়ে সিলেট-৩ আসনে ফারজানা সামাদের প্রার্থীতা ঘোষণা

দিরাইয়ের মেয়ে সিলেট-৩ আসনে ফারজানা সামাদের প্রার্থীতা ঘোষণা

সিলেট ৩-আসনের উপ-নির্বাচনে অংশ নিতে প্রার্থীতা ঘোষণা করেছেন প্রয়াত এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর সহধর্মিণী ফারজানা সামাদ চৌধুরী। উচ্চ শিক্ষিতা ফারজানা সামাদ চৌধুরী  দিরাই উপজেলার ঐতিহ্য বাহী ভাটিপাড়া জমিদার বাড়ীতে জন্ম গ্রহন করেন। এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর ইন্তেকালের পর উনার স্ত্রী ফারজানা সামাদ চৌধুরীর নির্বাচন করা না করা নিয়ে সিলেট ৩ আসনে নানা জল্পনা কল্পনা ছিলো নেতাকর্মী ও স্থানীয়দের মধ্যে। সেই কৌতূহলের অবসান ঘটিয়ে নিজের অবস্থান পরিস্কার করে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিয়ে নেতাকর্মীদের সাথে মত বিনিময় করছেন ফারজানা সামাদ চৌধুরী। সম্প্রতি তিনি ফেঞ্চুগঞ্জস্থ বাস ভবনে ফেঞ্চুগঞ্জ-দক্ষিন সুরমা-বালাগঞ্জের নেতাকর্মী ও বিভিন্ন শ্রেনীপেশার লোকজনের সাথে মতবিনিময় করছেন। এক বিবৃতিতে তিনি সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, স্বামী মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপির অসমাপ্ত
নির্বাচনে হেরে গেলেন যেসব তারকা

নির্বাচনে হেরে গেলেন যেসব তারকা

বিনোদন ডেস্ক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা আজ। এবারের নির্বাচনে লড়ছেন একঝাঁক তারকা। তবে এই নির্বাচনী হাওয়ায় পালাবদল কম হয়নি। কেউ তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন, আবার অনেক তারকাই নতুন করে তৃণমূলের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। আজ (২ মে) তৃণমূল ও বিজেপির তারকা প্রার্থীদের মধ‌্যে কেউ কেউ বিজয়ের হাসি হেসেছেন, আবার অনেকেই হেরে গেছেন। চলুন জেনে নেয়া যাক হেরে গেলেন যেসব তারকা- যশ দাশগুপ্ত: এবারের বিধানসভা নির্বাচনে চণ্ডীতলা আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হয়েছেন অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। এ আসনে তৃণমূলের প্রার্থী স্বাতী খান্দেকর বিজয়ী হয়েছেন। সায়নী ঘোষ: আসানসোল দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ। কিন্তু এ আসনে বিজেপির তারকা প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পাল জয়ী হয়েছেন। লকেট চট্টোপাধ্যায়: চুঁচুড়ায় বিধানসভার ভ
সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী তিন ডজন!

সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী তিন ডজন!

করোনাভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণের কারণে সারাদেশে সব ধরণের নির্বাচন স্থগিত থাকলেও বসে নেই শূন্য ঘোষিত সিলেট-৩ আসনের সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। সিলেট-৩ আসনের এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী’র অকাল মৃত্যুতে এ আসনটি শূন্য হয়। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা অনুযায়ী, শূন্য ঘোষণার ৯০ দিনের ভিতরে শূন্য আসনে উপ-নির্বাচনের রেওয়াজ থাকলেও পরিবর্তিত পরিস্থিতির কারণে তা স্থগিত রাখা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের স্থগিতাদেশ স্বত্ত্বেও উপ-নির্বাচনকে ঘিরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও সিলেট ৩ (দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ) নির্বাচনী এলাকার হাট বাজারে বিভিন্ন স্থানে ব্যানার, ফেস্টুন, পোস্টার, তোরণে সম্ভাব্য প্রার্থীরা তাদের প্রার্থীতার বিষয়টি জানান দিচ্ছেন। প্রার্থী হবার বিষয়ে বিভিন্ন অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়ায়ও তারা সাক্ষাতকার দিয়ে প্রার্থী হবার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য প্রায় ৩ ডজন সম্

নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গঠনে – বিজেপি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:-  নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো সরকার গড়তে চলেছে ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি।  একইভাবে দ্বিতীয় দফায় প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদি। এখন বাকি কেবল আনুষ্ঠানিকতা।  ইতোমধ্যে বিজেপির পক্ষে ফের রায় দেওয়ায় ভারতবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন দলটির সভাপতি অমিত শাহ। আর এ জয়কে ‘ভারতেরই জয়’ বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।  বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ভোট গণনা শুরু হওয়ার পর দুপুরের দিকেই ক্ষমতাসীন বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের সংখ্যাগরিষ্ঠতা স্পষ্ট হয়ে যায়।  টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবর অনুযায়ী, ৫৪৩টি আসনের মধ্যে সরকার গঠনের জন্য ২৭২ আসন প্রয়োজন হলেও এনডিএ ৩৩৯টি আসনে এগিয়ে রয়েছে। এরমধ্যে কেবল বিজেপিই এগিয়ে ২৯৫টি আসনে। ধারাবাহিকতা অনুসারে আসন দু’তিনটে এদিক-সেদিক হলেও বিজেপির জোটই যে সরকার গঠনের সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাচ্ছে তা এক প্রকার নিশ্চিত। সরকার চা
JS security